সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:৪৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মুরাদনগরে জমকালো আয়োজনে বীর মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ফাউন্ডেশনের কার্যালয় উদ্বোধন। কালের খবর নবীনগরে নূরজাহানপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৬টি ঘর বিক্রির অভিযোগ। কালের খবর সখীপুরে স্বামী-স্ত্রীর দীর্ঘদিনের কলহের অবসান। কালের খবর এয়ারপোর্টে শুল্ক না দিয়ে বিদেশ থেকে আনা যাবে যে জিনিসগুলো। কালের খবর মুরাদনগরে স্কুল ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী করার অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার। কালের খবর ফরিদপুরে মামলার হাজিরা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে কুপিয়ে জখম। কালের খবর প্রধানমন্ত্রীর উপহার সহ, বিভিন্ন ব‍্যক্তি ও প্রতিষ্টানেের শীতবস্ত্র বিতরণ অব‍্যাহত। কালের খবর তাড়াশ উপজেলার মাটি ও আবহাওয়া অনুকূল ভাল থাকায় খিরা চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা। কালের খবর শেখ মনি কিশোর ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২৩ এর শুভ উদ্বোধন। কালের খবর হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে মুরাদনগরে ইউএনও’র তদন্ত : এলাকায় তোলপাড়। কালের খবর
শালিখায় পাঁচ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে হত্যার হুমকি। কালের খবর

শালিখায় পাঁচ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে হত্যার হুমকি। কালের খবর

শালিখা (মাগুরা) প্রতিনিধি, কালের খবর : চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাগুরার শালিখা উপজেলার শরুশুনা গ্রামের মৃত হাবিবুর রহমানের স্ত্রী জরিনা খাতুন (৬০) নামের এক মহিলা ও তার ছেলেকে হত্যার হুমকি দিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগকারী জরিনা খাতুন জানান, উপজেলার ৫নং শালিখা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার আকরাম মোল্লা, বাবা সাহেদ মোল্লা ও হাজরাহাটি গ্রামের মশিয়ার রহমানের ছেলে সবুজ হোসেন মিলে আমার কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা না দেয়ায় একের পর এক আমাকে ও আমার ছেলে আব্বাস উদ্দীনকে হত্যার অব্যাহত হুমকি দিয়ে চলেছে। হুমকির প্রেক্ষিতে নিরাপত্তাহীনতায় আছি আমি ও আমার ছেলেসহ পরিবারের লোকজন। তিনি আরো জানান, গত রমজানের ঈদের সময় টেকের বাজার হাজরাহাটি এলাকায় অবস্থিত আমার ছেলে ডা. আব্বাস উদ্দীনের মেডিকেল ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে আনুমানিক রাত ১০টার পর আকরাম মেম্বার ও সবুজ হোসেন দুজনে মিলে প্রশান্ত ড্রাইভারের মাইক্রো করে আলট্রাসনোগ্রাম মেশিন চুরি করে নিয়ে যায়। চুরির ঘটনাটি টের পেয়ে আকরাম ও সবুজের কাছে জানতে চাওয়ার পর থেকেই তারা নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে বলে ঘটনাটি কাউকে বললে তোকে এবং তোর ছেলেকে জানে মেরে ফেলব বলে আরো আমার কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা না দেয়ায় আমাকে ও আমার ছেলেকে খুন করে ফেলবে মর্মে অব্যাহত হুমকি দিয়ে চলেছে। আমার ছেলে ডা. মো. আব্বাস উদ্দীন শালিখা হাসপাতালের একজন মেডিকেল অফিসার। এ ব্যাপারে ডা. আব্বাস উদ্দীনের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, আমার ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে জখন আলট্রাসনো মেশিন চুরি হয় তখন আমি ঢাকা মেডিকেল কলেজে ট্রেনিংয়ে ছিলাম। ছয় মাসের ট্রেনিং শেষে কর্মস্থলে এসে আমি মেশিন চুরির বিষয়টি জানতে পারি। মেশিন কোথায় আছে জানতে চাইলে মাইক্রো ড্রাইভার প্রশান্ত বলে আকরাম মেম্বার ও হাজরাহাটি গ্রামের মশিয়ার রহমানের ছেলে সবুজ আলট্রাসনো মেশিন বাড়িতে নিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী জরিনা খাতুন ও তার ছেলে ডা. আব্বাস উদ্দীন প্রশাসনের আশু দৃষ্টি কামনা করেছেন। : :

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com