বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ, তদন্ত করছে দুদক ও মাউশি। কালের খবর তাড়াশে সেচ্ছাসেবকলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত। কালের খবর যশোর সদরে ইউপি নির্বাচন ৫ জানুয়ারি। কালের খবর কুমড়া বড়ি তৈরি করতে ব‍্যস্ত তাড়াশের কারিগররা। কালের খবর বাঘারপাড়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় চেয়ারম্যান প্রর্থীসহ আহত ২০-অফিস ভাংচুর। কালের খবর যশোর সদর হাসপাতালে দালালদের কাছে জিম্মি রোগীরা। কালের খবর উৎপাদনে নতুন ‘দেশি মুরগি’, ৮ সপ্তাহে হবে এক কেজি। কালের খবর ইউপি নির্বাচনে শাহজাদপুরের ১০ ইউনিয়নে আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা। কালের খবর যশোরের শার্শায় শোকজের জবাবের আগেই যুবলীগ নেতা বহিষ্কার! কালের খবর জাতীয় শ্রমিক লীগের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক মন্টুর প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত। কালের খবর
দুই যুগেও নির্মাণ হয়নি ঝালকাঠি সড়কের গুরুত্বপূর্ণ সেতু । কালের খবর

দুই যুগেও নির্মাণ হয়নি ঝালকাঠি সড়কের গুরুত্বপূর্ণ সেতু । কালের খবর

নলছিটি (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি, কালের খবর :

দীর্ঘ দুই যুগ ধরে অসমাপ্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার নাচল মহল ভায়া ঝালকাঠি সড়কের গুরুত্বপূর্ণ সেতুর নির্মাণ কাজ। ফলে গ্রামীণ জনপদের ১৫ হাজার মানুষের সহজ যাতায়াত সুবিধা ব্যাহত হচ্ছে।
জানা যায়, বিগত ১৯৯৬ সালে আ.লীগ সরকারের আমলে তৎকালীন খাদ্যমন্ত্রী থাকা অবস্থায় আমির হোসেন আমু সেতু নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন। উপজেলার নাচলমহল খালের উপড়ে ৫০ মিটার দীর্ঘ ডার্চ সরকারের অর্থায়নে এলজিইডি বিভাগের মাধ্যমে কাজ শুরু হয়। তৎকালীন সময়ে ৫৩ লাখ টাকা ব্যয়ে সেতুর ফাউন্ডেশন পিলারের নির্মাণ কাজ করা হয়েছে, কিন্তু পরবর্তী ডাইভারেশন ও এই ভিত্তির উপর বেইলি কাঠামো সরবরাহ প্রকল্পভূক্ত ছিল। পরবর্তী সময়ে জোট সরকার (বিএনপি) ক্ষমতায় আসার পর নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় ডার্চ সরকারের অর্থায়নে বাস্তবায়িত কিছু প্রকল্পে অনিয়মের কারণে ডার্চ সরকার বাংলাদেশ সরকারের সাথে অবকাঠামো উন্নয়নের সকল চুক্তি বাতিল করে। সেই থেকে এই ন্যাড়া মাথা নিয়ে দীর্য দুই যুগ ধরে অসমাপ্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে সেতু প্রকল্পটির বাস্তবায়ন।
এলজিইডি বিভাগ দাবি করছে তারা প্রকল্পের ডিজাইন পরিবর্তন করে সেতু নির্মাণের জন্য এলজিইডির কেন্দ্রীয় পর্যায়ে জানিয়েছে। খালের নেভিগেশন ব্যাহত না করে কিভাবে সেতু নির্মাণ করা যায় তার জন্য ঢাকা থেকে ডিজাইনার ও প্রাক্কালনকারীদের আগমনের প্রতিক্ষায় রয়েছে চাতক পাখির মতো।
নলছিটি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. সিদ্দিকুর রহমান জানান, এই অসামাপ্ত ব্রিজের জন্য রাস্তার দু’পার থেকে কাদা মাটির জন্য মানুষের চলাচল করতে মারাত্মক অসুবিধা হচ্ছে। বর্তমানে সংযোগরক্ষারী হিসেবে একটি খেয়া নৌকা ব্যাবহার করে দু’পারের লোকজন পারাপার হচ্ছে। এই ব্রিজের কাজ দ্রুত বাস্তবায়ন না করায় তার এলাকার এবং পার্শ্ববর্তী রানাপাশা ইউনিয়নসহ দক্ষিণাঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের প্রতিদিন চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বলে তিনি দাবি করনে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com