শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মুন্সীগঞ্জ লৌহজং ফেরিতে হুড়োহুড়িতে প্রাণ গেল ৬ জনের। কালের খবর মুন্সীগঞ্জ লৌহজং মাওয়া শিমুলিয়া ঘাটে ঘর মুখো মানুষের জনসমুদ্র। কালের খবর আসসালামু আলাইকুম, আমি শেখ হাসিনা, দেশবাসীকে শুভেচ্ছা। কালের খবর শাহজাদপুরে লাখো মানুষের পাশে এমপি হাসিবুর রহমান স্বপন। কালের খবর বেনাপোল সীমান্তে ৫ টি পিস্তল ৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার। কালের খবর বাংলাদেশের উন্নয়ন ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ অনুসরণ-অনুকরণ করছে : ক্যাপ্টেন তাজ। কালের খবর বোয়ালমারীতে লিল্লাহ বোডিং ও এতিমখানার ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন। কালের খবর ঢাকা জেলা প্রশাসক ৩০০শত পরিবারকে দিলেন প্রধানমন্ত্রীর উপহার। কালের খবর নবীনগরের শিকানিকা গ্রামে ইমাম হুসাইন (রাঃ) মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন। কালের খবর প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. আলিমউল্যা মিয়ানের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালন ।
আমাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী প্রতারণা করেছেন : লুবনা জাহান। কালের খবর

আমাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী প্রতারণা করেছেন : লুবনা জাহান। কালের খবর

এম আই ফারুক, কালের খবর :: প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা এবং আন্দোলনকারীদের গ্রেপ্তার প্রসঙ্গে ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’-এর যুগ্ম আহবায়ক লুবনা জাহান বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর কথা পুরো জাতিকে হতাশ করেছে।
শুক্রবার জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলেকে লুবনা জাহান একথা বলেন।

তিনি বলেন,‘‘কোটা সংস্কার নিয়ে সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া বক্তব্যে পুরো বাংলাদেশের মানুষ হতাশ। প্রধানমন্ত্রী ১১ এপ্রিল সংসদে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, ‘কোটা বাতিল।’ কিন্তু এখন আবার বলা হচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা কোটা কমানো যাবে না, ৩০ শতাংশ রাখা হবে। কিছুটা রাখুক, আমরাও চাই। কিন্তু ৩০ শতাংশ যেভাবে বলা হচ্ছে, আমরা মনে করি আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করা হচ্ছে। পুরো জাতিকে হতাশ করেছে তাঁর এই কথা। আমরা কোটা সংস্কার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবো। আগামী রবিবার সংগঠনের পক্ষ থেকে নতুন কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে।”

এদিকে কোটা সংস্কার অন্দোলন নেতাদের কেউ কেউ গ্রেপ্তার হলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন চলছেই। কেন্দ্রের ঘোষণা অনুযায়ী গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত টানা ৫ দিন ক্লাস-পরীক্ষা হয়নি অনেক জায়গায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তত ১৪টি বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করেছে বলে জানা গেছে।
তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক একেএম গোলাম রব্বানী বলেন, ‘‘আমি যতটুকু জানি বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগেই ক্লাস হয়েছে। তবে যে বিভাগগুলোতে ক্লাস হয়নি, সেসব বিভাগের শিার্থীদের বলবো, দাবি-দাওয়া থাকলে বিভাগের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে উত্থাপন করতে। আমরা তার সমাধান করবো।”

        

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com