বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
দোহারে ১৫ দিন থেকে মসজিদের মুয়াজ্জিন নিখোঁজ,পাগল প্রায় বাবা মা নবীনগর পৌরসভায় সুবিধা বঞ্চিত মুসলিম পরিবার গুলো, দেখার যেন কেউ নেই। কালের খবর যশোরের অভয়নগরে ৮ বছরের শিশু কে ধর্ষণের পর হত্যা, ঘাতক পুলিশের হাতে আটক। কালের খবর ঢাকায় জার্নালিস্ট শেল্টার হোম শীঘ্রই উদ্বোধন!। কালের খবর মতলব দক্ষিণের ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান কামাল গাজী জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি। কালের খবর তালায় প্রতিবন্ধী সাংবাদিক সিরাজুলের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় এজাহার, নিরাপত্তার জন্য জিডি। কালের খবর সখীপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষে ছোট ভাই খুন। কালের খবর নবীনগর উপজেলা প্রকৌশলির বিরুদ্ধে কাজ না করে মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ এর গুঞ্জন পা দিয়ে লিখে চতুর্থবার জিপিএ-৫ পেলেন তামান্না। কালের খবর মৌলভীবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের নিবন্ধন পত্র গ্রহণ। কালের খবর
লক্ষ্মীপুরের তরুণ সাংবাদিক পলাশকে পিটিয়ে হত্যা

লক্ষ্মীপুরের তরুণ সাংবাদিক পলাশকে পিটিয়ে হত্যা

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি, কালের খবর :

লক্ষ্মীপুরের স্থানীয় তরুণ সাংবাদিক শাহ মনির পলাশকে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। এর আগে সদর উপজেলার পার্বতীনগর ইউনিয়নের মাছিমনগর গ্রামে পারিবারিক জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে চাচাতো ভাইদের হামলার শিকার হন সাংবাদিক পলাশ। এ ঘটনায় স্থানীয় এলাকাবাসী খুনিদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন। নিহত পলাশ দৈনিক রুপবানী পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ও লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজের স্নাতক (বিএ) ফলপ্রার্থী ছিল।

নিহতের পরিবার, গ্রামবাসী ও পুলিশ জানায়, বুধবার সকালে মাছিমনগর গ্রামে পারিবারিক সীমানা বিরোধের জের ধরে আতারুজ্জামানের দুই ছেলে ইউছুপ ও আবু ছাইদ সাংবাদিক পলাশের বাবা আব্দুল মন্নানকে মারধর করে। এসময় বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে তাদের হামলার শিকার হন পলাশও।

এক পর্যায়ে তারা কাঠের টুকরো দিয়ে পলাশকে বেধড়ক পিটিয়ে তার মাথা ও বুক থেতলে দেয়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তির পর অবস্থার অবনতিতে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হয়। হামলার ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বৃহস্পতিবার সকালে মারা যায় পলাশ। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন এলাকাবাসী। খুনিদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবি নিয়ে দলমত নির্বিশেষে বিক্ষোভ মিছিল করেন তারা। সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও এখনো জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি মো. লোকমান হোসসেন জানান, পারিবারিক সীমানা জটিলতা নিয়ে চাচাতো ভাইদের হামলায় আহত সাংবাদিক মারা গেছে। থানায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে, জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানান তিনি।

কালের খবর/১৫/২/১৮

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com