বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৫:৪৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কোটাবিরোধী আন্দোলন-আবারও রাজনীতির মাঠে ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট। কালের খবর চালের দাম আরও বাড়লো, সবজি আলু পেঁয়াজেও অস্বস্তি। কালের খবর খুনি ওসি প্রদীপের হাতে নির্যাতিত সাংবাদিকের আহাজারি। কালের খবর বন্দরে ৬ প্রতারকের বিরুদ্ধে আদালতে চাজশীট দাখিল। কালের খবর মুরাদনগরে মাদক বিরোধী সমাবেশ। কালের খবর সাংবাদিক জুয়েল খন্দকারের বিরুদ্ধে কাউন্সিলর সাহেদ ইকবাল বাবুর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত। কালের খবর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ঠিকাদারদের সাথে লিরা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ”র মতবিনিময় সভা-সম্পন্ন। কালের খবর গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী আমান উল্লাহ বিরুদ্ধে কাজ না করেই সরকারি বরাদ্দের কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎতের অভিযোগ!। কালের খবর স্ত্রীর যৌতুক মামলায়,ব্যাংক কর্মকর্তা রাশেদের শেষ রক্ষা মিলেনি বাকলিয়া থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার। কালের খবর নবীনগর থানা প্রেস ক্লাবের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে কমিটি গঠন, সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক রুবেল। কালের খবর
ওপেক থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে কাতার। কালের খবর

ওপেক থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে কাতার। কালের খবর

কালের খবর ডেস্ক :

তেল রপ্তানিকারকদের সংগঠন ওপেক থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে কাতার। তেল সমৃদ্ধ ছোট্ট এই দেশটি সোমবার এমন ঘোষণা দিয়েছে। প্রায় ৬০ বছর ধরে ওপেকের সদস্য তারা। রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি কাতার পেট্রোলিয়াম সোমবার ধারাবাহিকভাবে এ বিষয়ে টুইট করেছে। তাতে বলা হয়েছে, ১লা জানুয়ারিতে তারা ওপেক ত্যাগ করছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন সিএনএন।

জ্বালানি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী সাদ শেরিদা আল কাবি টুইটে লিখেছেন, নিজের প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন বৃদ্ধি ও তা উন্নয়ন পরিকল্পনা যাতে নিজে নিতে পারে সে জন্যই ওপেক থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কাতার।
বিশ্বে মোট যে পরিমাণ তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি হয় তার মধ্যে কাতার একাই সরবরাহ করে মোট চাহিদার শতকরা প্রায় ৩০ ভাগ।

এখানে উল্লেখ্য, ওপেকের মূল নেতৃত্ব রয়েছে সৌদি আরবের হাতে। কিন্তু তারা সহ প্রতিবেশী আরো কয়েকটি দেশ প্রায় দেড় বছর ধরে কাতারের ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে। এর প্রতিক্রিয়ায় কাতার তার গ্যাস উত্তোলন বৃদ্ধি করেছে।

ওপেক থেকে কাতার বেরিয়ে গেলে তারা হবে মধ্যপ্রাচ্যের এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী প্রথম দেশ। এখানে উল্লেখ্য, ওপেক শুধু অশোধিত তেলের উত্তোলন দেখাশোনা করে। তবে সৌদি আরব ও ইরাক এক্ষেত্রে তেল উৎপাদনকারী সবচেয়ে বড় দেশ। তাই অনেকেই মনে করছেন, তাদের তুলনায় এই খাতে কাতারের অবদান ছিল সামান্য। ওপেকভুক্ত সদস্যরা প্রতিদিন ২ কোটি ৫০ লাখ ব্যারেল তেল উত্তোলন করে। সেখানে কাতার প্রতিদিন উত্তোলন করে প্রায় ৬ লাখ ব্যারেল।

দুবাইভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান কমর এনার্জির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রবিন মিলস বলেন, কাতার তেল উৎপাদনে ক্ষুদ্র একটি দেশ। তাই তাদের প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত বড় করে দেখার কিছু নেই। তবে বিষয়টি ওপেকের জন্য হতাশার।
ওপেকের শাখা বিস্তৃত আফ্রিকা পর্যন্ত। এতে রয়েছে কঙ্গো। বিষুবীয় গিনি। এরা সম্প্রতি যোগ দিয়েছে ওপেকে। এরা ওপেকে যোগ দিয়ে যে তেল উত্তোলন করবে তা কাতারের সমান। ফলে নতুন সদস্যদের যোগ দেয়ার মধ্য দিয়ে লাভ-ক্ষতি সমান সমান হয়ে যাবে। বিশ্বে যে পরিমাণ অশোধিত তেল সরবরাহ হয় তার মধ্যে শতকরা প্রায় ৪৪ ভাগ সম্মিলিতভাবে সরবরাহ দেয় ওপেকভুক্ত সদস্যরা।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com