বুধবার, ০৩ অগাস্ট ২০২২, ০৭:১২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
চলনবিলে খাল বিল শুকিয়ে নেমে এসেছে বিপর্যয়। কালের খবর ঢাকায় ৯ ফ্ল্যাট ২ প্লট পাসপোর্ট অধিদপ্তরের পরিচালকের রাজশাহীর ভদ্রায় ডিসির অনুমোদন নিয়ে চলছে পুকুর ভরাট সিদ্ধিরগঞ্জে দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে হত্যা করে লাশ গুমের হুমকি, থানায় অভিযোগ। কালের খবর ডিজিটাল আইনে মামলা দিয়ে সাংবাদিকদের হয়রানি করা হচ্ছে : বিএফইউজে। কালের খবর সাংবাদিক স্ত্রী প্রধান শিক্ষক মোসাম্মৎ রাশিদা আক্তারের দিত্বীয় মৃত্যুবার্ষিকী। কালের খবর লেবেল কেটে ২০ টাকার সিরাপ ৩৫ টাকায় বিক্রি করায় জরিমানা দিলেন ৩৭ হাজার। কালের খবর সখীপুরে এমপি’র অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা, সাংবাদিকদের মৌন মিছিল। কালের খবর আমিরাতে বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি। কালের খবর তাড়াশে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন। কালের খবর
জনগণের ওপর প্রতিশোধ নিতেই বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হচ্ছে : মির্জা ফখরুল। কালের খবর

জনগণের ওপর প্রতিশোধ নিতেই বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হচ্ছে : মির্জা ফখরুল। কালের খবর

কালের খবর রিপোর্ট :
সরকার জনগণের ওপর প্রতিশোধ নিতেই বিদ্যুতেসহ প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম দফায় দফায় বাড়িয়ে যাচ্ছে
বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বৃহস্পতিবার রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেন তিনি। এসময় বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি এবং আগামী মার্চ থেকে তা কার্যকরের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন ফখরুল। বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বর্তমান বিনা ভোটের সরকার জবাবদিহিতার তোয়াক্কা করে না বলেই একের পর এক গণবিরোধী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছে। বাংলাদেশ রেগুলেটরি কমিশন বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির কথা জানিয়েছে, যা মার্চ থেকে কার্যকর হবে। ইউনিট প্রতি বিদ্যুতের দাম বেড়েছে ৩৬ পয়সা। দাম বৃদ্ধিতে জনগণের নাভিশ^াস উঠলেও সরকার তা পরোয়া করে না। দুর্নীতি ও লুটপাটের ওপর নির্ভর করার জন্য জনগণের কষ্টের কথা বিবেচনায় না নিয়ে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে।

ইতিপর্বে কয়েকবার বিদ্যুতের মুল্য বৃদ্ধির কারণে দেশের মানুষ যখন ক্ষব্ধ তখন আবারও নতুন করে বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধিতে জনগণ এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে। ফখরুল আরো বলেন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলেই বর্তমান সরকার জনগণের ভালমন্দ বিচার করতে চায় না। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তাদের ব্যাপক পরাজয় হবে, সেজন্য জনগণের ওপর প্রতিশোধ নিতেই দফায় দফায় বিদ্যুৎসহ প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করছে তারা। সরকারের উন্নয়ন বুলির আড়ালে লুটপাটের মহোৎসবের কাহিনী এখন মানুষের মুখে মুখে। বিদ্যুতের এই মূল্য বৃদ্ধি সরকারের লুটপাটেরই বর্ধিত প্রকাশ। এই মূল্য বৃদ্ধিতে অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। স্বল্প আয়ের বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীরা দুুর্বিষহ অবস্থায় পড়বে। কলকারখানা ও কৃষিতে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হবে। সরকারের প্রতিটি নীতি হচ্ছে হরিলুটের নীতি, জনগণ মরে যাক, তাতে সরকারের কিছুই আসে যায় না। গণবিরোধী সরকারের অংকটি খুবই সোজা। তারা চুরি করে ক্ষতির টাকা জনগণের পকেট থেকে কর্তন করবে। বিবৃতিতে বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তিনি।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com