সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০১:১৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুরে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী’র ফুডপ্যাক বিতরণ। কালের খবর বন্যা দুর্গত মানুষের পাশে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ। কালের খবর খ্যাতিমান সাংবাদিক সানাউল্লাহ নূরীর মৃত্যুবার্ষিকী। কালের খবর কুষ্টিয়ায় এশিয়ান টিভির প্রতিনিধির ওপর সন্ত্রাসী হামলা। কালের খবর জগন্নাথপুরে অব্যাহত ভারী বর্ষণ ও ঢলের পানিতে বড় বন্যার শঙ্কা। কালের খবর সম্পত্তি ও জানমালের নিরাপত্তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা। কালের খবর জগন্নাথপুর বন্যার প্রভাবে হাটভর্তি গরু, ক্রেতা কম !! কালের খবর রূপগঞ্জে কারখানার বিষাক্ত পানিতে মরে গেলো ৩ লাখ টাকার মাছ : অসুস্থ অর্ধশতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা। কালের খবর মুরাদনগরে  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক  বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অর্থায়নে এক,শত শিক্ষার্থী কে বাইসাইকেল প্রদান। কালের খবর
দৈনিক কালের খবরে সংবাদ প্রকাশের পর শিকলবন্দি বন্দি জীবন থেকে মুক্ত হলেন বৃদ্ধ ফুল মিয়া। কালের খবর

দৈনিক কালের খবরে সংবাদ প্রকাশের পর শিকলবন্দি বন্দি জীবন থেকে মুক্ত হলেন বৃদ্ধ ফুল মিয়া। কালের খবর

 দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি, কালের খবর : 
 নেত্রকোনার দুর্গাপুরে ৩ বছরের শিকলবন্দি জীবন থেকে মুক্ত হলেন বৃদ্ধ ফুল মিয়া।

শনিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারজানা খানম স্থানীয়দের সহায়তায় শিকলবন্দি অবস্থা থেকে উদ্ধার করে বৃদ্ধকে মুক্ত করেন।

শুক্রবার দৈনিক কালের খবরে ‘দুর্গাপুরের ফুল মিয়া ৩ বছর ধরে নিজ গৃহে শিকলবন্দি’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের বিষয়টিতে উপজেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টদের নজরে পড়ে।

এ নিয়ে সরেজমিনে গিয়ে বিষয়টির সত্যতা পান তারা। এরপরই বৃদ্ধকে অবমুক্ত করেন ইউএনও ফারজানা খান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফারজানা খানম  বলেন, ওই বৃদ্ধকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখার বিষয়টি সংবাদমাধ্যমে জেনে আমি নিজে ওই বৃদ্ধের বাড়িতে যাই। তাকে শিকলমুক্ত করে আসছি। যারা এটি ঘটিয়েছে নিঃসন্দেহে অমানবিক কাজ করেছে। আমি দৈনিক কালের খবকে  ধন্যবাদ জানাই এরকম একটি অনুসন্ধানমূলক সংবাদ প্রকাশ করার জন্য।

জানা গেছে, ২০০৩ সালে মাটির নিচ থেকে (ধাতব জাতীয়) মূল্যবান একটি পাথর খুঁজে পান। পাথরটি তাঁর স্ত্রীর কাছে লুকিয়ে রাখতে দেন। পরে স্ত্রীর কাছে চাইলে তিনি বলেন, পাথরটি সুরুজ মিয়া ও মাওলানা রফিকুল ভাইয়ের কাছে ৮০হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। এ কথা শুনে উত্তেজিত হয়ে ঘরে থাকা বটি দা দিয়ে স্ত্রী ফাতেমা খাতুনের গলায় কোপ দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

২০০৩ সালের বৈশাখ মাসের ৬ তারিখ এ হত্যার ঘটনা ঘটে বলে জানান বৃদ্ধের ছেলে আবু হানিফা। এ হত্যার ঘটনায় ১২ বছর ৫ মাস ১৭ দিন জেল খাটে ফুল মিয়া।

 পরে পাথর বিক্রির বিষয়টি নিয়ে অনেকের সঙ্গে বলাবলি করলে ক্ষেপে যান সুরুজ মিয়া ও রফিকুল ইসলাম। এরই জেরে ফুল মিয়ার ছেলেদের অসহায়ত্বের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ফুল মিয়াকে শিকলবন্দি করে রাখার নির্দেশ দেন সুরুজ আলী ও রফিকুল ইসলাম।

এভাবেই ঘরে বন্দি অবস্থায় ৩ বছরেও আলোর মুখ দেখেননি এই বৃদ্ধ। অবশেষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে শিকল মুক্ত হলো ফুল মিয়া।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com