শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৫০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নাসিকে জমে উঠেছে নির্বাচনী উৎসব। কালের খবর হাবিবুর রহমান স্বপনের মাতৃবিয়োগ। কালের খবর মাদক,সন্ত্রাস ও ইভটিজিং নির্মূলে খেলাধূলার ভূমিকা অপরিসীম। কালের খবর নবীনগরে আইনশৃঙ্খলার ব্যাপক অবনতি, অগ্নিসংযোগ আতঙ্কে সাধারণ মানুষ। কালের খবর নবীনগরে জাতীয় পার্টির ৩৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত। কালের খবর সারা বছরজুড়ে যশোরের যত আলোচিত ঘটনা। কালের খবর হান্ডিয়াল প্রেসক্লাবে দ্বিবার্ষিক কমিটি গঠন। কালের খবর নবীনগরে শপথ গ্রহণের পূর্বেই ইউ/পি সদস্য খুরশেদ আলম জুতাপেটা করলেন এক বৃদ্ধাকে। কালের খবর ডিঙ্গামানিক ইউনিয়ন জুড়েই যেন চশমা প্রতিকে ভোট প্রার্থনা। কালের খবর মেহেরপুরে জোসনা বেকারিকে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা। কালের খবর
আ.মী লীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কালের খবর

আ.মী লীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কালের খবর

এম আই ফারুক আহমেদ, কালের খবর : আওয়ামী লীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শনিবার (২৩ জুন) সকাল ৯টার দিকে এ শ্রদ্ধা জানান তিনি।

পরে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে আবারো শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। এসময় কিছুক্ষণ নিরবে দাঁড়িয়ে থাকেন শেখ হাসিনা। পরে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ,সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা জানায়।
১৯৪৯ সালের ২৩ জুন তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের নির্যাতিত নিপীড়িত মানুষের পক্ষে কথা বলার জন্য ঢাকার কে এম দাশ লেনের রোজ গার্ডেনে আত্মপ্রকাশ দলটির। এই রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানটির সাথে জড়িয়ে আছে বাংলা ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে বাঙালির স্বাধিকার ও স্বাধীনতা সংগ্রামের সব ইতিহাস।
ব্রিটিশ শাসন থেকে মুক্ত হয়ে ভারত ও পাকিস্তান সৃষ্টির দু’বছরের মাথায় গণমানুষের অধিকার আদায়ের জন্য পূর্ব বাংলায় আত্মপ্রকাশ করে আওয়ামী মুসলিম লীগ। পরে পূর্ব বাংলার সব মানুষের কণ্ঠস্বরে পরিণত হওয়ায় নাম করা হয় শুধু আওয়ামী লীগ। যার নেতৃত্বে পৃথিবীর মানচিত্রে জন্ম নেয় স্বাধীন ভূখণ্ড বাংলাদেশ।
১৯৪৯ সালের ২৩ জুন পুরনো ঢাকার রোজ গার্ডেনে প্রায় আড়াইশ প্রতিনিধির উপস্থিতিতে মওলানা ভাসানীকে সভাপতি, শামসুল হককে সাধারণ সম্পাদক ও শেখ মুজিবুর রহমানকে যুগ্ম সম্পাদক করে আওয়ামী মুসলিম লীগের ৪০ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। ৬৯ বছরের দীর্ঘ এই পথ চলায় একটি স্বাধীন দেশ ছাড়াও মানুষের ভাত ও ভোটের অধিকারসহ সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছে দলটি।
রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করেন, বিভিন্ন সময় নানা ঝড়ঝাপটার মধ্যে দিয়ে অতিক্রম করেছে আওয়ামী লীগ। কিন্তু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত ধরে গণমানুষের অধিকার আদায়ের বড় রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান হয়ে ওঠে আওয়ামী লীগ।
মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির সংগ্রামে এখন আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় ওঠা বাংলাদেশকে ২০৪১ সালের মধ্যে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখাচ্ছেন তিনি।
আওয়ামী লীগের সিনিয়র এই নেতা মনে করেন- সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে তরুণরাই হবে আওয়ামী লীগের মূল শক্তি। 

         দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন । 

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com