শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০২:৩৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুর বন্যার প্রভাবে হাটভর্তি গরু, ক্রেতা কম !! কালের খবর রূপগঞ্জে কারখানার বিষাক্ত পানিতে মরে গেলো ৩ লাখ টাকার মাছ : অসুস্থ অর্ধশতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা। কালের খবর মুরাদনগরে  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক  বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অর্থায়নে এক,শত শিক্ষার্থী কে বাইসাইকেল প্রদান। কালের খবর পৈত্রিক সম্পত্তি ভূমিদস্যু হাতে থেকে রক্ষার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন জগন্নাথপুরে রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু এলাকায় শোকের ছায়া, জানাযা সম্পন্ন। কালের খবর সাইবার অপরাধ দমন ও অপপ্রচার ঠেকাতে একটি আলাদা ‘সাইবার পুলিশ ইউনিট’ হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন। কালের খবর ইউপি চেয়ারম্যান পিতার এক ছেলে এমপি আরেক ছেলে উপজেলা চেয়ারম্যান। কালের খবর ঢাকা প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য এম নজরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক। কালের খবর
নারায়নগঞ্জের রাজনৈতিক অঙ্গনে এক নিবেদিত প্রান শাহ নেওয়াজ রাহাত। কালের খবর

নারায়নগঞ্জের রাজনৈতিক অঙ্গনে এক নিবেদিত প্রান শাহ নেওয়াজ রাহাত। কালের খবর

নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি) -কালের খবর

নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর পৌর যুবলীগের সমাজ কল্যান সম্পাদক মোঃ শাহ নেওয়াজ রাহাত । ১৯৯০ সালে সৈরাচার আন্দোলনের মধ্য দিয়ে যার রাজনীতি অঙ্গনে পথ চলা শুরু হয়।

যুবলীগ নেতা বলতেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে টেন্ডারবাজি, আংগুল ফুলে কলা গাছ হয়ে যাওয়ার মত অল্প সময়ে কোটি-পতি হওয়া নামধারী মানুষের।

নারায়নগঞ্জ বন্দর থানা পৌর আওয়ামী যুবলীগের সমাজ কল্যাণ সম্পাদক শাহ্ নেওয়াজ রাহাত নির্মোহের কারনে রাজনৈতিক জীবন এক দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। অনেক সুযোগ ছিলো তার সামনে। হতে পারতেন প্রতিষ্ঠিত কোনো ব্যবসায়ী কিংবা থাকতে পারতেন আরো বড় কোনো কিছুর নেতৃত্বে।

এই সেই শাহ্ নেওয়াজ রাহাত যাকে বন্দরে নেতা কর্মীরা অনেকেই রাহাত বলেই চিনেন। সম্পদশালী পরিবার পাট ব্যাবসাই হাজী ইমান আলীর নাতি শাহ্ নেওয়াজ রাহাত রাজনীতি করতে গিয়ে উত্তারাধীকার সুত্রে পাওয়া সমস্ত সহায় সম্পদ ত্যাগ করে নিঃস্ব হলেও সততা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে এক মূহুর্তের জন্যও ত্যাগ করেননি।

বিজ্ঞাপণ
শাহ্ নেওয়াজ রাহাত ছাত্র রাজনীতিতেই সকলের নজর কারেন। অসহায়, নিপিড়িত, নির্যাতিত ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে থেকে নিঃস্বার্থ রাজনীতিবিদ হিসেবে পৌরসভা তথা বন্দর যুবলীগের প্রাণ ভোমরায় পরিনত হন।
শাহ্ নেওয়াজ রাহাত ১৪ বছর বন্দর থানা পৌর যুবলীগের সমাজ কল্যান সম্পাদক থাকাকালীন কোন রকম অন্যায় ও অপকর্মের সাথে আপোষ করেননি। চারদলীয় সরকারের আমলে মামলাসহ বিভিন্ন সময়ে র‍্যাব-পুলিশের দ্বারা নির্যাতনের স্বীকার হয়েও কোনো রকম আপোষ করেননি ।

নারায়ণগঞ্জ বন্দরের ইতিহাসে শাহ্ নেওয়াজ রাহাত যুবলীগের একমাত্র তৃণমূল নেতা যিনি পদ-পদবী ও ক্ষমতার অপব্যবহার না করে অতি সাধারন জীবন যাপন করেছেন । এবং যায়াতের জন্য এখন ও তিনি রিক্সার উপর নির্ভরশীল।
২০১১ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়ন ও জনগনের অফুরন্ত ভালবাসা পেলেও দলীয় স্বার্থপর নেতাদের কুট-কৌশলের কারনে পরাজিত হয় । ২০১৬ সালে পরে অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে সফল হলেও অদৃশ্য কারনে তিনি আবারো পরাজিত হয় মনোণয়ন বঞ্চিত হন।

তৃণমূল কর্মীদের নির্ভরশীল নেতা এ কে এম শামীম ওসমানের স্নেহের কর্মী শাহ্ নেওয়াজ রাহাতের মতো ত্যাগী নেতারা থাকলে দলে কখনো কোন ধরনের অপকর্মের তকমা লাগবে না।কিন্তু সৎ ও ত্যাগী নেতারা আজ রাজনৈতিক দূবৃত্তদের অর্থ ও কুটকৌশলের কাছে বার বার অসহায়ের মতো পরাজিত হয়েও মানুষের মনে ঠিকই শাহ্ নেওয়াজ রাহাতের মতো স্থান করতে পারেনি ।

বন্দর থানা পৌর যুবলীগের সমাজ কল্যাণ সম্পাদক শাহ্ নেওয়াজ রাহাত বলেন, ‘আমি মহান নেতা,স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির জনকের আর্দশে বিশ্বাস করি। দলের স্বার্থে যে কোনো ত্যাগ স্বীকার করে দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিতে প্রস্তুত। আমি কোন পদ-পদবীর আশায় রাজনীতি করি না। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ও বিশ্বরত মাদার অব হিউম্যানিটি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বপ্নের সোনার বাংলার রাজনীতি করি।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com