শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
যশোরের কেশবপুরে শান্তি স্থাপন ও সহিংসতা নিরসনে (পিএফজি, র) সভা অনুষ্ঠিত। কালের খবর রায়পুরার ছাত্রলীগ নেতা মামুনকে জড়িয়ে মিথ্যা ও হয়রানি মূলক ধর্ষণ মামলাসহ একাধিক মামলা করায় সর্বমহলে নিন্দা। কালের খবর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ এর ৫৬ ধারার প্রয়োগ’ শীর্ষক সেমিনারে.প্রধান অতিথি সিএমপি কমিশনার। কালের খবর সহিংসতা নয়-শান্তির জন্য আমরা-এই শ্লোগান কে সামনে রেখে বাঘারপাড়ায় অনুষ্ঠিত হলো (পিএফজির) সম্মিলিত কার্যক্রম ও পরিকল্পনা প্রণয়ন সভা। কালের খবর ঢাকা জেলা রেজিস্ট্রার অহিদুল ইসলাম সাময়িক বরখাস্ত। কালের খবর বাঘারপাড়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক লক্ষণ চন্দ্র মন্ডলের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক। কালের খবর যুবদের নেতৃত্বে সঠিক কর্মপরিকল্পনা গ্রহনের ফলে , সমাজে সহিংসতা নিরসন ও শান্তি স্থাপন হতে পারে। কালের খবর কোরবানির পশু প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সাতক্ষীরার খামারিরা। কালের খবর চট্টগ্রামের ইপিজেডে ছুরিকাঘাতে যুবক খুন, ঘটনায় জড়িত মূল হোতাসহ ২জন গ্রেপ্তার। কালের খবর রাজধানী ঢাকা শহরে কোনো ব্যাটারিচালিত রিকশা চলবে না : সড়ক পরিবহনমন্ত্রী। কালের খবর
শাহবাগ থানা কমিটি নিয়ে নানা অভিযোগ থানা-ওয়ার্ড কমিটি গঠনে তোড়জোড় নগর আ’লীগের। কালের খবর

শাহবাগ থানা কমিটি নিয়ে নানা অভিযোগ থানা-ওয়ার্ড কমিটি গঠনে তোড়জোড় নগর আ’লীগের। কালের খবর

 

