শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:৪৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
যাত্রাবাড়িতে সকাল-বিকাল চলে বৈঠক আ’লীগের তৃণমূল নেতা-কর্মীরা উজ্জীবিত। কালের খবর দক্ষিণ সুরমায় ভয়াবহ দুর্ঘটনা ১১ জন নিহত। কালের খবর শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় পালিত হল এমপি রহমত আলীর মৃত্যু বার্ষিকী। কালের খবর কালীগঞ্জে তিন মোটরসাইকেলের সংর্ঘষে তিন জন নিহত। কালের খবর শিশু তুবা মায়ের বিয়ের খবর দেখে টেলিভিশনে। কালের খবর জুট কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। কালের খবর ট্রাফিক পুলিশের হাতের ইশারায় গাড়ির চাকা থামে ঘোরে। কালের খবর সাংবাদিক মুজাক্কিরের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে আলটিমেটাম। কালের খবর বাড়ছে উৎপাদন চায়ের বাজারে নতুন ‘সাদা সোনা’ ইউপি নির্বাচনে ইমানুজ্জামান পল্লবকে ‘নৌকা প্রতীক দিতে সলিমগঞ্জবাসীর উঠান বৈঠক। কালের খবর
মানুষের কল্যাণই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী। কালের খবর

মানুষের কল্যাণই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী। কালের খবর

এম আই ফারুক আহমেদ, কালের খবর :
প্রধানমন্ত্রীত্ব নয়, জাতির পিতার কন্যা হিসেবেই গর্ব অনুভব করেন বলে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এ পদটাকে কিভাবে উপভোগ করবো সেই চিন্তা আমি করি না, মানুষের কল্যাণে নিজেকে কতটুকু নিয়োজিত করতে পারলাম সেটাই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারের মেয়াদেও শেষ কর্মদিবসে কার্যালয়ের সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে একথা বলেন।

আবেগাপ্লুত কণ্ঠে শেখ হাসিনা বলেন, আমি কিন্তু নিজেকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চিন্তা করি না। আমি হচ্ছি বাবার কন্যা ‘ফাদারস ডটার। ’ সন্তান হিসেবে আমি আমার দায়িত্ব পালন করি। আমি জাতির পিতার কন্যা।

তিনি বলেন, আমি আপনাদের কাছে এটুকুই চাইবো আপনারা সবসময় আমাকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের কন্যা হিসেবেই আপনাদের একান্ত আপনজন হিসেবে দেখবেন। সেটাই আমি চাই। সেটাইতেই আমি গর্বিত বোধ করি। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নয়।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রধানমন্ত্রীত্ব, এটা একটা দায়িত্ব পেয়েছি।

কাজ করার সুযোগ পাই এর মাধ্যমে। দেশের কল্যাণ করার একটা সুযোগ পাই। সেটাই আমার কাছে বড়।
সরকারি কর্মচারীদের তাদের দায়িত্বের কথাও স্মরণ করিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, আমি থাকি বা থাকি, আপনাদের কাছে আবেদন এটাই থাকবে আপনারা কিন্তু আপনাদের দায়িত্বটা যথাযথভাবে পালন করবেন, কারণ আপনারা সরকারি কর্মচারী।

তিনি বলেন, আপনাদের বেতন-ভাতা কিন্তু বাংলাদেশের ওই সাধারণ মানুষের ট্যাক্সের টাকাতেই হয়। কাজেই তাদের সেবা করা, তাদের কল্যাণ করা, এটাও আপনাদেরই দায়িত্ব।

সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় থাকার ওপর গুরুত্বারোপ করে শেখ হাসিনা বলেন, ১০ বছর একটানা থাকায় অনেক কাজ করে যেতে পেরেছি। এখনও বহুকাজ বাকি। সেটাও নির্ভর করে বাংলাদশের জনগণের ওপর ৩০ তারিথে যদি তারা ভোট দেয় তাহলে আবার আসতে পারবো এবং কাজগুলোকে শেষ করতে পারবো।

তিনি বলেন, আর তা নইলে মানুষের ভাগ্য মানুষ বেছে নেবে। এখানে আমার কোনো ক্ষোভ বা দুঃখ নেই। কেননা আমার নিজের জীবনে চাওয়া- পাওয়ার কিছু নেই,’ যোগ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক বেগম নাসরিন আফরোজ, প্রেস সচিব ইহসানুল করিম, এসএসএফ’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মুজিবুর রহমান, প্রটোকল অফিসার খুরশীদ আলম, সহকারী পরিচালক মো. মকবুল হোসেন, একান্ত সচিব (২) বক্তব্য রাখেন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com