বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে অফিস দখল ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির সদস্যের ক্ষোভ। কালের খবর

এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে অফিস দখল ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির সদস্যের ক্ষোভ। কালের খবর

স্টাফ রিপোর্টার, কালের খবর :

১৫মার্চ ঢাকা-৫ আসনের এমপি কাজী মনিরুল ইসলাম মনু’র নাম ভাঙ্গিয়ে ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির অফিস দখল করে হাজী সাইফুল ইসলাম লিটন এবং বোরহান উদ্দীন আহমেদ। একইসাথে তারা নিজেদের এমপির মনোনীত কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দাবি করেন। যা সম্পন্নভাবে অবৈধ বলে দাবি করেছেন গত ১৬ আগস্ট ২০২০ সালে সকল সদস্যদের ধারা নির্বাচিত কমিটির সভাপতি ফায়জুল হক খান এবং সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খানসহ সমিতি সদস্যরা। এ ঘটনায় ইতোমধ্যে ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির সদস্যের মধ্যে ক্ষোভ-উত্তেজনা বিরাজ করছে।
খোজঁনিয়ে জানা গেছে, গত বছরের ১৬ আগস্ট ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির কার্যালয়ে গঠনতন্ত্র অনযায়ী সকল সদস্যদের উপস্থিতিতে একটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন বর্তমান সভাপতি ফায়জুল হক খান এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন আনোয়ার হোসেন খান। গঠনতন্ত্রের নিয়ম অনুয়ায়ী এই কমিটি ২০২০ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত তাদের কর্মকান্ড পরিচালনা করবেন। কিন্তু বর্তমান কমিটির ৭ মাসের মাথায় হঠাৎ একদল সন্ত্রাসী নিয়ে ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির কার্যালয় দখল করেন হাজী সাইফুল ইসলাম লিটন এবং আলহাজ্ব বোরহান উদ্দীন আহমেদ নামে দুই ব্যাক্তি। তারা কোনো ধরনের নিয়মের তোয়াক্কা না করে নিজেদের সমিতির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক দাবি করেন এবং বলেন ঢাকা-৫ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী মনিরুল ইসলাম মনু তাদের কমিটি দিয়েছেন। একইসাথে ২০২১-২০২৩ পর্যন্ত এই কমিটি দায়িত্ব পালন করবেন বলে একটি প্যাডে এমপি উল্লেখ করেছেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এমপির পিএস জিয়াউদ্দিন জিয়া। তবে এ বিষয়ে কাজী মনিরুল ইসলাম মনুর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে এ ঘটনার পরেরদিন ১৬ মার্চ ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির নির্বাচিত সভাপতি ফায়জুল হক খান এবং সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খানসহ প্রায় ৬০-৭০জন সদস্য কাজী মনিরুল ইসলাম মনু এমপির (কাজী টাওয়ারে) বাসায় দেখা করেন এবং এ বিষয়ে কথা বলেন। সকল সদস্যদের কথা শোনে তিনি আগামী এক মাসের মধ্যে আবারো নির্বাচন করার কথা বলেন। এতে অনেক সদস্য হতাশা ব্যাক্ত করেন।
এদিকে গত ১৫ মার্চ থেকে ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির সদস্যের মধ্যে একধরনের আতঙ্ক-উত্তেজনা বিরাজ করছে। নাম গোপন রাখারশর্তে সমিতির একাধিক সদস্য বলেছেন, প্রয়াত ৪বারের সংসদ আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুর পর ঢাকা-৫ আসনে নৌকার মনোনয়ন পান কাজী মনিরুল ইসলাম মনু। নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে ব্যাপকভাবে গনসংযোগ-পথসভাসহ ভোটারদের বাড়ি বাড়ি যায় গত ১৬ আগস্ট ২০২০ সালে সকল সদস্যদের ধারানির্বাচিত কমিটির সভাপতি ফায়জুল হক খান এবং সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খান এর নেতৃত্বে সদস্যরা। কিন্তু অত্যান্ত দু:খের বিষয় বর্তমান এমপি কাজী মনিরুল ইসলাম মনুর নাম ভাঙ্গিয়ে তার পিএস (যাত্রাবাড়ি থানা বিএনপি নেতা) জিয়াউদ্দিন জিয়া উপস্থিত থেকে একটি অবৈধ কমিটি দিয়েছেন এবং নির্বাচিত কমিটিকে সমিতির অফিস থেকে জোরপূর্বক বের করে দিয়েছেন। একইসাথে তাদের কাছে বৈধতার আইনগত কোনো ধরনের কাগজপত্র নাই বলেও একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।
এ বিষয়ে ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতি সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খান বলেন, সমিতির গঠনতন্ত্র অনুয়ায়ী নির্বাচন ও সদস্যদের লিখিত অনুমোদন ছাড়া অন্যকারো কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর/পরিবর্তনের কোনো সুযোগ নাই। তিনি বলেন, নির্বাচনের পর সমিতির সকল সদস্যরা সর্বসম্মতিক্রমে রেজুলেশনে সাক্ষর করেন এবং এই হিসেবেই সমিতির সকল কার্যক্রম (ব্যাংক হিসেবে) পরিচালিত হয়। তিনি বলেন, এমপি মহোদ্বয় আগামী ৫ এপ্রিলের মধ্যে একটি নির্বাচন অনুষ্ঠানের ব্যাবস্থা করবেন এবং সার্বিকভাবে সহযোগিতা করার কথা আমাদের বলেছেন। কিন্তু লক্ষ করা যাচ্ছে এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে নিজেদের সমিতির সভাপতি/সম্পাদক দাবি করা দুই ব্যাক্তি অবৈধভাবে জোরদখল করেই সমিতি চালাতে চাচ্ছে। এটা কেউ মানবে না বলেও জানান তিনি। তাই সমিতির অর্থ হেফাজত ও সকল সদস্যদের সম্মান রক্ষায় বদ্ধপরিকর বর্তমান কমিটি জানিয়েছেন ডেমরা সাব রেজিস্ট্রি স্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমিতি সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খান।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com