বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
শারদীয় দূর্গোৎসবের শুভ মহা অষ্টমী নবীনগর সদরকে যাানজট মুক্ত রাখতে উপজেলা প্রশাসনের বিশেষ অভিযান। কালের খবর সীতাকুণ্ডে আ’লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা। কালের খবর মেহেরপুরের আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস পালিত। কালের খবর নবীনগর সদর বাজারের ময়লায় দূষণ হচ্ছে পরিবেশ দখল হচ্ছে তিতাস নদী!। কালের খবর বাঞ্ছারামপুরে সীমা লঙ্ঘন করে বালু উত্তোলন গ্রামবাসীও বালুমহালের সঙ্গে সংঘর্ষের আশঙ্কা। কালের খবর মৌলভীবাজারে শ্রীমঙ্গল র‍্যাব ৯ অভিযানে গাঁজা উদ্ধার-গ্রেফতার ২ জন। কালের খবর মেহেরপুরে অস্ত্র ও বোমা উদ্ধার। কালের খবর নবীনগর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ৫১ সদস্য বিশিষ্ট নাটঘর ইউনিয়ন কমিটি গঠন। কালের খবর অভিনয়ের মাধ্যমে নিজেকে ফুটিয়ে তুলতে চাই নড়াইলের – সোহাগ হোসেন। কালের খবর
গণসংযোগের সময় বিএনপির প্রার্থী আশফাক আটক। কালের খবর

গণসংযোগের সময় বিএনপির প্রার্থী আশফাক আটক। কালের খবর

প্রতিনিধি, নবাবগঞ্জ,কালের খবর  :

নির্বাচনী গণসংযোগের সময় ঢাকা-১ আসনের (দোহার-নবাবগঞ্জ) বিএনপির প্রার্থী খন্দকার আবু আশফাককে আটক করেছে পুলিশ। আজ বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে তাঁকে আটক করে দোহার থানা- পুলিশ। তবে পুলিশের বক্তব্য, ব্যক্তিগত নিরাপত্তার স্বার্থে তাঁকে থানায় নেওয়া হয়েছে।

বিএনপির নেতা-কর্মীদের সূত্রে জানা গেছে, আজ বেলা দুইটা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত দোহারের বাঁশতলা মোড় থেকে করম আলী মোড় হয়ে জয়পাড়া পর্যন্ত তাদের প্রার্থীর নির্বাচনী গণসংযোগ ছিল। কিন্তু বিকেল পাঁচটার দিকে এই প্রচারণা থেকে পুলিশ তাঁকে আটক করে নিয়ে যায়।

আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাজ্জাদ হোসেন কালের খবরকে  বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে ঝামেলা হওয়ার আশঙ্কা ছিল বলে প্রার্থীর নিরাপত্তার স্বার্থে তাঁকে থানায় নেওয়া হয়েছে।’ তবে খন্দকার আবু আশফাককে ছেড়ে দেওয়া হবে কি না, এমন প্রশ্নের কোনো জবাব দেননি ওসি।

নবাবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার কালাম বলেন, ‘আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বাধা দিয়েছে এবং অন্যায়ভাবে আমাদের নেতাকে তুলে নিয়েছে।’

দোহার উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. শাহাবুদ্দিন অভিযোগ করেন, ‘সরকার দলীয় প্রার্থী দিন–রাত প্রচার চালাচ্ছে। কিন্তু তাদের কোন ধরনের বাধা দেওয়া হচ্ছে না। আর আমরা মাঠেই নামতে পারছি না।’ তিনি দাবি করেন, পুলিশ বিএনপির নেতা-কর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হয়রানি করছে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com