শুক্রবার, ০৯ এপ্রিল ২০২১, ০৩:২০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
শাহজাদপুরে বাঁশের সাঁকোয় ১০ গ্রামের ৫০ হাজার মানুষের ঝূঁকিপূর্ণ চলাচল। কালের খবর তালতলীতে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ, অভিযুক্ত গ্রেফতার। কালের খবর “পোরশা “ধুলাডাঙ্গা গ্রামে খড়ের পালায় আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। কালের খবর মানুষের কল্যাণে নিজেকে বিলিয়ে দিতে চান আলহাজ্ব আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সী। কালের খবর ভূরুঙ্গামারীর মেয়ে উত্তীর্ণ হলেন মেডিকেলে, চিন্তার ভাঁজ হকার বাবার কপালে। কালের খবর সীতাকুণ্ডে সম্মাননা পেলেন নারী নেত্রী সুরাইয়া বাকের। কালের খবর শ্রীপুরে লিচুর মধু সংগ্রহসহ লিচুর উৎপাদনও বাড়ছে। কালের খবর মুন্সীগঞ্জ নৌ পুলিশের অভিযানে কারেন্ট জাল জব্দ। কালের খবর সখীপুরে অপহরণের ৬ দিন পর আড়াই মাসের সেই শিশু উদ্ধার, আটক ৩। কালের খবর রাজধানীতে খাবার ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেছে আওয়ামী লীগ। কালের খবর
মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা ব্যক্তিমালিকানাধীন ক্লিনিক নিয়ে ব্যস্ত। কালের খবর

মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা ব্যক্তিমালিকানাধীন ক্লিনিক নিয়ে ব্যস্ত। কালের খবর

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি, কালের খবর  :
যশোরের মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা ব্যক্তিমালিকানাধীন ক্লিনিকে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এ কারণে সরকারি স্বাস্থ্যসেবা হ-য-ব-র-ল অবস্থায় চলছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৭টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত এ উপজেলা; যার বর্তমান লোকসংখ্যা প্রায় পাঁচ লাখ। জনগণের স্বাস্থ্যসেবার জন্য ৫০ শয্যাবিশিষ্ট মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩৯ জন চিকিৎসকের পদ রয়েছে। বাস্তবে কর্মরত চিকিৎসক ৯ জন।

স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আব্দুল গফ্ফার পাশের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া শিল্প শহরে তাঁর ডক্টরস ক্লিনিকে ব্যস্ত থাকেন। ডেন্টাল সার্জন আব্দুল্লাহ আল মামুন যশোর শহরে নিজস্ব প্রতিষ্ঠান ডেন্টিস্ট পয়েন্ট নিয়ে থাকেন সার্বক্ষণিক ব্যস্ত। মাঝেমধ্যে কর্মস্থলে গেলেও তা থাকেন অল্প সময়ের জন্য। গাইনি চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত ডা. রেবেকা সুলতানা। তিনি যশোর শহরের একটি খ্যাতনামা প্রাইভেট হাসপাতালে ব্যস্ত সময় পার করেন।

সম্প্রতি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেলে সেবা নিতে আসা ভরতপুর গ্রামের আব্দুল গণি বলেন, ‘দাঁতের যন্ত্রণায় ছটফট করছি।

দুই দিন ধরে এসেও ডাক্তার দেখাতে পারলাম না। আর হাসপাতালে আসব না। ’
ভর্তি হওয়া রোগী শাহিদুর রহমান বলেন, ‘তিন বেলা আমাদের যে খাবার দেওয়া হয় তা নিম্নমানের; যার আনুমানিক মূল্য ৫০ থেকে ৬০ টাকা হতে পারে। অথচ রোগীপ্রতি ১২৫ টাকা বরাদ্দ। ’

এদিকে গত ১৪ আগস্ট মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে এক নবজাতক পাচারের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে প্রাথমিকভাবে দুজন নার্সকে সাময়িকভাবে কাজকর্ম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। নবজাতক পাচারের ঘটনা নিয়ে এলাকার মানুষের মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের চিকিৎসার পাশাপাশি খাদ্য বিতরণেও রয়েছে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে রয়েছে একটি করে স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র। বাস্তবে প্রতিষ্ঠান থাকলেও নেই প্রয়োজনীয় জনবল। ইউনিয়ন স্বাস্থ্য সহকারীর ১৭টি পদের বিপরীতে রয়েছে দুজন। স্বাস্থ্য সহকারী পদে ৬৫ জনের বিপরীতে রয়েছে ৩৮ জন। স্বাস্থ্য পরিদর্শকের চারটি পদ শূন্য। সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শকের ১৩টি পদের বিপরীতে রয়েছে তিনজন। জরুরি রোগী বহনের জন্য একমাত্র অ্যাম্বুল্যান্সটিও দীর্ঘদিন ধরে অকেজো অবস্থায় পড়ে আছে।

সরেজমিনে গিয়ে কথা হয় হাসপাতালের প্যাথলজিস্ট আনিছুর রহমানের সঙ্গে। তিনি ক্ষোভের সঙ্গে  কালের খবরকে  বলেন, ‘এ হাসপাতালে প্যাথলজিস্ট বিভাগে জনবল পাঁচজন। কিন্তু দীর্ঘদিন লোকবল না থাকায় একমাত্র আমিই চালাচ্ছি এ বিভাগটি। ’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. আব্দুল গফ্ফার  কালের খবরকে  বলেন, ‘অনিয়ম ও দুর্নীতির কোনো প্রশ্নই আসে না। জনবল সংকটের কারণে স্বাস্থ্যসেবার কিছু ত্রুটিবিচ্যুতি থাকতে পারে। ’

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com