শুক্রবার, ০৯ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
শাহজাদপুরে বাঁশের সাঁকোয় ১০ গ্রামের ৫০ হাজার মানুষের ঝূঁকিপূর্ণ চলাচল। কালের খবর তালতলীতে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ, অভিযুক্ত গ্রেফতার। কালের খবর “পোরশা “ধুলাডাঙ্গা গ্রামে খড়ের পালায় আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। কালের খবর মানুষের কল্যাণে নিজেকে বিলিয়ে দিতে চান আলহাজ্ব আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সী। কালের খবর ভূরুঙ্গামারীর মেয়ে উত্তীর্ণ হলেন মেডিকেলে, চিন্তার ভাঁজ হকার বাবার কপালে। কালের খবর সীতাকুণ্ডে সম্মাননা পেলেন নারী নেত্রী সুরাইয়া বাকের। কালের খবর শ্রীপুরে লিচুর মধু সংগ্রহসহ লিচুর উৎপাদনও বাড়ছে। কালের খবর মুন্সীগঞ্জ নৌ পুলিশের অভিযানে কারেন্ট জাল জব্দ। কালের খবর সখীপুরে অপহরণের ৬ দিন পর আড়াই মাসের সেই শিশু উদ্ধার, আটক ৩। কালের খবর রাজধানীতে খাবার ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেছে আওয়ামী লীগ। কালের খবর
সাতক্ষীরায় গৃহবধূকে গাছে বেঁধে প্রকাশ্যে নির্যাতন। কালের খবর

সাতক্ষীরায় গৃহবধূকে গাছে বেঁধে প্রকাশ্যে নির্যাতন। কালের খবর

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি, কালের খবর : সাতক্ষীরায় এক নারীকে আমগাছের সঙ্গে বেঁধে প্রকাশ্যেনির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার বিকালে সদর উপজেলার ভাড়–খালি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছে।

নির্যাতিত ওই নারী (৫০) জাহাবক্স সরদারের স্ত্রী এবং একই এলাকার ওয়াজেদ সরদারের মেয়ে।

গ্রামবাসী জানান, কিছু দিন ধরে ওই নারী সম্পর্কে অশালীন কথাবার্তা বলে আসছিলেন গ্রামের কয়েকজন লোক। এ নিয়ে পাল্টা মুখ বলাবলি এমনকি পরে শত্রু তারও সৃষ্টি হয়। এই শত্রু তার জেরে শনিবার বাড়িতে লোকজন না থাকার সুযোগে সালেহাকে একটি আমগাছের সঙ্গে বেঁধে অশোভন ভাষায় গালাগাল করতে থাকেন আবদুর রহমান ও তার ভাই মুজিবর রহমান।

এ খবর সঙ্গে সঙ্গে জানাজানি হয়। এমনকি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ নির্যাতিত গৃহবধূকে উদ্ধার করে। এ সময় গ্রেফতার করা হয় আবদার রহমান, তার স্ত্রী, ছেলে ফিরোজ রহমান ও ভাই মুজিবর রহমানকে।

সালেহার স্বামী জাহাবক্স বলেন, স্ত্রীকে রহমান ও কয়েকজন কুপ্রস্তাব দিতে থাকেন। বিষয়টি বাড়িতে জানালে এর প্রতিবাদও করি আমরা। কিন্তু বাড়িতে না থাকার সুযোগে তারা স্ত্রীকে গাছে বেঁধে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করেছে। তিনি এর ন্যায্য বিচার দাবি করেন।

সদর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নির্যাতিত নারীকে সসম্মানে মুক্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com