বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:৩৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
গাছে গাছে আমের মুকুল, মৌ মৌ ঘ্রাণে ব্যকুল মানুষ। কালের খবর নির্মাণ শ্রমিকদের কর্মস্থলে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানাল ইনসাব। কালের খবর ভাষা দিবস পদক প্রদান গুণীজন সম্মাননা ও লেখক সম্মেলন ২০২৪। কালের খবর মুরাদনগরে কৃষি কার্যক্রম পরিদর্শনে মার্কিন দূতাবাস প্রতিনিধি। কালের খবর কুষ্টিয়ায় বাজার থেকে ক্রয় করা মাংসে মিলল পুরুষাঙ্গ ! কালের খবর চট্টগ্রামের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে অতিথি ডটকমের জমকালো ডায়মন্ড সেলিব্রেশন প্রোগ্রাম। কালের খবর শাহজাদপুরে সরিষা আনতে মাঠে যাচ্ছিলেন হাবিব, হঠাৎ বজ্রপাত। কালের খবর চোর চক্রের তিন সদস্য আটক দুটি মটরসাইকেল উদ্ধার কালের খবর টেকনাফে লক্ষাধিক ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক। কালের খবর একুশের বই মেলায় রাজু আহমেদ মোবারকের ‘সত্য সুন্দরের সন্ধানে’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন। কালের খবর
চরফ্যাশন পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে জনবল সঙ্কটে গ্রাহক ভোগান্তি। কালের খবর

চরফ্যাশন পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে জনবল সঙ্কটে গ্রাহক ভোগান্তি। কালের খবর

তৈয়্যবুর রহমান (তুহিন) চরফ্যাশন ভোলা, কালের খবর : ভোলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সমন্বয়ে ২০১৬ সালের মার্চ মাসে চরফ্যাশন উপজেলার ২১টি ইউনিয়ন নিয়ে একটি সাব জোনাল অফিস গঠন করেন ভোলা বাংলাবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি । এই ২১টি ইউনিয়ন নিয়ে একজন এজিএম ,একজন জুনিয়ার ইঞ্জিনিয়ার, একজন ক্যাশিয়ার ,৩জন বিল প্রস্তুতকারী, একজন বিলিং সুপারভাইজার,একজন ওয়্যারিং ইন্সপেক্টর ৬জন ইলেকট্রিশিয়ান দারায় ২০১৭ সাল পর্যন্ত অফিস পরিচালনা করে আসছেন,সেই সাথে গ্রাহক অনুপাতে পর্যাপ্ত পরিমানের লাইনম্যান ঘাটতি। ২০১৮সালে ১জন বিল প্রস্তুতকারী, একজন তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, একজন মিটার টেস্টার,৬জন ইলেকট্রিশিয়ান যোগদান করেন। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মসে সাব জোনাল অফিস পদউন্নতি হয়ে জোনাল অফিস হিসাবে রূপান্তরিত হয়। সেখানে নতুন অফিসার হিসাবে আসেন একজন ডিজিএম । একটি জোনাল অফিস হিসাবে সবকিছু বাড়ানো হয়েছে, কিন্তু গ্রাহক ভোগান্তির জন্য বাড়ানো হচ্ছেনা, ক্যাশিয়ার লাইনম্যান ওয়্যারিং ইন্সপেক্টর, এই ৩জন কর্মকত্তা দিয়ে ২১টি ইউনিয়ন পরিচালনা করায় ভোলা বাংলাবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি। যার ফলে একজন বিদ্যুৎ গ্রাহক বকেয়া বিল দেওয়ার জন্য আসে সকাল ১০টায় যেতে হয় বিকাল ৫টায়, শুধু একজন ক্যাশিয়ার থাকার কারনে। একি অবস্থা লাইন সমস্যায় গ্রাহকরা সেবা নিতে আসে সকাল ১০ যেতে হয় বিকাল ৫টায় তার পরেও অসমাপ্ত রয়ে যায় তাদের কাজ, কারন ২১টি ইউনিয়ন নিয়ে ১৭জন লাইনম্যান কাজ করছেন। নতুন মিটার জন্য আবেদন কৃত গ্রাহকদের ও হয়ারানি হতে হয়। একজন ওয়্যারিং ইন্সপেক্টর থাকার কারনে, একজন ওয়্যারিং ইন্সপেক্টর যে আছে সে মিটার দেখবে নাকি অফিসিয়াল কাজ করবে?বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার শতভাগ বিদ্যুৎ প্রতি উপজেলায় পৌঁছানোর পরিপেখিতে চরফ্যাশন জোনাল অফিসে গ্রাহক সেবার মান বাড়াতে ও গ্রাহক হয়ারানি বন্ধ করতে, আরো একজন ক্যাশিয়ার একজন ওয়্যারিং ইন্সপেক্টর ও কিছু সংখ্যক লাইনম্যান অতি দ্রুত প্রয়োজন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com