মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ইপিজেড থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে আইন শৃঙ্খলা ও কিশোর গ্যাং প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত। কালের খবর শাহজাদপুরে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে উড়ে গেল সি লাইন বাসের ছাদ, ১জন নিহত। কালের খবর সাতক্ষীরার কলারোয়ায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দ্বিতীয় স্ত্রী ঝর্ণার আত্মহত্যা। কালের খবর রিয়াদে জমকালো আয়োজনে মাই টিভির ১৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। কালের খবর কুষ্টিয়ায় পানি শুন্য গড়াই , নলকূপ উঠছে না পানি। কালের খবর প্রচন্ড তাপদাহে ফসলের মাঠে মেঘনার কৃষাণীরা! কালের খবর প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হচ্ছেন না কেউ, অনেকটাই ফাঁকা ঢাকার রাজপথ আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ : একান্ত সহযোগী রুবেল, অল্প দিনে কোটিপতি ! পর্ব-১। কালের খবর যৌথ বাহিনীর অভিযান: থানচি-রুমা-রোয়াংছড়ি ভ্রমণে বারণ সাতক্ষীরার দেবহাটায় ইউপি চেয়ারম্যান ও আ’লীগ সভাপতি সহ আহত পাঁচ। কালের খবর
ট্রাফিক সার্জেন্ট যখন গায়ক হিসেবেও জনপ্রিয়। কালের খবর

ট্রাফিক সার্জেন্ট যখন গায়ক হিসেবেও জনপ্রিয়। কালের খবর

কালের খবর প্রতিবেদক  : আগ্রহ ছিল খেলাধূলায়। গোপালগঞ্জ জেলা ফুটবল দলের গোলরক্ষক ছিলেন।
পাশপাশি পড়াশোনা। গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে। রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অনার্স ও মাস্টার্স। খেলাধূলার পাশাপাশি আর যে বিষয়টিতে আগ্রহ ছিল সেটি হলো সঙ্গীত। গানের প্রতি তীব্র আগ্রহ তাঁকে এখন পুলিশ সার্জেন্ট-এর পাশাপাশি সঙ্গীতশিল্পী তকমা যুক্ত করতে সহায়তা করেছে।
প্রথম গানের অ্যালবাম ২০০৩ সালে প্রকাশ পায়। পুরোদস্তুর ছাত্র অবস্থায় এই গানের অ্যালবাম তাঁকে কিছুটা পরিচিতি এনে দেয়। অ্যালবামের নাম ‘মা। ‘ প্রকাশ পায় ফাহিম মিউজিক থেকে।

এরপর দীর্ঘ বিরতি। দ্বিতীয় অ্যালবাম প্রকাশিত হয় ২০১১ সালে। এরমধ্যে ২০১৩ সালে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। সেখানেও তাঁর কণ্ঠের প্রশংসা ছড়িয়ে পড়ে।
পুলিশে তাঁকে নির্বাচন করা হয় ‘বাংলাদেশ পুলিশ’ এর থিম সং গাওয়ার জন্য। দ্বীন ইসলাম কণ্ঠ দেন। এই থিম সং এখন পুলিশের সর্বত্র বাজে। দ্বীন বলেন, আমি আমার দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সবসময় গাইতে চাই। সাধারণ মানুষের মধ্যে আমার একটা জায়গা তৈরি হয়েছে। আমি তাঁদের জন্যও গান করি।

সম্প্রতি গত ৪ জুন ইউটিউবে প্রকাশ করা হয় দ্বীন ইসলামের নতুন গানের মিউজিক ভিডিও ‘মন দিয়েছি তোকে’। ভিডিওটি সিডি চয়েস মিউজিক’র ইউটিউব চ্যানেলে দর্শক- শ্রোতারা দেখেছেন ১০ লাখ বারেরও বেশি। অল্প সময়ে ভিডিওটির জনপ্রিয়তা প্রসঙ্গে দ্বীন ইসলাম বলেন, ‘ভিডিওটি প্রকাশের পর থেকে দারুণ সাড়া পাচ্ছি। অবাক হয়েছি, মাত্র এক মাসে ভিডিওটি মিলিয়নের ঘর পেরিয়ে গেল। এটা সত্যিই বিস্ময়কর।

দ্বীন ইসলাম বর্তমানে বাংলাদেশ ট্রাফিক ঢাকা দক্ষিণে কর্মরত রয়েছেন। পাশাপাশি তিনি গেয়ে চলেছেন আমজনতার জন্য গান।

      দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন । 

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com