শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১২:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুর বন্যার প্রভাবে হাটভর্তি গরু, ক্রেতা কম !! কালের খবর রূপগঞ্জে কারখানার বিষাক্ত পানিতে মরে গেলো ৩ লাখ টাকার মাছ : অসুস্থ অর্ধশতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা। কালের খবর মুরাদনগরে  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক  বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অর্থায়নে এক,শত শিক্ষার্থী কে বাইসাইকেল প্রদান। কালের খবর পৈত্রিক সম্পত্তি ভূমিদস্যু হাতে থেকে রক্ষার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন জগন্নাথপুরে রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু এলাকায় শোকের ছায়া, জানাযা সম্পন্ন। কালের খবর সাইবার অপরাধ দমন ও অপপ্রচার ঠেকাতে একটি আলাদা ‘সাইবার পুলিশ ইউনিট’ হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন। কালের খবর ইউপি চেয়ারম্যান পিতার এক ছেলে এমপি আরেক ছেলে উপজেলা চেয়ারম্যান। কালের খবর ঢাকা প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য এম নজরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক। কালের খবর
ছাতা মাথায় লকডাউন মানাতে সড়কে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। কালের খবর

ছাতা মাথায় লকডাউন মানাতে সড়কে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। কালের খবর

কালের খবর প্রতিবেদন :
করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউন দ্বিতীয় দিন আজ। সকাল থেকেই রিমঝিম বৃষ্টি। বৃষ্টি ও ছুটির দিন হওয়ায় লোকজনকে খুব একটা বাইরে বের হতে দেখা যায়নি। ফাঁকা রাস্তায় চেকপোস্ট বসিয়ে দায়িত্ব পালন করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

রাজধানীর বেশ কয়েকটি এলাকায় দেখা গেছে বৃষ্টিতে ছাতা মাথায় লকডাউন মানাতে কাজ করছেন পুলিশ-র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরা। কাউকে পেলেই দাঁড় করিয়ে বাইরে বের হওয়ার কারণ জানতে চাইছেন।

যানবাহন বন্ধ থাকায় গতকয়েকদিন ধরে মোটরসাইকেল এবং প্রাইভেট গাড়ির দৌরাত্ম থাকলেও আজকে তেমনটি দেখা যায় নি। তবে রিকশা কিছু দেখা গেলেও ছিল না চোখে পড়ার মত। কিছু কিছু চেকপোস্টে বৃষ্টির কারণে পুলিশ সদস্যদের দূর থেকে দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে।

রাজধানীর ফার্মগেট ও মহাখালী চেকপোস্টে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বৃষ্টির মধ্যে রাস্তার মাঝখানে পুলিশ ব্যারিকেড বসিয়ে একটার পর একটা গাড়ি থামিয়ে বাইরে বের হওয়ার কারণ জিজ্ঞেস করছে। বাইরে বের হওয়ার সঠিক কারণ যারা জানাতে পারছে তাদের গাড়ি ব্যারিকেড পার হয়ে গন্তব্যের দিকে যাচ্ছে। অপরদিকে যারা জরুরি কোন কারণ দেখাতে পারছে না তাদের গাড়ি ফেরত যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চালানো এসব অভিযানে ৫৫০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের আটটি বিভাগের ৫১টি থানা এলাকায় বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ২১২ জনকে জরিমানা করা হয়েছে। মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৩৯১ জনকে।

লকডাউনে বিনা প্রয়োজনে বাসা থেকে বের ও দোকানপাট খোলা রাখায় ৫১টি মামলায় ৫১ হাজার ২০০ টাকা টাকা জরিমানা আদায় করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) ডিএনসিসি থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আজ শুক্রবারও এ অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ঘোষণা অনুযায়ী অকারণে ঘর থেকে বের হওয়ায় সাড়ে পাঁচশ’ মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ২৭৪টি গাড়ির বিরুদ্ধে মামলাও করা হয়েছে বলে ডিএমপি জানায়।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com