বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
শেখ মনি কিশোর ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২৩ এর শুভ উদ্বোধন। কালের খবর হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে মুরাদনগরে ইউএনও’র তদন্ত : এলাকায় তোলপাড়। কালের খবর নবীনগরে সাংবাদিকের সাথে পল্লী বিদ্যুৎ ডি জি এম এর অশুভ আচরণে সাংবাদিকদের নিন্দার ক্ষোভ। প্রেমের টানে মেয়ের জামায়কে নিয়ে শ্বাশুড়ি উধাও। কালের খবর কুষ্টিয়ায় আড়াই মাসে সরকারি ধান সংগ্রহ এক ছটাকও হয়নি। কালের খবর সুন্দরগঞ্জে জেলা পরিষদের অর্থায়নে শীতবস্ত্র বিতরণ। কালের খবর আলতাফ মাহমুদকে স্মরণ করেছে শীর্ষ দুই সাংবাদিক সংগঠন। কালের খবর বাঘারপাড়ার ওয়াদীপুর আলিম মাদ্রাসার বেতন অনুমোদন হওয়ায় দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন। কালের খবর রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকার শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ। কালের খবর শাহজাদপুরে সাংবাদিকদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণের প্রতিবাদে প্রতিবাদ সভা । কালের খবর
চন্দ্রঘোনা থানার ওসি মাহমুদুল হাই আদালতে আত্মসমর্পণ করে ঘুষ-দূর্নীতির মামলার জামিন নিলেন

চন্দ্রঘোনা থানার ওসি মাহমুদুল হাই আদালতে আত্মসমর্পণ করে ঘুষ-দূর্নীতির মামলার জামিন নিলেন

কালের খবর প্রতিবেদন :

চট্টগ্রাম নগরীতে ঘুষ দাবি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নিয়েছেন চন্দ্রঘোনা থানার ওসি মাহমুদুল হাই। তার বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীকে হয়রানির অভিযোগে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন আদালত।

মঙ্গলবার মাহমুদুল চট্টগ্রাম মহানগরের সিনিয়র স্পেশাল জজ মো. শাহে নূরের আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। অভিযুক্ত দুই পুলিশ কর্মকর্তা ২০০৫ সালে নগরীর হালিশহর থানায় কর্মরত ছিলেন। মামলায় আনা অভিযোগের সময়কালও ২০০৫ সাল।

আমেরিকা প্রবাসী ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলী খানের কাছ থেকে ঘুষ দাবি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগে দায়ের করা একটি মামলায় মাহমুদুল এবং এসআই মো.আশরাফুল ইসলাম এর আদালতে হাজিরের নির্দেশনা ছিল। কিন্তু মাহমুদুল হাজির না হওয়ায় আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পিপি মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী। দুদক আইনজীবী মেজবাহ জানান, আসামিরা উচ্চ আদালতে যাওয়ায় গত ৮ বছর ধরে মামলাটি সচল ছিল না। ২০১৬ সালে আসামিদের রিট খারিজ হয়। এরপর সোমবার আসামিদের হাজিরের দিন নির্ধারণ করা হয়েছিল।

মামলার আরজিতে বলা হয়েছে, ২০০৫ সালের ১২ সেপ্টেম্বর একটি সড়ক দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলী খান এবং তার বন্ধুর প্রাইভেট কারের চালককে ঘুষের জন্য বিভিন্নভাবে হয়রানি করেন।

কয়েকটি মামলা দিয়েও তাদের হয়রানি করা হয়। ২০০৭ সালের ১৩ জুন চট্টগ্রাম মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। ২০০৯ সালের ২৮ জানুয়ারী মামলা আমলে নিয়ে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে ওই বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি হাজির হতে নির্দেশ দেন আদালত।

কালের খবর  /২০/২/১৮

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com