সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৫০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
চট্রগ্রামের বায়েজিদে ভূমিদস্যুদের হুমকিতে প্রাণ ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে অসহায় ইকবাল। কালের খবর রাস্তার উপর সাপ্তাহিক হাট, ভোগান্তি চরমে। কালের খবর নোয়াখালী স্কুল ছাত্রী লোমহর্ষক হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত। কালের খবর দৃষ্টি প্রতিবন্ধি কুরআনের হাফেজ মাওলানা মোঃ সাজিদুল ইসলাম বাঁচতে চায়। কালের খবর ডেমরায় চুরি-ডাকাতি-ছিনতাইয়ের ঘটনায় অতিষ্ঠ এলাকাবাসি থানা পুলিশ নীরব। কালের খবর ব্লাঙ্ক চেক স্ট্যাম্প জালিয়াতি ও মিথ্যা মামলায় হয়রানির প্রতিবাদে প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন। কালের খবর আজকের বসুন্ধরা বস্তুনিষ্ঠ সত্য অনুসন্ধান সংবাদ পরিবেশনে এগিয়ে যাবে বহুদুর -শিবলী সাদিক খান। কালের খবর পূজাকে ঘিরে মাটির তৈরি খেলনা রাঙাতে ব্যস্ত যশোরের মৃৎশিল্পীরা। কালের খবর দূর্গা দেবীকে ফুটিয়ে তোলার অপেক্ষায় তাড়াশে মৃৎশিল্পীরা রঙতুলির কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে। কালের খবর বোয়ালমারীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত। কালের খবর
বিমানবন্দরে গিয়ে হেয়ফাজত আমীরের কাছে দোয়া চাইলেন জাহাঙ্গীর

বিমানবন্দরে গিয়ে হেয়ফাজত আমীরের কাছে দোয়া চাইলেন জাহাঙ্গীর

কালের খবর প্রতিবেদক   :  হেফাজতে ইসলামের আমীর ও কওমী মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান আল্লামা শফি আহমেদের কাছে দোয়া চাইলেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনে ১৪দলীয় জোটের মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম। এ জন্য শনিবার রাতে তিনি এয়ারপোর্টে হাজির হন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাতে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর যেতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হাজির হন হেফাজতের আমীর শফি আহমেদ। এর কিছুক্ষণ পরই এয়ারপোর্টে হাজির হন মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর। কুশল বিনিময়ের পর জাহাঙ্গীর গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হেফাজতের কাছ থেকে পুনরায় সমর্থন চান। এর বিপরীতে শফি আহমেদ জাহাঙ্গীর আলমের জন্য আশীর্বাদ করেন। গাজীপুর সিটি মেয়র প্রার্থী দীর্ঘ সময় হেফাজতে ইসলামের আমীরের পাশে সময় কাটান। এর আগে সর্বশেষ ২০১৩ সালে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ওই সময়ে বিএনপি দলীয় জোটের মেয়র প্রার্থী এম এ মান্নানের পক্ষে প্রকাশ্যে মাঠে নামে হেফাজতে ইসলাম। হেফাজত কর্মীরা ওই সময় মেয়র মান্নানের পক্ষে প্রচারণা চালান ও ভোট চান। শেষ পর্যন্ত মেয়র প্রার্থী এম এ মান্নান বিপুল ভোটে বিজয়ী হন। ওই চিন্তা মাথায় রেখে মনে করা হচ্ছে এবারও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অরাজনৈতিকভাবে প্রভাব বিস্তার করবে হেফাজতে ইসলাম। এ কারণে হেফাজতের আমীরের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দলীয় জোট দুই পক্ষ থেকেই যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। এদিকে নির্বাচন কমিশনের তফসিল অনুযায়ী ১৫ই মে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র, সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। ৫৭টি সাধারণ ও ১৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড নিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশন গঠিত। এখানে ভোটার সংখ্যা ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৪২৫ জন।

গত ৬ই মে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের অন্তর্ভুক্ত শিমুলিয়া এলাকার এক ব্যক্তির রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের বিচারপতি নাঈমা হায়দার ও বিচারপতি জাফর আহমেদের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ নির্বাচনে তিন মাসের স্থগিতাদেশ দেয়। এ আদেশের বিরুদ্ধে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের দুই মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার ও অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম স্থগিতের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদন করেন। এরপর নির্বাচন কমিশন তাদের আপিল আবেদন জমা দেয়। এর ভিত্তিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ আগামী ২৮শে জুনের মধ্যে নির্বাচন শেষ করার নির্দেশ দেন। এখনো পর্যন্ত নির্বাচনের নতুন তারিখ ঘোষণা করেনি নির্বাচন কমিশন। এর আগেই হাসান উদ্দিন সরকার ও অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম নতুন মেরূকরণের জন্য দৌড়ঝাঁপ করছেন। হেফাজতে আমীরের সঙ্গে সাক্ষাৎ মেরূকরণের অংশ বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

…….দৈনিক কালের খবর

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com