সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১২:৪১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
পদ্মা সেতু রেল সংযোগ নির্মাণ : পাল্টে যাবে যশোরের বসুন্দিয়ার চিত্র। কালের খবর যাত্রাবাড়িতে সকাল-বিকাল চলে বৈঠক আ’লীগের তৃণমূল নেতা-কর্মীরা উজ্জীবিত। কালের খবর দক্ষিণ সুরমায় ভয়াবহ দুর্ঘটনা ১১ জন নিহত। কালের খবর শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় পালিত হল এমপি রহমত আলীর মৃত্যু বার্ষিকী। কালের খবর কালীগঞ্জে তিন মোটরসাইকেলের সংর্ঘষে তিন জন নিহত। কালের খবর শিশু তুবা মায়ের বিয়ের খবর দেখে টেলিভিশনে। কালের খবর জুট কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। কালের খবর ট্রাফিক পুলিশের হাতের ইশারায় গাড়ির চাকা থামে ঘোরে। কালের খবর সাংবাদিক মুজাক্কিরের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে আলটিমেটাম। কালের খবর বাড়ছে উৎপাদন চায়ের বাজারে নতুন ‘সাদা সোনা’
পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে মায়ের সামনে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ

পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে মায়ের সামনে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ

 

 

কালের খবর ডেস্ক :
রক্ষকই ভক্ষক। প্রতিবেশীর ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল এক পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে।

অভিযোগ, অন্ধকার ঘরে তার মায়ের সামনেই সেই গৃহবধূকে ধর্ষণ করা হয়। ঘটনাটি পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুরের কর্ণজোড়ার। অভিযুক্ত পুলিসকর্মী অখিল মণ্ডল ঘটনার পর থেকে পলাতক।
অভিযুক্ত অখিল মণ্ডল রায়গঞ্জ সংশোধনাগারের জেল ওয়ার্ডেন। সোমবার মাঝ রাতে সেই গৃহবধূ ঘুম থেকে উঠে শৌচালয়ে যান। সেই সময়ই বাড়ির মেইন সুইচ বন্ধ করে দেন অখিল। বাড়ি অন্ধকার হতেই সুযোগ বুঝে ঘরের মধ্যে ঢুকে এককোণে ঘাপটি মেরে বসে থাকেন তিনি। এরপরই সেই গৃহবধূ শৌচালয় থেকে ঘরে ফিরতেই তার উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন অখিল।
ঘরের মধ্যে তখন সেই গৃহবধূর মাও ছিলেন।

কিন্তু অন্ধকার ঘরে কী ঘটছে, তা প্রথমে ঠিকমতো বুঝতে পারেননি নির্যাতিতার মা। এমনকী অভিযুক্ত অখিল মণ্ডলকে ‘নিজের জামাই’ ভেবেও ভুল করেন তিনি। পরে মেয়ের চিৎকারে সব বুঝতে পেরে দৌড়ে বাইরে বেরিয়ে এসে ঘরের দরজা আটকে দেন। এরপর চিৎকার-চেঁচামেচি জুড়ে দেন সেই গৃহবধূর মা।
এদিকে নির্যাতিতা গৃহবধূর মায়ের চিৎকারে ছুটে আসেন অভিযুক্ত পুলিশকর্মীর বাড়ির লোকেরা। অভিযোগ, সেই গৃহবধূর বাড়ির লোকদের ওপর চড়াও হন তারা। মারধর করে বাড়ির দরজা ভেঙে ছাড়িয়ে নিয়ে যান বাড়ির ছেলেকে। এরপর সোমবার রাতেই কর্ণজোড়া পুলিশ ফাঁড়িতে অভিযুক্ত অখিল মণ্ডলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে নির্যাতিতা গৃহবধূর পরিবার।
কিন্তু পুলিশের তদন্ত নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। অভিযোগ, ঘটনার পর দুদিন কাটতে চললেও এখন অধরা অভিযুক্ত। পাশাপাশি অভিযুক্তের পরিবার অভিযোগ তুলে নিতেও চাপ দিচ্ছে। যদিও অভিযুক্তকে অবিলম্বে গ্রেফতার করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন উত্তর দিনাজপুর জেলা পুলিশ সুপার শ্যাম সিংহ।

কালের খবর -/৭/৩/১৮

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com