রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ১২:২০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
শিখরের টানে সীতাকুণ্ড নিজ গ্রামে বৃটেনে নিযুক্ত বাংলাদেশী হাইকমিশনার সাঈদা। কালের খবর সামগ্রিক প্রেক্ষাপটে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে এবারের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে। কালের খবর স্বাস্থ্যবিধি মেনে শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালিত দশমিনায় আর্থিক সহায়তার ও  ঐচ্ছিক তহবিল থেকে প্রাপ্ত চেক বিতরন । কালের খবর এই দিনেই মুক্তি পেয়েছিলেন তিনি। কালের খবর ফুলবাড়ীতে সামাজিক নিরীক্ষা কমিটি গঠন ও সদস্যদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত। কালের খবর অর্থ সংকটে চলমান কার্যক্রম স্থবির জলাবদ্ধতার আতঙ্কে ডিএনডি বাসী। কালের খবর তাড়াশে ছয় বছরের শিশু মাহমুদা দ্বিতীয় বার ধর্ষন। কালের খবর নবীনগরে উপজেলা মডেল মসজিদ উদ্বোধন। কালের খবর মতলবে এএসপি সার্কেল হিসেবে ইয়াসির আরাফাতের যোগদান। কালের খবর
কংগ্রেসের সভাপতি পদে রাহুল গান্ধীর নাম ঘোষণা

কংগ্রেসের সভাপতি পদে রাহুল গান্ধীর নাম ঘোষণা

ফাইল ছবি

শুরুরও একটা সূচনা থাকে। সোমবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির ১০ জনপথে দলীয় কার্যালয়ে সেই সূচনাটাই করতে চেয়েছিলেন কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধী। অনেকটা প্রত্যাশিতভাবেই দলের পরবর্তী সভাপতি হিসাবে রাহুল গান্ধীর নাম প্রস্তাব করেছে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি এবং কোনো ধরনের বিরোধিতা ছাড়াই তা পাস হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে বাংলা দৈনিক আনন্দবাজার বলছে, সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী মাসে কংগ্রেস নতুন সভাপতি হিসাবে রাহুলকে পাবে। দলের সভাপতি পদে রাহুলের অভিষেকের পথ প্রশস্ত করতে সোমবার ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক ডেকেছিলেন সোনিয়া গান্ধী।

গত ১৭ বছর ধরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সোনিয়াই দলের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। কিন্তু, গুজরাটের বিধানসভার ভোটের আগে রাহুলের রাজনৈতিক ওজন আরও বাড়াতে চায় কংগ্রেস। কংগ্রেসের সূত্রগুলো বলছে, সে লক্ষ্যেই তাকে সভাপতির পদে আনা হবে।

সোমবার কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সিংহ সুরজওয়ালা বলেন, ‘দলের পরবর্তী সভাপতি নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। রাহুল গান্ধীর নাম প্রস্তাব করেছে ওয়ার্কিং কমিটি। তা পাসও হয়েছে। যদি আর কেউ প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন দাখিল না করেন, তবে তিনিই দলের পরবর্তী সভাপতি হচ্ছেন।’

কংগ্রেস বলছে, সভাপতি পদে নির্বাচনের জন্য আগামী ১ ডিসেম্বর বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে। মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ তারিখ ৪ ডিসেম্বর। ওই দিন বিকাল ৩টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা দেয়া যাবে। পরের দিন অর্থাৎ ৫ ডিসেম্বর সেই মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই চলবে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ১১ ডিসেম্বর।

প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হবে ওই দিন বিকাল ৪টায়। আগামী ১৬ ডিসেম্বর নির্বাচন। গণনা এবং ফলপ্রকাশ ১৯ ডিসেম্বর। যদিও কংগ্রেস সূত্র বলছে, রাহুল ছাড়া এখন পর্যন্ত অন্য কোনো প্রার্থীর কথা তাদের জানা নেই। সম্ভাবনাও নেই বলে তাদের আশা। সে ক্ষেত্রে ৪ ডিসেম্বরই কংগ্রেস সভাপতি হিসাবে রাহুলের নাম ঘোষণা করা হতে পারে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com