রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১১:৩৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আখাউড়ায় আইনমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে ঝাড়ু মিছিল। কালের খবর বোয়ালমারীতে যুগ্মসচিব পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত আনিসুজ্জামানের মতবিনিময়। কালের খবর বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ আ.লীগের বিরুদ্ধে। কালের খবর নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে সবুজকে অপসারণ : ভারপ্রাপ্ত শাওন স্বপন কুমার সাহা সভাপতি ও স্বপন সূত্রধর সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত। কালের খবর ইসরায়েলের পার্লামেন্ট ভেঙে গেল, তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী লাপিদ। কালের খবর দৈনিক কালবেলার সম্পাদক হলেন আবেদ খান তাড়াশ উপজেলায় ঐতিহ্যবাহি প্রাচীনতম নওগাঁর পশুর হাট জম জমাট ভাবে জমে উঠেছে। কালের খবর খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতির মৃত্যুতে বিএমএসএফ’র শোক। কালের খবর কদমতলীতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে স্থাপনা নির্মাণ ও হামলা পুলিশ নীরব
সিরাজগঞ্জের শাহাজদপুরে স্বামী হত্যায় স্ত্রী ও পরকিয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

সিরাজগঞ্জের শাহাজদপুরে স্বামী হত্যায় স্ত্রী ও পরকিয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

নয়ন আলী, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রী ও পরকিয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ মে) দুপুর ১২ টার দিকে সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফজলে খোদা মো. নাজির এ দন্ডাদেশ দেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, শাহজাদপুর উপজেলার শক্তিপুর গ্রামের মৃত মুক্তা শেখের মেয়ে মুক্তি খাতুন (২২) ও তার পরকিয়া প্রেমিক সাইদুল ইসলাম তুষার ওরফে তুহিন।

ওই আদালতের স্টেনোগ্রাফার মো. রাশেদুল ইসলাম এতথ্য নিশ্চিত করেন।
মামলা সূত্রে জানা যায়, মুক্তি খাতুনের সাথে একই উপজেলার বাড়াবিল গ্রামের জেলহক প্রামাণিকের ছেলে মনিরুল হকের বিয়ে হয়। বিয়ের পূর্ব থেকেই সাইদুল ইসলাম তুষার ওরফে তুহিনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিয়ের পরও তা অব্যাহত ছিল এবং দুজনের মধ্যে অবৈধ সম্পর্ক চলে আসছিল। এ অবস্থায় মুক্তি খাতুনের স্বামী মনিরুল হককে তাদের প্রেমের পথে বাধা মনে করে পরকিয়া প্রেমিক সাইদুল ইসলাম তুষার ওরফে তুহিনকে সাথে নিয়ে হত্যার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা মোতাবেক ২০১৯ সালের ৩ জুন রাতে মুক্তি খাতুন তার স্বামী মনিরুল হককে নিয়ে দাদার বাড়ী শক্তিপুরে যান। সেখানে গিয়ে রাতে মনিরুল হককে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ঘুম পারিয়ে রাখেন। রাত ১২টার দিকে তার পরকিয়া প্রেমিক সাইদুল ইসলাম তুষার ওরফে তুহিন এলে দুজনে মিলে মনিরুলকে গলাটিপে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে জেলহক প্রামাণিক বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা ১১ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ উপস্থাপন শেষে আসামিদের উপস্থিতিতে বিচারক আজ এই রায় প্রদান করেন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com