শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৪:২০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুর বন্যার প্রভাবে হাটভর্তি গরু, ক্রেতা কম !! কালের খবর রূপগঞ্জে কারখানার বিষাক্ত পানিতে মরে গেলো ৩ লাখ টাকার মাছ : অসুস্থ অর্ধশতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা। কালের খবর মুরাদনগরে  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক  বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অর্থায়নে এক,শত শিক্ষার্থী কে বাইসাইকেল প্রদান। কালের খবর পৈত্রিক সম্পত্তি ভূমিদস্যু হাতে থেকে রক্ষার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন জগন্নাথপুরে রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু এলাকায় শোকের ছায়া, জানাযা সম্পন্ন। কালের খবর সাইবার অপরাধ দমন ও অপপ্রচার ঠেকাতে একটি আলাদা ‘সাইবার পুলিশ ইউনিট’ হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন। কালের খবর ইউপি চেয়ারম্যান পিতার এক ছেলে এমপি আরেক ছেলে উপজেলা চেয়ারম্যান। কালের খবর ঢাকা প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য এম নজরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক। কালের খবর
কাশ্মীরিদের সহায়তায় পাকসেনা প্রস্তুত। কালের খবর

কাশ্মীরিদের সহায়তায় পাকসেনা প্রস্তুত। কালের খবর

কালের খবর ডেস্ক :

বলে জানিয়েছেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। বলেছেন, অধিকৃত কাশ্মীরের জনগণের সাহায্যে সবকিছু করতে প্রস্তুত তার সৈন্যরা।

ভারতীয় সংবিধান থেকে ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা সংক্রান্ত ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল ঘোষণার পরদিন মঙ্গলবার রাওয়ালপিন্ডিতে শীর্ষ সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন বাজওয়া।

সেখানেই এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, আমরা প্রস্তুত এবং আমাদের লক্ষ্য পূরণে যে কোনো পর্যায়ে যেতে বদ্ধপরিকর। কাশ্মীরিদের ন্যায়ের সংগ্রামে শেষ পর্যন্ত পাশে থাকবে পাক সেনাবাহিনী।

কাশ্মীরের ব্যাপারে ভারতের নিপীড়নমূলক পদক্ষেপকে বর্ণবাদী অভিহিত করে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, আমরা একটা বর্ণবাদী আদর্শের বিরুদ্ধে লড়াই করছি। আমাদের লড়াই বর্ণবাদের বিরুদ্ধে।

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত ও পাকিস্তানকে সংযত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। সোমবার মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিক বলেছেন, ভারত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাখ্যানের পর সামগ্রিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে জাতিসংঘ। তিনি জানিয়েছেন, জম্মু ও কাশ্মীরে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধবিরতি পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি সীমান্তে সামরিক শক্তি বৃদ্ধির বিষয়টিও জাতিসংঘ পর্যবেক্ষণ করছে।

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ইসলামাবাদের করণীয় ঠিক করতে মঙ্গলবার পাক পার্লামেন্টে শুরু হয়েছে যৌথ অধিবেশন। সেখানেই ইমরান বলেন, সরকারের দায়িত্ব নেয়ার পর আলোচনার জন্য বারবার ভারতের দরজায় গিয়েছি।

কিন্তু এক সময় আমি বুঝতে পারলাম, তারা আমাদের সঙ্গে আলোচনায় আগ্রহী না। আমাদের আগ্রহকে তারা দুর্বলতা হিসেবে দেখছে। এখন বুঝতে পারছি, কেন তারা আলোচনা চায় না।

কাশ্মীর ইস্যুতে বিজেপির সিদ্ধান্ত হঠাৎ কোনো কিছু নয়। এটা তাদের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি। বর্ণবাদী আদর্শ থেকেই তারা এটা করছে। তারা সবক্ষেত্রে মুসলিমদের বিরুদ্ধে হিন্দুত্বের প্রাধান্য দিয়ে বর্ণবাদের বাস্তবায়ন করছে। এর মাধ্যমে তারা নিজ দেশের এবং আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করছে।

এর আগে নয়াদিল্লির পদক্ষেপকে বেআইনি বলে নিন্দা জানান ইমরান খান। একই সঙ্গে পারমাণবিক অস্ত্রধারী প্রতিবেশী দু’দেশের মাঝে সম্পর্কের আরও অবনতি ঘটবে বলে হুশিয়ারি দেন তিনি।

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতকে উপযুক্ত জবাব দিতে ইমরানের সরকারকে ‘পূর্ণ সহযোগিতা’ দেবে বলে জানিয়েছে বিরোধী দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএলএন)। মঙ্গলবার দলটির সভাপতি ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ভাই শাহবাজ শরিফ এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com