শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০২:০৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আগুন নেভানোর পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেই যশোরের অধিকাংশ হাসপাতাল ও ক্লিনিকে। কালের খবর তাড়াশ উপজেলায় আবারও ধুম পরেছে পাট ধোয়ার। কালের খবর তাড়াশ উপজেলায় মহেশরৌহালী সরকারী প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে দূরর্নীতির আভিযোগ উঠেছে। কালের খবর গ্রামবাসীর ধাওয়া খেয়ে পালালেন যৌণ হয়রানির অভিযোগে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক সবুর মাষ্টার। কালের খবর পদ্মা সেতুর প্রভাবে যশোরে বিমান যাত্রী কমেছে ৫০ শতাংশ। কালেন খবর জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকিপূর্ণ পাঠদান, আট শত শিক্ষার্থীর জন্য ৫ শিক্ষক। কালের খবর বাঙালির হৃদয় থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম কোন অপশক্তি মুছে ফেলতে পারবেনা : এম এ সালাম। কালের খবর সাভারে সাংবাদিককে হত্যা চেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন সাংবাদিকরা। কালের খবর নেপালের কাঠমান্ডুতে আন্তর্জাতিক জলবায়ু সম্মেলনে যোগ দিলেন সাংবাদিক এম আই ফারুক আহমেদ। কালের খবর দিঘলিয়ার সেনহাটী মহা শ্মশান ঘাট রক্ষায় স্থানীয় এমপি’র পদক্ষেপ। কালের খবর
যশোরের বসুন্দিয়ায় (বরফ) কারখানার বিষাক্ত ধোয়ায় নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ, কষ্টে ভোগছে জনগণ। কালের খবর

যশোরের বসুন্দিয়ায় (বরফ) কারখানার বিষাক্ত ধোয়ায় নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ, কষ্টে ভোগছে জনগণ। কালের খবর

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ যশোরের বসুন্দিয়ায় একটি বরফ কারখানার বিষাক্ত ধোয়ায় এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। বসবাসের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে ওই কারখানার আশপাশ এলাকাও।রোববার রাতে ওই কারখানার বিষাক্ত ধোয়ায় এলাকার মানুষের শ্বাসপ্রশ্বাস নেওয়া বন্ধ হবার উপক্রম হয়। পরে তারা থানা পুলিশের অভিযোগ দেওয়ার পর প্রশাসনের লোকজন ওই ধোয়া বন্ধ করে। সোমবার প্রতিকার চেয়ে এলাকাবাসী এ ব্যাপারে পরিবেশ অধিদপ্তরসহ সংশ্লিষ্ট দফতরে অভিযোগ দায়ের করেছেন।এলাকাবাসীর অভিযোগ, সদর উপজেলার বসুন্দিয়া মোড় বাজারস্থ কওসার আলী প্রায় দুই বছর আগে একটি বরফ কল নির্মাণ করেন। ওই সময় এলাকার মানুষ এতে বাধা প্রদান করে। কিন্তু কওসার আলী বাঁধা উপেক্ষা করে প্রভাব খাটিয়ে বরফকলটি স্থাপন করেন। এতে করে বরফ কলের বিষাক্ত গ্যাসে এলাকার পরিবেশ নষ্টসহ নানা সমস্যা দেখা দেয়। পরে স্থানীয় বাসিন্দা রফিকুল ইসলাম নামে পরিবেশ অধিদপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু তাতে সমস্যার কোন সমধান হয়নি।বোরবার রাতে ওই বরফকালের বিষাক্ত গ্যাসে এলাকায় ধোয়া ধোয়া অবস্থা সৃষ্টিসহ পরিবেশ নষ্ট হয়ে যায়। এলাকায় মানুষ রাতেই বাধ্য হয়ে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়। পরে কোতয়ালি থানা থেকে বসুন্দিয়া পুলিশ ফাঁড়িতে ফোন করে বিষয়টি জানায়। পরে ফাঁড়ির টু-আইসি সাইফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজখবর নেন।এ বিষয়ে জানাতে চাইলে বসুন্দিয়া পুলিশ ফাঁড়ির টু-আইসি সাইফুল ইসলাম বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কারখানা দুইজন শ্রমিককে ডেকে বিষয়টি জানতে পারি, ‘বরফকলের গ্যাস লাইনে সমস্যা হয়েছিল। মিস্ত্রি নিয়ে এসে তারা ঠিক করেছে।’এদিকে, সোমবার বরফকলটি অপসারণের দাবিতে যশোর পরিবেশ অধিদপ্তরে আবেদন করেছে এলাকাবাসী। যার অনুলিপি জেলা প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে জমা দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com