বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০১:৩২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নড়বড়ে সাঁকোতে হাজারও মানুষের পারাপার তাড়াশ উপজেলার গ্রামগুলোতে বিদ্যুতের লোডশেডিং ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। বাংলাদেশী তৈরি টুটু পিস্তল, চাইনিজ কুড়াল ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ কিশোর গ্যাং এর ৪ সদস্য গ্রেফতার। কালের খবর যুবদলের দোষ আওয়ামী লীগের উপর চাপিয়ে বিবৃতির প্রতিবাদ। কালেন খবর সালিশে চুলের মুঠি ধরে মহিলাকে প্রকাশ্যে মারধর ভিডিও ভাইরাল ডিইউজে(একাংশ) সভায় নারী সাংবাদিককে মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ। কালের খবর নবীনগরের সলিমগঞ্জে অবৈধ স্বর্ণ বেচাকেনার বৈধ হাট । কালের খবর প্রায় ৩ বছর পর মোরেলগঞ্জে উপজেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন। কালের খবর আখাউড়ায় আইনমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে ঝাড়ু মিছিল। কালের খবর বোয়ালমারীতে যুগ্মসচিব পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত আনিসুজ্জামানের মতবিনিময়। কালের খবর
তাড়াশ উপজেলায় হলুদ আর সবুজে ছেয়ে গেছে আম গাছ। কালের খবর

তাড়াশ উপজেলায় হলুদ আর সবুজে ছেয়ে গেছে আম গাছ। কালের খবর

মোঃ মুন্না হুসাইন তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি, কালের খবর : কবির ভাষায় বলতে হয়, ফাগুনে বিকাশিত কাঞ্চন ফুল ডালে ডালে পুঞ্জিত আম্রমুকুল। সিরাজগঞ্জে তাড়াশ উপজেলার সারিসারি আম গাছের বাগানগুলো হলুদ আর সবুজের মহামিলনে ভোরে উঠেছে। মুকুলে ছেয়ে গেছে প্রতিটি ডালপালা। চারদিকে ছড়াচ্ছে সেই মুকুলের সুবাসিত পাগল করা সু-ঘ্রাণ। ভরা ফাল্গুনে এখন আমের মুকুলে ছেয়ে গেছে সব আম গাছ। আমের বনের ঘ্রাণে মাতাল সবাই। বাতাসে মিশে সৃষ্টি করেছে মৌ মৌ গন্ধ। যে গন্ধ মানুষের মনকে বিমোহিত করে। পাশা-পাশি মধুমাসের আগমনী বার্তা শোনাচ্ছে আমের মুকুল। তবে আমের ফলন নির্ভর করছে আবহাওয়ার ওপর। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর আমের বাম্পার ফলনের আশা করছেন তাড়াশ উপজেলার বাগান মালিকরা।
মৌসুমের শুরুতে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় মুকুলে ভরে গেছে বাগানসহ ব্যক্তি উদ্যোগে লাগানো আম গাছগুলোতে। এর মধ্যে আম রুপালি, গোপালভোগ, ফজলি, অন্যতম। গাছের পুরো মুকুল ফুটতে আরও কয়েকদিন লাগবে বলে জানান বাগান মালিক রাব্বানী। তাড়াশ উপজেলার একজন বাগান মালিক বলেন, বড় আকারের চেয়ে ছোট ও মাঝারি আকারের গাছে বেশি মুকুল ফুটেছে। আমি প্রতিদিন বিভিন্ন আম বাগানগুলো পরিদর্শন করছি। এখনও কোনো বাগানে সমস্যা দেখা যায়নি। তারপরেও চাষিদের হপার বা ফুদকী পোকা যারা মুকুলের ক্ষতি করে। এ পোকা দমনে বালাইনাশক ¯েপ্র করছে। সেই সাথে সালফার জাতীয় ছত্রাক নাশক স্প্রে করছে।
কারন শুরু থেকে মুকুলের পরিচর্চা করতে পারলে এবার আমের ফলন বাম্পার হবে। হপার পোকা মুকুলের রস চুষে এ জন্য মুকুল সবুজ থাকা অবস্থায় সাইপার মেথ্রিন গ্র“পের কীটনাশক রিপকর্ড/ফাইটার স্প্রে করে থাকে তারা।এবং পচনের মেনকোজেবও মেটালক্সিল গ্র“পের ছত্রাক নাশক রিডোমিল গোল্ড ও ইন্ড্রফিল স্প্রে করে তারা। আমের বাম্পার বাম্পার ফলনের আশায় পরিচর্ষায় প্রায় ব্যস্ত তাড়াশের আম চাষিরা ।
এ বিষয়ে তাড়াশ উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা জানান, আমের বাম্পার ফলনের জন্য সব রকম তথ্য দিয়ে কৃষকদের সহযোগিতা করছেন তাড়াশ উপজেলার কৃষি অফিস।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com