সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
দালাল ছাড়া হালাল হয় না কিছুই। কালের খবর সখীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ যুবক নিহত। কালের খবর সীতাকুন্ড হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ আমির ফারুক সবসময় মানুষের সেবায় নিয়োজিত। কালের খবর ১২ ফুটের শিকলে এক যুগ ধরে বন্দি সহিদুল। কালের খবর ৯ বছরেও শেষ হয়নি বিআরটি প্রকল্প জনদুর্ভোগ চরমে। কালের খবর টিকাদান কেন্দ্রে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করছে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ। কালের খবর নবীনগরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগে ৩টি ড্রেজারসহ আটক ১৮ জন। কালের খবর বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীরা চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে না বলে অভিযোগ। কালের খবর শ্রীমঙ্গলে আট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরির ঘটনায় ব্যবসা সমিতির প্রতিবাদ সভা। কালের খবর সীতাকুণ্ডে সোহেল হত্যা মামলার আসামী জসিম র‌্যাবের হাতে আটক। কালের খবর :
প্রযোজক আমাকে এক রাতে শোয়ার কথা বলেছিলেন ! অভিনেত্রী শ্রুতি মারাঠে। কালের খবর

প্রযোজক আমাকে এক রাতে শোয়ার কথা বলেছিলেন ! অভিনেত্রী শ্রুতি মারাঠে। কালের খবর

কালের খবর বিনোদন ডেস্ক :: সিনেমা জগতে কান পাতলে একটা শব্দ শোনা যায় ‘কম্প্রোমাইজ’। অভিনেত্রীদের কিছু পেতে গেলে কিছু দিতে হবে গোছের এক আদিম তত্ত্ব। যার শিকার সিনেমা জগতের অনেক অভিনেত্রী। এমনই এক অভিজ্ঞতার কথা সামনে এনে বোমা ফাটালেন ভারতের মারাঠি সিনেমা সহ হিন্দি সিনেমা বা সিরিয়ালের জনপ্রিয় মুখ শ্রুতি মারাঠে। নিজের ইন্সটাগ্রাম পেজে তিনি একটি ভয়ংকর অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেছেন।

শ্রুতি দাবি করেছেন, তিনি তখন একটি সিনেমার লিড রোলের জন্য অডিশন দিতে গিয়েছিলেন। সেখানে প্রযোজক তাঁর সঙ্গে প্রথমে পেশাগত কথা বললেও পরে কম্প্রোমাইজ, একটি রাত শব্দগুলি ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বলতে থাকেন। ওই প্রযোজক আসলে তাঁকে কী বলতে চাইছেন তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি শ্রুতির। প্রযোজক তাঁকে রাতে শোয়ার কথা বলছেন! সেকথা শোনার পর কড়া জবাব তো তিনি দেনই, সেইসঙ্গে বাইরে এসে সকলকে কথাটা জানিয়েও দেন। তবে ওই প্রযোজক কে ছিলেন তা জানাননি শ্রুতি।

শ্রুতি এটাও জানান তাঁর প্রথম জীবনে তিনি একটি দক্ষিণী সিনেমায় অভিনয় করছিলেন। সেখানে তাঁকে বিকিনি পড়ে অভিনয় করতে বলা হয়। তিনি তা মেনেও নেন। কিন্তু পরবর্তীকালে তার জন্য বহুভাবে মানুষের কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছে তাঁকে। অনেক মানুষ জানেননা যে অভিনেতা অভিনেত্রীদের এমন অনেক কিছুই তাঁকে ইচ্ছা না হলেও করতে হয়। সে সময়ে তিনি একটি সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ পাচ্ছিলেন। তাই সেটা মেনে নেন। যার জন্য তাঁকে এখনও ‘ট্রোল’ হতে হয়।

গত বছর অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত যে হ্যাশট্যাগ মিটু আন্দোলনের ঢেউ ভারতে তুলে দিয়েছিলেন, সেই রাস্তায় হেঁটে এখনও পর্যন্ত অনেক অভিনেত্রীই তাঁদের পেশাগত জীবনের লালসার শিকারের কাহিনি তুলে ধরেছেন। অনেকে জানিয়েছেন সুযোগ ছেড়েও কীভাবে তাঁরা এই কাস্টিং কাউচের ধারাবাহিকতা মেনে নেননি। তারই সাম্প্রতিকতম উদাহরণ শ্রুতি মারাঠে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com