বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় বহিস্কৃত নায়েব মোখলেছকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে স্থানীয়া। কালের খবর

সাতক্ষীরায় বহিস্কৃত নায়েব মোখলেছকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে স্থানীয়া। কালের খবর

সাতক্ষীরা থেকে মিহিরুজ্জামান, কালের খবর : সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ধুলিহর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে দুর্নীতির দায়ে জেলা প্রশাসক কর্তৃক বহিস্কৃত নায়েব মো. মোখলেছ রহমানকে নারী সহ আপত্তিকর অবস্থায় আটক করা হয়।প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানান, উপজেলার রামচন্দ্রপুর এলাকার জনৈক ব্যক্তির মেয়ে (২০) এর সাথে একটি বদ্ধ ঘর থেকে তাহাদের দুই জনকে আটক করে স্থানীয়রা।তবে এ বিষয়টি ওই মেয়ের পরিবারকে আর্থিক প্রলোভন দেখিয়ে ও বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ওই বহিস্কৃত নায়েব মোখলেছউপজেলার রামচন্দ্রপুর এলাকার মসজিদ কমিটির সভাপতি মো. হবিবর রহমান জানায়, ‘দীর্ঘদিন যাবৎ মোখলেছ নায়েব আমার প্রতিবেশী ওই মেয়ের বাড়িতে সময়ে অসময়ে আসা যাওয়া করে।নায়েব মোখলেছ মেয়ের সাথে খোলামেলা ভাবে চলাফেরা এবং মেলামেশার বিষয়টি স্থানীদের নজরে আসে।তবে বিষয়টি নিয়ে আমরা মেয়ের বাবার কাছে নালিশ করলে তিনি আমাদের জানান, মোখলেছ নায়েব আমার ধর্মের ছেলে, এজন্য আমাদের বাড়িতে আসা যাওয়া করে। তবে গভীর রাতে স্থানীয়দের সহায়তায় তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে আটক করে উৎসুক জনতা। এরপর আমরা স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ আমাদের মেম্বার কামরুজ্জামানকে ডাকি। মেম্বার ঘটনাস্থলে আসার পর স্থানীয়দের তোপের মুখে বহিস্কৃত নায়েব মোখলেছ কৌশলে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মেয়ের বাবা মীমাংসার বিষয়টি প্রকাশ করলেও ঘটনার বর্ণনা দিতে রাজি হয়নি।
তবে এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. কামরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান,ইতোমধ্যে আমিও স্থানীয়দের দ্বারা অনেক অভিযোগ পেয়েছি ওই নায়েবের মোখলেছের বিরুদ্ধে। সে দীর্ঘদিন ধরে সেখোনে যাতায়াত করে।এটা গ্রাম্য লোকজনের কাছে বিষয়টা খারাপ লাগে। তাছাড়া ঘটনার রাতে স্থানীয়রা আমাকে ডাকলে আমি সেখানে গিয়ে প্রায় দুই ঘণ্টা বাইরে দাড়িয়ে ঘরের ভিতর থেকে তাদের রঙ্গ-তামাশা কথা শুনেছি। ঘরের বাইরে থেকে তালা দেওয়া ছিলো। এ সময় মেয়ের পরিবারকে ঘরের তালা খুলতে বলায় তারা তালা খুলতে রাজি হয়নি। পরে স্থানীয়দের চাপের মুখে ঘরের তালা খুলে নায়েব মোখলেছ ও মেয়েকে ঘর থেকে বের করা হয়। তিনি আরও জানান,আমি শুনেছি ওই মেয়ের আগের একটি সংসারও মোখলেছ নায়েবের কারণে ভেঙেছে।
এ ঘটনায় অভিযুক্ত বহিস্কৃত নায়েব মোখলেছ রহমানকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দাবি জানান এলাকার সাধারণ মানুষ।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com