শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৪০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
দালালদের দৌরাত্ম্যে অতিষ্ঠ সরকারি হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগীরা! মা হাসপাতালে ভর্তি থাকায় প্রেমিকের সাথে ফুর্তি, পরবর্তীতে গণধর্ষণের শিকার। কালের খবর মির্জাপুরে স্বামীর মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে ট্রাক চাপায় স্ত্রী নিহত। কালের খবর কর ন্যয্যতার দাবিতে ঢাকায় বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশনের সমাবেশ ও মানববন্ধন। কালের খবর আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় ১১১ দেশের মধ্যে ৩য় বাংলাদেশের তাকরিম নতুন আইজিপি আব্দুল্লাহ আল-মামুন, র‌্যাব ডিজি খুরশীদ হোসেন। কালের খবর হামলাকারীদের চিহ্নিত করা হচ্ছে, বিচার হবে : খন্দকার মোশাররফ বাংলাদেশে ২০৩০ সালের মধ্যে সব খাতেই হবে অর্ধেক নারী কর্মী’ লাউ চাষে স্বাবলম্বী কেশবপুরে মতিউর। কালের খবর নওয়াপাড়া বন্দর সড়কে ১৮ বছরেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। কালের খবর
নবীনগর উপজেলা প্রকৌশলির বিরুদ্ধে কাজ না করে মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ এর গুঞ্জন

নবীনগর উপজেলা প্রকৌশলির বিরুদ্ধে কাজ না করে মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ এর গুঞ্জন

নবীনগর উপজেলা প্রকৌশলির বিরুদ্ধে কাজ না করে মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ। ২০২১-২২ অর্থ বছরের বাজেটে পন্য ও সেবা বাবদ সহায়তা খাতে ইউনিয়ন পরিষদ ভবন মেরামত ও সংস্কার কাজ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে ৮৯ লাখ ২৬ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়।

তবে গুঞ্জন রয়েছে ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে এ প্রকল্পের সিংহভাগ অর্থ আত্মসাত করা হয়েছে । বেশির ভাগ প্রকল্পের কাজই হয়নি। অনেক প্রকল্পের কাজ হয়েছে তবে সামান্য। আর কয়েকটি খুঁজেই পাওয়া যায়নি। কিন্তু সব কটি প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে ধুম্রজাল।

বরাদ্দকৃত মোটা অংকের একটি অর্থ কাজ না করে উপজেলা প্রকৌশলী ইসতিয়াক হাসান আত্মসাৎ করেছেন বলে এমন গুঞ্জন উঠেছে।

এছাড়াও বিভিন্ন প্রকল্পে তার অনিয়মের কারণে স্থানীয় বেশ কয়েকজন ঠিকাদার তার বিভাগীয় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে মৌখিক অভিযোগ জানিয়েছেন বলে সূত্রে জানা যায়। তাছাড়া এলজিইডির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা তার নিকটতম আত্মীয় হওয়ায় সে এ ধরনের অনিয়ম করতে সাহস পাচ্ছে বলে স্থানীয় ঠিকাদাররা জানান।

মেসার্স আলী ট্রেডার্স এর সত্তাধিকারী মোঃ হযরত আলী জানান, শিবপুরে মুক্তিযোদ্ধা জাদুঘর নির্মাণ কাজ শেষে, কাজের বিল পরিষদের আবেদন করি। তারই প্রেক্ষিতে উপজেলা প্রকৌশলী ইসতিয়াক হাসান আমার কাছে মোটা অংকের ঘুষ দাবি করে। ফলে তার চাহিদা মত ঘুষ না দেওয়াই ৫০ লক্ষ টাকার মধ্যে মোট ২০ লক্ষ টাকা আমাকে প্রদান করেন। এবং বাদবাকি টাকা প্রদান করতে বিভিন্ন অজুহাতে টালবাহানা করছেন।

এদিকে সরজমিনে না পেয়ে একাধিকবার মোবাইলে উপজেলা প্রকৌশলী ইশতিয়াক হাসানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।

এব্যাপারে নবীনগর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা একরামুল সিদ্দিক জানান, এ ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়নের বিষয়টি এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী কার্যালয়ের দায়িত্ব। প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়ম সম্পর্কে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com