বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৫:৩৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ট্রাফিক পুলিশের হাতের ইশারায় গাড়ির চাকা থামে ঘোরে। কালের খবর সাংবাদিক মুজাক্কিরের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে আলটিমেটাম। কালের খবর বাড়ছে উৎপাদন চায়ের বাজারে নতুন ‘সাদা সোনা’ ইউপি নির্বাচনে ইমানুজ্জামান পল্লবকে ‘নৌকা প্রতীক দিতে সলিমগঞ্জবাসীর উঠান বৈঠক। কালের খবর পাটুরিয়াঘাটে পরিবহণ ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য। কালের খবর ডেমরা ব্যাটারিচালিত নিষিদ্ধ অটোরিকশা ও ইজিবাইকের দৌড়াত্ম্য স্কুল মাঠ দখল করে ইউপি মেম্বারের বালু ব্যবসা। কালের খবর ইউএনও-র নির্দেশ উপেক্ষা আ’লীগ নেতার ফসলি জমিতে পুকুর খনন ও মাটি বিক্রি চলছে। কালের খবর প্রেমের টানে কুড়িগ্রামে এসে লাশ হয়ে ফিরলো বাড়ী। কালের খবর শহীদদের স্মরণ করেছে ডেমরা থানা আওয়ামী লীগ। কালের খবর
কুয়েতে আবারো বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা

কুয়েতে আবারো বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা

কালের খবর  ডেস্ক : মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কুয়েত আবারো বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।
দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ খালিদ আল জারাহ বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপের একটি আদেশ জারি করেছেন। তিনি এ নির্দেশ মানার জন্যও আহ্বান জানিয়েছেন।
দেশটির একটি দৈনিকের প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে নিষেধাজ্ঞার খবরটি দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ।
দৈনিকটির প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে ২০১৪ সালে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার পর বাংলাদেশিদের রেসিডেন্স পারমিটের সংখ্যা ব্যাপকভাবে বেড়েছে। মানব পাচারকারীদের দৌরাত্ম্যসহ নানা অনিয়মও বহুগুণে বেড়ে গেছে। এতেই কুয়েত সরকার বাধ্য হয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্তটি নিয়েছে।
কুয়েতের নিরাপত্তা বাহিনীগুলো সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দেওয়া প্রতিবেদনে বলেছে, বাংলাদেশি গৃহকর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রেই মূলত নানা নিয়ম ও অধিকার লঙ্ঘন চলছে। এ ধরনের প্রতিবেদনই ফের নিষেধাজ্ঞা আরোপের নেপথ্যে কাজ করেছে বলে মনে করা হচ্ছে।
জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর এক তথ্যমতে, ১৯৭৬ সাল থেকে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিতে শুরু করে কুয়েত। ২০০৭ সাল পর্যন্ত এ ধারা অব্যাহত ছিল। বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৪ লাখ ৮০ হাজার শ্রমিক নিয়েছে উপসাগরীয় দেশ কুয়েত।
কিন্তু ২০০৭ সালে বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগ বন্ধ করে দেয় কুয়েত। নিয়োগে অনিয়ম এবং বাংলাদেশি শ্রমিকদের অবৈধ কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগে নিয়োগ বন্ধ করে দেওয়া হয়। ২০১৪ সালে কুয়েত ওই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়।
এরপরই বাংলাদেশি শ্রমিকদের দেশটিতে আবার কাজের সুযোগ মেলে। কিন্তু ২০১৬ সালের মে মাসে দেশটির নিরাপত্তা বিভাগের এ প্রতিবেদন থেকে আবার শ্রমিক নিয়োগে অনিয়মসংক্রান্ত নানান অভিযোগ ওঠে আসে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com