সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
১১ সন্তানের জনক সেজে উপবৃত্তির টাকা আত্মসাৎ করেছেন প্রধান শিক্ষক। কালের খবর জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য হেলেনার ঘনিষ্ঠজনরা আতঙ্কে। কালের খবর কোটালীপাড়ায় অবৈধভাবে চলছে বালু উত্তোলনের মহোৎসব। কালের খবর ৪১তম বিসিএস প্রিলির ফল প্রকাশ। কালের খবর সখীপুরে ভাঙ্গা কালভার্টের ভোগান্তিতে কয়েক উপজেলার মানুষ। কালের খবর তাড়াশে শিক্ষক সালামের অনন্য মহতী উদ্যোগ। কালের খবর নবীনগরে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা। কালের খবর দশমিনায় তিন সন্তানের জননীর রহস্যজনক মৃত্যু। কালের খবর নবীনগরের লাউর ফতেহপুরে অসহায় পরিবারকে ঘর দিলেন প্রবাসী ঐক্য সংগঠন। কালের খবর বোয়ালমারীতে দেড় যুগ দরে অন্ধকার কুয়ার মধ্যে শিকল বন্দি রবিউল। কালের খবর
৪৫০ মিটার দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতু

৪৫০ মিটার দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতু

কালের খবর প্রতিবেদক : প্রথম ও দ্বিতীয় স্প্যানের পর তৃতীয় স্প্যান বসানো হয়েছে পদ্মা সেতুতে। তৃতীয় স্প্যানটি বসানোর কারণে ৪৫০ মিটার দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতু।


রবিবার সকাল ৬টা থেকেই শুরু হয় স্প্যান বসানোর আনুষঙ্গিক কাজ। সকাল ৯টার দিকে খুঁটির ওপর স্প্যান বসানোর মাধ্যমে দৃশ্যমান হয় প্রায় অর্ধ কিলোমিটারের সেতু।

এর আগে শনিবার বিকেলে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্য ও তিন হাজার ১৪০ টন ওজনের ¯প্যান বহনকারী ৩ হাজার ৬০০ টন ধারণ ক্ষমতার ভাসমান ‘তিয়ান ই’ ক্রেনটি ৩৯ ও ৪০ নম্বর খুঁটির এলাকায় পৌঁছায়।

পদ্মা সেতু প্রকল্পে দায়িত্বীল প্রকৌশরীরা জানান, স্প্যান বহনকারী ক্রেনটিকে ৩৯ ও ৪০ নম্বর খুঁটির সামনে পজিশন অনুযায়ী আনা হয়। এর পর লিফটিং ক্রেনের সাহায্যে অস্থায়ী বেয়ারিংয়ের ওপর রাখা হয় স্প্যানটিকে। তবে স্থায়ীভাবে বসতে কয়েকদিন সময় লাগবে। এ ছাড়া ¯প্যান ওঠানোর আগে যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা সফলভাবে স¤পন্ন করা হয়।

৭সি নম্বর স্প্যানটি শনিবার বিকাল সাড়ে ৩টায় এখানে পৌঁছে। এর আগে শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে প্রায় পৌনে এক কিলোমিটার দূরে ৩৪ ও ৩৫ নম্বর খুঁটির সামনে নোঙ্গর করা হয়েছিল। শনিবার এটি আবার এটি রওনা হয়ে গন্তব্যে পৌঁছায়। শনিবার বিকালে জাহাজটি নোঙ্গরের পরপরই ১২টি অ্যাঙ্কর দিয়ে এটি শক্ত করে নোঙর করার কাজ শুরু হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার বেলা ১২টায় মাওয়ার কুমারভোগের বিশেষায়িত ইয়ার্ডের জেটি থেকে প্রায় ৩২শ’ টন ওজনের ভাসমান ক্রেনবাহী জাহাজটি এ স্প্যানটি পাজা করে তুলে নিয়ে রওয়ানা হয়। ৩৭, ৩৮ ও ৩৯ নম্বর খুঁটির দুটি ¯প্যান বসানোর মাধ্যমে ৩০০ মিটার কাঠামো দৃশ্যমান হয়েছিল। ১ম স্প্যানটি স্থাপন করা হয় গত ৩০ সেপ্টেম্বর এবং দ্বিতীয় স্প্যানটি বসে গত ২৮ জানুয়ারি।

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ক্ষমতার ভাসমান ক্রেনের এ জাহাজটি জাজিরা প্রান্তের এবার দ্রুত সময়ের মধ্যে যথাযথ স্থানে পৌছে যায়। এদিকে ৩৬শ টন ধারণ ক্ষমতার ‘তিয়ান ই’ নামের বিশাল এ জাহাজ চলাচলে পদ্মা নদীর পানির গভীরতা ঠিক রাখার জন্যে নির্দিষ্ট চ্যানেলে ড্রেজিং অব্যাহত ছিল।

স্প্যান স্থাপনের পাশাপাশি অন্যান্য কাজও দ্রত গতিতে এগিয়ে চলেছে। ইতোমধ্যে নদীতে ১২২ পাইল স্থাপন হয়ে গেছে আরও ১১টি পাইলের বটম সেকশন সম্পন্ন হয়েছে। মাওয়া প্রান্তের ভায়াডাক্টের ১৭২টি পাইলের মধ্যে ৮৯টি পাইল বসে গেছে। অন্যান্য কাজও দ্রুত এগিয়ে চলেছে।

এ ছাড়া ৪১ নম্বর খুঁটির কাজও এগিয়েছে। তাই পরবর্তী সময়ে ৪ নম্বর স্প্যান বসানোর প্রস্তুতিও রয়েছে। এ ছাড়া ৪২ নম্বর কাজও এগোচ্ছে। ওপরে ওঠে গেছে মাওয়া প্রান্তের ৩ নম্বর খুঁটি। ৪ ও ৫ নম্বর খুঁটি ওপর দিকে উঠার পথে। এ ছাড়া ১৩, ১৪, ১৬, ১৭, ২১, ২২, ২৩, ৩৩, ৩৪ ও ৩৬ নম্বর খুঁটির কাজ এগিয় গেছে।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতুতে ৪২ খুঁটির ওপর বসবে ৪১টি ¯প্যান। পদ্মা বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com