বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
পবিত্র ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে ব‍্যস্ত সময় পার করেছে তাড়াশ উপজেলার কামাররা। কালের খবর রাজনগরে চাঁদা না দেওয়ায় প্রবাসীর পিতা গৃহবন্দি। কালের খবর ছাই হওয়া স্বপ্ন গড়লেন লাগালেন এমপি ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন’। কালের খবর বাঘারপাড়ায়-পদ্মা সেতু উদ্বোধনের আনন্দে এলাকাবাসী কে মিষ্টি খাওয়ালো (চায়ের দোকানদার) মারজোন মোল্লা। কালের খবর কানাইঘাটে বিএমএসএফ ও রেড ক্রিসেন্টের যৌথ উদ্যোগে বন্যার্তদের ফ্রি চিকিৎসাসহ ঔষধ বিতরণ। কালের খবর সরকার সারা দেশে যোগাযোগব্যবস্থার উন্নয়ন করছে : প্রধানমন্ত্রী। কালের খবর শাহজাদপুরে বাধা দেয়ার পরও সহবাস করায় ব্লেড দিয়ে স্বামীর লিঙ্গ কর্তন করলো স্ত্রী!। কালের খবর পদ্মাসহ সকল সেতুতে সাংবাদিকদের টোল ফ্রি করা উচিৎ: বিএমএসএফ। কালের খবর বৃহত্তর ডেমরার যাত্রাবাড়ি বর্ণমালা স্কুলের অধ্যক্ষ ও সভাপতির দুর্নীতি তদন্তে কমিটি গঠন। কালের খবর স্বপ্নের পদ্মা সেতু দেখা হলো না শিশু নাসিমের। কালের খবর
খালেদা জিয়ার বাম কাঁধ নাড়াতে পারছেন না, বাম হাত বেঁকে গেছে। কালের খবর

খালেদা জিয়ার বাম কাঁধ নাড়াতে পারছেন না, বাম হাত বেঁকে গেছে। কালের খবর

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের খবর  :

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাম হাত বেঁকে গেছে এবং তিনি বাম কাঁধ নাড়াতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন তার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান ড. এম এ জলিল। খালেদা রিউমাটো আর্থাইটিস রোগে আক্রান্ত হয়ে এ সমস্যায় ভুগছেন বলে জানান তিনি।

ড. জলিল সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত ত্রিশ বছর ধরে রিউমাটো আর্থাইটিস নামক রোগে আক্রান্ত তিনি। এই রোগটি নিয়ন্ত্রন না রাখার কারণে তার শারীরিক বিভিন্ন জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। বাম হাত বেঁকে যাওয়া, বাম কাঁধ নাড়াতে না পারা, হাত ঝিম ঝিম করাসহ বিভিন্ন উপসর্গ দেখা গেছে।

এছাড়া তার ঘাড়ে ও কোমরে ব্যথা আছে। তার বাম হিপজয়েন্টে আর্থাইটিস আছে। তার দুই হাঁটুর রিপ্লেসের স্থানে কিছুদিন আগে ফুলে গিয়েছিল। পরবর্তীতে ওষুধ দিয়ে তা ঠিক করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বেগম জিয়া গত বিশ বছর ধরে ডায়াবেটিসে ভুগছেন।

তার ডায়াবেটিস কন্ট্রোলের জন্য ইনসুলিন দেয়া হলেও তিনি তা নেননি। তার ডায়াবেটিসের বর্তমান কী অবস্থা সেটি আমাদের পরীক্ষা নিরিক্ষা করে দেখতে হবে। ইতোমধ্যে তার সুগার কমে হাইপো-ডায়াবেটিস হয়ে গিয়েছিল। তবে তিনি ব্লাডপ্রেসারের ওষুধ খাচ্ছেন। কিছুদিন আগে তার জ্বর হয়েছিল। সেটা এখন নাই। তার শরীরের সোডিয়াম কমে গিয়েছিল। ওষুধ দিয়ে সেটা নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।

গতকাল দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)-তে প্রেস ব্রিফিং করা হয়। এসময় খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের চারজন সদস্যই উপস্থিত ছিলেন। খালেদার জিয়ার অসুখের ব্যাপারে ব্যাখ্যা করে ড. জলিল বলেন, ‘এটি এক ধরণের বাত, গিঁটে গিঁটে ব্যথা। এর চিকিৎসা না হলে ঘাড়ে-মাজায়-কোমরে ব্যথা হয়।

এর চিকিৎসা একটি চলমান প্রক্রিয়া। খালেদা জিয়াকে ফিজিও থেরাপি দেয়া হচ্ছে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তার ফিজিওথেরাপি শুরু করে দেবো।’
উল্লেখ্য, আদালতের নির্দেশে ৬ অক্টোবর বিকালে খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে বিএসএমএমইউ-এ ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে তিনি বিএসএমএমইউ-এর ৬১২ নম্বর কেবিনে ভর্তি আছেন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com