স্টাফ রিপোর্টার, কালের খবর :
অবশেষে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের থানা ও ওয়ার্ড কমিটি গঠনের জট খুলেছে। দলের কেন্দ্রীয় নীতিনির্ধারক নেতাদের বারবার তাগাদা ও হুঁশিয়ারির পর এ নিয়ে জোরালো তৎপরতা শুরু করেছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। চলতি মাসের মধ্যভাগে সব কমিটি গঠন ও ঘোষণা করার কথা জানিয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। স্বচ্ছ ও পরিচ্ছন্ন ইমেজের অবিতর্কিত নেতাদের দিয়ে কমিটিগুলো গঠন করা হচ্ছে এমন দাবিও তাঁদের।
দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা বলছেন, এরই মধ্যে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের অধীন মোট ৫০টি থানা, ১৩৯টি ওয়ার্ড এবং একটি ইউনিয়নের প্রস্তাবিত কমিটি গঠনের কাজ প্রায় শেষ করে এনেছেন তাঁরা। যার মধ্যে মহানগর উত্তরে ২৬টি থানা, একটি ইউনিয়ন ও ৬৪টি ওয়ার্ড এবং মহানগর দক্ষিণে ২৪টি থানা ও ৭৫টি ওয়ার্ড কমিটি রয়েছে। বিদেশ সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা দেশে ফেরামাত্রই সম্মতি নেওয়ার জন্য প্রস্তাবিত কমিটিগুলো তাঁর কাছে দেওয়া হবে। দলীয়প্রধানের সম্মতি পেলে ১৫ মের মধ্যেই সব কমিটি ঘোষণার প্রস্তুতিও রেখেছেন মহানগর নেতারা।
জানা গেছে, শাহবাগ থানা-ওয়ার্ডসহ দক্ষিনের কমিটি গঠন নিয়ে চরম ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে পদপ্রত্যাশী নেতাদের মাঝে। এছাড়াও প্রস্তাবিত কমিটিতে ত্যাগী এবং পরিচ্ছন্ন ও স্বচ্ছ ইমেজের অধিকারীদের বাদ পড়ার গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। এর বদলে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের নেতাদের মোটা অংকের অর্থ দিয়ে দলে অনুপ্রবেশকারী ও বিতর্কিত লোকরা শীর্ষ পদ পেয়ে যাচ্ছেন-এমন খবরে ক্ষুব্ধ পদপ্রত্যাশী নেতাকর্মীরা। এমনকি নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের দলের কোনো কমিটিতে না আনার কেন্দ্রীয় নির্দেশনাও উপেক্ষিত হচ্ছে। থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদে একজন কাউন্সিলরকে আনার বিষয়টি প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। এই অবস্থায় কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ চাইছেন পদপ্রত্যাশীরা। এমনিতেই দীর্ঘদিনেও ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের আওতাধীন থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কমিটিগুলো গঠন ও ঘোষণা না হওয়ায় হতাশা চলছিল তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মধ্যে। যদিও গত বছরের অক্টোববের মধ্যে দুই অংশের আওতাধীন সকল থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিট সম্মেলনগুলো শেষ করা হয়। এরপর সম্মেলনস্থলেই মহানগর উত্তরের ৮০২টি এবং দক্ষিণের ৬১০টি ইউনিট কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণার পাশাপাশি সিংহভাগ ইউনিটি কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হয়। তবে তৃণমহৃল সম্মেলনের ছয়মাস পার হওয়ার পরও এখন পর্যন্ত কোনো থানা-ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি ঘোষণা হয়নি। এই অবস্থায় দলের কেন্দ্রীয় নীতিনির্ধারক নেতাদের পুনঃপুনঃ তাগাদা ও হুঁশিয়ারির পর এ নিয়ে জোরালো তৎপরতা শুরু করেছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। চলতি মাসের মধ্যভাগে সব কমিটি গঠন ও ঘোষণা করার কথা জানিয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের দুই অংশের নেতারা। গতকাল মঙ্গলবার দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। এখন দলীয় প্রধানের সম্মতি নেওয়ার জন্য প্রস্তাবিত কমিটিগুলো দুই-একদিনের মধ্যে তাঁর কাছে দেওয়া হবে। দলীয় প্রধানের সম্মতি পেলে ১৫ মে’র মধ্যেই সব কমিটি ঘোষণার প্রস্তুতিও রেখেছেন মহানগর নেতারা।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কেবল শাহবাগ থানা এবং এর অন্তর্গত ২০ ও ২১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটি গঠন নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় ব্যাপক অসন্তোষ চলছে। পদপ্রত্যাশী নেতাদের অভিযোগ, কমটি গঠনে গঠিত সাব-কমিটিকে পাশ কাটিয়ে মহানগর দক্ষিণের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবিরসহ দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা বিতর্কিত লোক দিয়ে প্রস্তাবিত কমিটিগুলো গঠন করেছেন। এক্ষেত্রে লাখ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে বলেও গুঞ্জন রয়েছে।
সূত্রমতে, শাহবাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে প্রস্তাব করা হয়েছে গত কমিটির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ শহীদের নাম। যার বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের মামলা চলমান রয়েছে। চাঁদাবাজিসহ বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগও রয়েছে এই নেতার বিরুদ্ধে। এর আগে শাহবাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে আসতে সদ্যবিদায়ী সভাপতি জিএম আতিকুর রহমানসহ মোট পাঁচ নেতা জীবনবৃত্তান্ত জমা দিলেও অর্ধকোটি টাকার বিনিময়ে মোহাম্মদ শহীদকেই বেছে নিয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। একইভাবে শাহবাগ থানার সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য জীবনবৃত্তান্ত জমা দিয়েছিলেন সদ্যবিদায়ী সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এমএ হামিদ খানসহ ১৭ জন নেতা। প্রস্তাবিত কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক পদে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আসাদুজ্জামান আসাদের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে। অথচ দলের দায়িত্বশীল তথা মহানগর কিংবা থানা-ওয়ার্ড কমিটির শীর্ষ পদে কোনো নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি তথা কাউন্সিলরকে না আনার বিষয়ে সুষ্পষ্ট নিষেধাজ্ঞা রয়েছে দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার। দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মহানগর কমিটির একাধিক সভা-সমাবেশেও এটা সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন। তা সত্ত্বেও দলীয় প্রধান ও দলের নীতিগত সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে কাউন্সিলর আসাদুজ্জামান আসাদকে শাহবাগ থানার সাধারণ সম্পাদক পদে আনার পেছনেও মোটা অংকের লেনদেন হওয়ার অভিযোগও উঠেছে। আবার আসাদ বর্তমানে মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সদস্য পদে রয়েছেন এবং তার বিরুদ্ধেও নানা সময় চাঁদাবাজিসহ বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগ উঠেছিল । ফলে তাকে থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদে আনা হলে দলের ‘এক নেতার দলের দুই কমিটিতে না থাকা’র নীতিও লঙ্ঘিত হবে-এমনটাও জানিয়েছেন পদপত্যাশী নেতারা। এছাড়া শাহবাগ থানার ২০ ও ২১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটি নিয়েও অভিযোগ উঠেছে। ২০ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি পদে নাম প্রস্তাব করা হয়েছে যুবদল থেকে দলে অনুপ্রবেশকারী হাসান মাহমুদের নাম। যিনি বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় ওয়ার্ড যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ছিলেন। শাহবাগ থানা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী সৈয়দ মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আমরা চাই মহানগর আওয়ামী লীগের তৃণমূল কমিটিগুলোতে ত্যাগীদের মূল্যায়ন করা হোক। অথচ প্রস্তাবিত কমিটিগুলোকে বিতর্কিতদের আনা হচ্ছে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com