বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
দৈনিক কালের খবরে সংবাদ প্রকাশের পর প্রশাসন-পুলিশের উদ্যোগে শেকলবন্দী রবিউল মানসিক হাসপাতালে ভর্তি। কালের খবর টাকা দিলেই পরিবেশ অধিদপ্তরের কুমিল্লা কার্যালয় থেকে মিলছে যেকোনো ধরনের ছাড়পত্র।। কালের খবর বাঘারপাড়ায় কোভিড-১৯ এর(গন টিকা) বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। কালের খবর সখীপুরে স্ত্রীর অধিকার আদায়ে স্বামীর বাড়িতে এক নারীর অনশন। কালের খবর নবীনগরের শাহবাজপুরে মায়ের সাথে অপকর্ম করতে গিয়ে ছেলের হাতে ধরা পড়ল ইউপি সদস্য! কালের খবর পণ্য নয়-কাভার্ড ভ্যানে ছিল যাত্রী, অভিযান চালাল সীতাকুণ্ড ইউএনও। কালের খবর মানবতার টানে রাতের আঁধারে ও ছুটে চলেছেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের নেতা আলামিনুল হক। কালের খবর শোক সংবাদ : হাজী শামসুল হক চেয়ারম্যান আর নেই। কালের খবর কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে সীমান্তে ৭ বাংলাদেশী আটক। কালের খবর তাড়াশে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা পেল করোনায় আক্রান্ত এক অসহায় পরিবার। কালের খবর
গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় স্বামীর যৌতুকের চাবুকে ক্ষত-বিক্ষত সাথী খানম। কালের খবর

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় স্বামীর যৌতুকের চাবুকে ক্ষত-বিক্ষত সাথী খানম। কালের খবর

গোপালগঞ্জ থেকে নাইমুল ইসলাম নাইম, কালের খবর : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় যৌতুক লোভী স্বামী ও শ্বশুর-শ্বাশুড়ীর নির্যাতনের স্বীকার এক গৃহবধু। স্বামীর নির্যাতনের শিকার হয়ে হাসপাতালের বিছানায় মৃত্যেুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সাথী খানম।

জানা যায়, উপজেলার গচাপাড়া গ্রামের মঞ্জুর মিয়ার মেয়ে সাথী খানম (১৮) এর সাথে নাগড়া গ্রামের কবির কাজীর ছেলে মামুন কাজীর (২২) সাথে পাচ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় মেয়ের জামাইকে স্বর্ণালংকার সহ নগদ টাকা যৌতুক দেয় শ্বশুর বাড়ী থেকে। তারপর সাথী খানমের যৌতুক লোভী শ্বশুর -শ্বাশুড়ী স্বামী বাবার বাড়ী থেকে টাকা এনে দেয়ার জন্য বিভিন্ন সময়ে সাথী খানমকে চাপদিতে ও মারপিট সহ নির্যাতন করতে থাকে।

সবশেষে ৮ জুলাই বিকালে বাবার বাড়ী থেকে দেয়া সাথী খানমের স্বর্ণের কানের দুল বিক্রির উদ্দেশ্যে চায় মাদক সেবী নারী আসক্ত স্বামী। তা দিতে অস্বীকৃতি জানালে স্ত্রীকে মারপিট করে গুরুতর আহত করেন মামুন। পরে বাবার বাড়ীর লোকজনের সহায়তায় চিকিৎসার জন্য কোটালীপাড়া হাসপাতালে ভর্তি হয় সাথী খানম।

হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে কান্না জড়িত কন্ঠে আহত সাথী খানম এই প্রতিবেদক কে বলেন, ৫ বছর পূর্বে আমাদের বিয়ে হয়েছে ২ বছরের একটি কন্যা সন্তান ও রয়েছে আমাদের। স্বামী সাভারে তুলার দোকানে কর্মচারীর কাজ করে অথচ আমাকে ঠিক মত ভরন পোষণ করে না। মেয়েকে ও কিছু দেয় না। ৬ মাস আগে সাভারে আবার দ্বিতীয় বিয়ে করেছে। এখন আমাকে তাড়িয়ে দেয়ার জন্য শ্বশুর – শ্বাশুড়ী নানা ভাবে নির্যাতন এবং স্বামী প্রায়ই মারপিট করে। তিনি আরো জানান, আমি যাতে মেয়েকে নিয়ে সুষ্ঠু ভাবে স্বামীর ঘর করতে পারি এ বিষয়ে সুবিচারের জন্য স্হানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com