রবিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নাসিকে জমে উঠেছে নির্বাচনী উৎসব। কালের খবর হাবিবুর রহমান স্বপনের মাতৃবিয়োগ। কালের খবর মাদক,সন্ত্রাস ও ইভটিজিং নির্মূলে খেলাধূলার ভূমিকা অপরিসীম। কালের খবর নবীনগরে আইনশৃঙ্খলার ব্যাপক অবনতি, অগ্নিসংযোগ আতঙ্কে সাধারণ মানুষ। কালের খবর নবীনগরে জাতীয় পার্টির ৩৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত। কালের খবর সারা বছরজুড়ে যশোরের যত আলোচিত ঘটনা। কালের খবর হান্ডিয়াল প্রেসক্লাবে দ্বিবার্ষিক কমিটি গঠন। কালের খবর নবীনগরে শপথ গ্রহণের পূর্বেই ইউ/পি সদস্য খুরশেদ আলম জুতাপেটা করলেন এক বৃদ্ধাকে। কালের খবর ডিঙ্গামানিক ইউনিয়ন জুড়েই যেন চশমা প্রতিকে ভোট প্রার্থনা। কালের খবর মেহেরপুরে জোসনা বেকারিকে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা। কালের খবর
কংগ্রেসের সভাপতি হচ্ছেন রাহুল গান্ধী?

কংগ্রেসের সভাপতি হচ্ছেন রাহুল গান্ধী?

ভারতের গুজরাট প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনের আগেই রাহুল গান্ধী ভারতীয় কংগ্রেসের নেতৃত্ব পাচ্ছেন বলে দেশটিতে আলোচনা চলছে। কংগ্রেসের সভাপতি পদে রাহুল গান্ধীর পথ প্রশস্ত করতে দলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক ডেকেছেন সোনিয়া গান্ধী। গুজরাটের ভোটের আগেই দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে মোকাবিলায় রাহুলের রাজনৈতিক ক্ষমতা আরো বাড়াতেই কংগ্রেস এই কৌশল নিয়েছে বলে দেশটির পর্যবেক্ষকরা মন্তব্য করেছেন।

রোববার কংগ্রেস বলছে, সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক ডাকা হয়েছে। সেখানে সভাপতি পদে নির্বাচনের সময় চূড়ান্ত হবে। কংগ্রেস নেতাদের বক্তব্য, সাধারণভাবে ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের পরে পুরো নির্বাচন প্রক্রিয়া শেষ করতে দশ দিনের মতো সময় লাগতে পারে।

কংগ্রেস নেতা জনার্দন দ্বিবেদী বলেন, ‘যদি আর কোনো প্রার্থী সভাপতি পদে না প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন তাহলে নাম প্রত্যাহারের শেষ দিনেই নতুন সভাপতির নাম ঘোষণা করা হবে।’ সভাপতি পদের জন্য রাহুল ছাড়া এখন পর্যন্ত অন্য কারও নাম দেয়ার সম্ভাবনা নেই বলে কংগ্রেসের বেশ কিছু সূত্র নিশ্চিত করেছে।

তবে রাহুলকে এখনই কংগ্রেসের সভাপতির দায়িত্ব দেয়া নিয়ে দলের মধ্যে নানা মত রয়েছে। দলের এক অংশ মনে করে, যদি রাহুলের প্রচারের পরও গুজরাট বা হিমাচলের বিধানসভা ভোটের ফল ভাল না হয়, তাহলে এই পদোন্নতি নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া হতে পারে। এর প্রভাব পড়তে পারে আগামী বছর বিধানসভার একাধিক ভোটে। এমনকি লোকসভার ভোটেও।

৯ ডিসেম্বর গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফা ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এই ভোটের আগেই রাহুল গান্ধী কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচিত হতে পারেন। অক্টোবরে এনডিটিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কংগ্রেসের বর্তমান সভাপতি সোনিয়া গান্ধীও রাহুলের কাঁধে দলের দায়িত্ব তুলে দেয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।

১৯৯৮ সাল থেকে দলের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন সোনিয়া। টানা ১৭ বছর ধরে সোনিয়া গান্ধী দলটির সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন। ২০১৩ সালের জানুয়ারিতে কংগ্রেসের সহ-সভাপতি হওয়ার পর থেকেই রাহুল দলটির দ্বিতীয় সর্বোচ্চ নেতা।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com