রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
চলনবিলের তাড়াশে চলছে ‘পীরের বোয়াল মাছ’ নিধনের মহোৎসব। কালের খবর সীতাকুণ্ডে শিশু চুরির ঘটনা সাজানো, তিনদিন পর উদ্ধার। কালের খবর টেকেরহাটে ভূমিহীনদের অধিকার আদায়ের স্বার্থে বিশাল জনসমাবেশ অনুষ্ঠিত। কালের খবর সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে যাত্রাবাড়ীতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন। কালের খবর যশোরে অভাবের তাড়নায় সন্তানদের নিয়ে পিত্রালয়ে স্ত্রী-আত্মহত্যার চেষ্টা স্বামীর। কালের খবর সিরাজগঞ্জের শাহাজদপুরে স্বামী হত্যায় স্ত্রী ও পরকিয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড সখীপুরে যমুনা ইলেকট্রনিক্সের শো-রুম উদ্বোধন। কালের খবর শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত। কালের খবর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় পূর্বশত্রুতার জেরে বসতঘর পোড়ানোর অভিযোগ। কালের খবর নবীনগরের সলিমগঞ্জ বাজারের সভাপতি এস এম বাদলের বাড়ি থেকে চোরাই মোটরসাইকেল সহ ৪ চোরাকারবারি আটক। কালের খবর
ড্রেসিং রুমে ট্রাম্প আমাকে পেছন দিক করে দেওয়ালে চেপে ধরেন, অতপর…. কালের খবর

ড্রেসিং রুমে ট্রাম্প আমাকে পেছন দিক করে দেওয়ালে চেপে ধরেন, অতপর…. কালের খবর

কালের খবর ডেস্ক :

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আবারও যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে। এবার ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনেছেন মার্কিন লেখিকা ই জ্যাঁ ক্যারোল।
নিউ ইয়র্কের একটি ম্যাগাজিনে নিজের লেখায় এই অভিযোগ করেছেন ক্যারোল। এই নিয়ে ১৫ জন নারী ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ আনলেন। এ ঘটনা নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে।
নিউ ইয়র্কের একটি ম্যাগাজিনে ক্যারোল তার বিরূপ অভিজ্ঞতার বিষয়ে লিখেছেন। এই লেখিকার অভিযোগ, ৯০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে ম্যানহাটনের একটি ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে ড্রেসিং রুমে ট্রাম্প আমাকে পেছন দিক করে দেওয়ালে চেপে ধরেন।।। এরপর যৌনাঙ্গে হাত দেন ট্রাম্প। চূড়ান্ত যৌন হেনস্তা করেন তিনি।

ক্যারোলের দাবি, ম্যানহাটনের ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে ট্রাম্প সেদিন তার সঙ্গে যা করেছিলেন তা তাকে সারাজীবন তাড়া করে বেড়াচ্ছে। এটা তাকে মানসিকভাবেই যন্ত্রণা দেয়।
এদিকে, অভিযোগ সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করে এক বিবৃতিতে ট্রাম্পের দাবি, মিথ্যে অভিযোগ করছেন ওই নারী। তিনি ওই নারীকে চেনেন না। কোনও দিনও দেখাও হয়নি তার সঙ্গে।

নিউ ইয়র্কের ম্যাগাজিনে ক্যারোল লিখেছেন, সালটা ছিল ১৯৯৫ বা ৯৬। ট্রাম্প তখন নিউ ইয়র্কের অন্যতম ধনী ব্যক্তি। আমার সঙ্গে তার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক চলছিল। একদিন ট্রাম্পের সঙ্গে নিউ ইয়র্কের বার্গডর্ফ গুডম্যানে ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে দেখা হয়। ড্রেসিং রুমে ট্রাম্প আমাকে পেছন দিক করে দেওয়ালে চেপে ধরেন ৷ নিজের প্যান্টের জিপ খুলে যৌনাঙ্গ বের করেন তিনি। তারপর আমাকে পেছন থেকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। সেদিন কোনোক্রমে ওই বিভীষিকা থেকে পালিয়ে বাঁচি আমি।

এদিকে, এ ঘটনা নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আলোড়ন পড়ে গেছে। ট্রাম্পের বক্তব্য, পুরোটাই ভুয়া খবর। কোনও প্রমাণ নেই। সিসিটিভি ফুটেজ নেই। কোনও ছবি নেই, ভিডিও নেই, পুলিশে রিপোর্ট নেই।

সূত্র : নিউজ এইটিন, বিবিসি

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com