রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১১:১২ অপরাহ্ন

নারায়ণগঞ্জের শিমরাইল মোড় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ময়লার ভাগাড়ের ফলে যাত্রীদের দুর্ভোগ চরমে। কালের খবর

নারায়ণগঞ্জের শিমরাইল মোড় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ময়লার ভাগাড়ের ফলে যাত্রীদের দুর্ভোগ চরমে। কালের খবর

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, ইমরান ভূইয়া শুভ, কালের খবর  : নারায়ণগঞ্জের শিমরাইল মোড়ে ঢাকা চট্টগ্রাম চার লেন মহাসড়কে সৃষ্টি হয়েছে ময়লার ভাগাড়। সড়কে ময়লা ফেলার ফলে সৃষ্টি হচ্ছে লম্বা যানজট। এতে পথচারী থেকে শুরু করে পরিবহনের যাত্রীদের দুর্ভোগের অন্ত নেই।

সরেজমিনে দেখা গেছে, নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথ কার্যালয়ের পাশেই শিমরাইল মোড়ে মার্কেট ও আবাসিক এলাকার বর্জ্য ফেলা হচ্ছে ঢাকা চট্টগ্রাম চার লেন মহাসড়কের উপর। ঈদকে সামনে রেখে জন সাধারনকে ঘরে ফেরা পথে ময়লার দুর্গন্ধ আর যানজটের অসহনীয় দুর্ভোগ পাড়ি দিতে হচ্ছে।

ময়লা, আবর্জনা ও বর্জ্য ফেলার ফলে মহাসড়ক সংকুচিত হয়ে সৃষ্টি হচ্ছে দীর্ঘ যানজট। পাশাপাশি পথচারিদের দুর্ভোগের অন্ত নেই। শিমরাইল মোড়ে হাজী আহসান উল্লাহ শপিং কমপ্লেক্সের সামনে রয়েছে লম্বালম্বি ময়লার ভাগাড়। ওই সড়কের পাশে রয়েছে ৬/৭টি মার্কেট। মার্কেটগুলোর সামনের সড়কে অন্তত ২০ মিটার জায়গায় ময়লা ফেলে রাখা হয়েছে।

পথচারী শামীম বলেন, সড়কের উপর ময়লা ফেলে রাখা হয়েছে। ফলে হাটতে গিয়ে একে তো দুর্গন্ধ অন্যদিকে কাদাপানিতে ময়লা। সড়কে চলা দায় হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে রিক্সার জন্য মানুষের চলাচল বন্ধ হয়ে পড়েছে। আমাদের এসব সমস্যা দেখার মত কেউ কি নেই?

যাত্রী রিতা বলেন, ময়লা থাকার কারনে ঠিকমত গাড়ি চলতে পারছে না। ঘন্টার পর ঘন্টা এক জায়গাতে গাড়ি দাড়িয়ে রয়েছে। তার উপর দুর্গন্ধের ফলে গাড়িতে বসে থাকা দায় হয়ে পড়েছে। আমরা সমস্যার প্রতিকার চাই।

স্থানীয় বাসিন্দা শাওন বলেন, আশপাশের আবাসিক এলাকার মানুষ, মার্কেটের দোকনের লোকজন তাদের ময়লা আবর্জনা বর্জ্য রাস্তায় ফেলছে। সড়ক ও জনপথের চরম অবহেলার কারনে এ জায়গায় ময়লা ফেলা হলেও তাদের কোন ভূমিকা নেই। তারা কোন কাজ করে না।

শিমরাইল মোড়ে কর্মরত ট্রাফিক পরিদর্শক (টিআই) শরীফ বলেন, ময়লা প্রতি ১ দিন পর পর সিটি কর্পোরেশনের গাড়ি এসে নিয়ে যায়। এখন সড়কে কোন ময়লা নেই।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফারুক হোসেন বলেন, মার্কেট, মুরগীপট্টি, কাঁচাবাজারের ময়লা আবর্জনা মহাসড়কে ফেলা হচ্ছে। তাদের নিষেধ করা হলেও তারা শুনছে না। তাদের পেছনে একটি প্রভাবশালী মহল কাজ করছে। আমি মুরগীপট্টির সরকারি জায়গায় ময়লার ডাম্পিং স্টেশন করেছিলাম।

সেই ডাম্পিং স্টেশন হাবিবুল্লাহ হবুল ভাড়া দিয়ে টাকা আদায় করেছে। এখন মহাসড়কে ময়লা ফেলছে। এরা সোজা কথা শুনতে নারাজ। এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলী আলিউলের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

        দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন । 

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com