শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
দুই শতাধিক বিদ্যুতের খুঁটিতে ব্যাহত হচ্ছে ডেমরা-যাত্রাবাড়ী সড়ক উন্নয়ন কাজ পূর্বাচলে আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী কেন্দ্রের উদ্বোধন। কালের খবর কোটালীপাড়ায় শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালিত। কালের খবর বেলকুচিতে বাল্যবিয়ে দেয়ার অপরাধে কনের পিতার কারাদন্ড। কালের খবর নবীনগরে মহেশ রোডের উন্নয়ন কাজে ধীরগতি চলাচলে চরম দুর্ভোগ মেহেরপুর মানুষের সব স্বপ্ন পুরণ হচ্ছে ব্যাপক ভাবে : প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি। কালের খবর নবীনগরে বিটঘর মহেশ রোডের উন্নয়ন কাজে ধীরগতি চলাচলে চরম দুর্ভোগ ডেমরা-যাত্রাবাড়ী সড়কে গ্যাস লাইনে ফাটল, দুর্ঘটনার আতংকে রাস্তায় দীর্ঘ যানজট। নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের উচ্চ মূল্য, সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন তাড়াশ উপজেলার নিম্ন ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষ চাকরৌহালী ও কোনাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে ম‍্যানিজিং কমিটি গঠনে ব‍্যাপক অনিয়ম। কালের খবর
মৌসুমী জানালেন সানির গোপন কথা

মৌসুমী জানালেন সানির গোপন কথা

বিনোদন রির্পোট, কালের খবর :

বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের প্রিয় জুটি ও সফল তারকা দম্পতি ওমর সানি ও মৌসুমী। তাঁদের নিয়ে দর্শক আগ্রহের শেষ নেই। যদিও একে অপরের বিষয়ে শুধু প্রশংসাই করেছেন, কিন্তু সম্প্রতি সানির কিছু গোপন খবর জানালেন মৌসুমী। ‘রানী গুঁড়া মসলা’র শুভেচ্ছাদূত হিসেবে যুক্ত হয়েছেন তাঁরা। সম্প্রতি শুভেচ্ছাদূত হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সময় সানিকে নিয়ে কথা বলেন মৌসুমী।
মৌসুমী বলেন, ‘মসলার বিষয়ে সানি সাহেব একটু বেশি চুজি। এ নিয়ে সানীর কিছু গোপন কথা আছে, যা অনেকেই জানে না। সে কিন্তু সব সময় গ্রাম থেকে মসলা নিয়ে আসে, নিজে পছন্দ করে কাঁচা মসলা নিয়ে আসে, তারপর এগুলো শুকিয়ে নিজে দোকানে নিয়ে যায় ভাঙানোর জন্য, এমনকি মাঝেমধ্যে মেশিন বাসায় নিয়ে আসে, নিজে দাঁড়িয়ে থেকে ভাঙায়। শুধু মসলা নয়, সরিষার তেলটাও নিজে ভাঙিয়ে ব্যবহার করে।’
মৌসুমী আরো বলেন, ‘আমরা বাসায় কোনো কোম্পানির প্যাকেটজাত মসলা ব্যবহার করি না। গন্ধটা পছন্দ হয় না, কারণ এসব মসলায় বাড়তি গন্ধ যুক্ত করা হয়, তবে এ কোম্পানির মালিক মোহাম্মদ বশির সাহেবের সঙ্গে যেদিন মিটিং হলো, সেদিন আমার কাছে মনে হয়েছে ভালো একটি পণ্য তারা বাজারে এনেছেন এবং আমি চুক্তিবদ্ধ হওয়ার আগে এই পণ্যের গুণগত মান নিয়েও আমি জেনেছি। আশা করি, এই পণ্য দিয়ে আমরাও বাসায় রান্না করতে পারব।’

ওমর সানি বলেন, ‘খাবার বিষয়টি একটু সেনসিটিভ, যে কারণে আমাদের হাত ধরে যে পণ্যটি মানুষের কাছে পৌঁছাবে, সেটি অবশ্যই ভালো মানের হতে হবে। আমি এই কোম্পানির মালিকের সঙ্গে কথা বলেছি, তিনিও এই বিষয়টিতে সিরিয়াস। আর মৌসুমীর বিষয়ে বলতে চাই, সে এর আগে যে কোম্পানির শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করেছে, সেটাতেই সোনা ফলেছে। আশা করি এই মসলাও অনেক দূর এগিয়ে যাবে।’

কালের খবর/১৯/২/১৮

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com