শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
তাড়াশ উপজেলার মাটি ও আবহাওয়া অনুকূল ভাল থাকায় খিরা চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা। কালের খবর শেখ মনি কিশোর ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২৩ এর শুভ উদ্বোধন। কালের খবর হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে মুরাদনগরে ইউএনও’র তদন্ত : এলাকায় তোলপাড়। কালের খবর নবীনগরে সাংবাদিকের সাথে পল্লী বিদ্যুৎ ডি জি এম এর অশুভ আচরণে সাংবাদিকদের নিন্দার ক্ষোভ। প্রেমের টানে মেয়ের জামায়কে নিয়ে শ্বাশুড়ি উধাও। কালের খবর কুষ্টিয়ায় আড়াই মাসে সরকারি ধান সংগ্রহ এক ছটাকও হয়নি। কালের খবর সুন্দরগঞ্জে জেলা পরিষদের অর্থায়নে শীতবস্ত্র বিতরণ। কালের খবর আলতাফ মাহমুদকে স্মরণ করেছে শীর্ষ দুই সাংবাদিক সংগঠন। কালের খবর বাঘারপাড়ার ওয়াদীপুর আলিম মাদ্রাসার বেতন অনুমোদন হওয়ায় দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন। কালের খবর রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকার শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ। কালের খবর
এনটিভির এসএম আতিক তামাক নিয়ন্ত্রণ সাংবাদিকতা পুরস্কার পেলেন । কালের খবর

এনটিভির এসএম আতিক তামাক নিয়ন্ত্রণ সাংবাদিকতা পুরস্কার পেলেন । কালের খবর

মো: মুক্তার হোসেন সানি,  কালের খবর,  ঢাকা  :
প্রতিবেদন তৈরির মাধ্যমে ধূমপান এবং তামাক নিয়ন্ত্রণে সচেতনতা সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় ‘প্রজ্ঞা তামাক নিয়ন্ত্রণ সাংবাদিকতা পুরস্কার ২০১৮’ পেয়েছেন এনটিভির সিনিয়র করেসপনডেন্ট এসএম আতিক। এ ছাড়া আরো চার সাংবাদিকও পেয়েছেন এই পুরস্কার।
আগামী ৩১ মে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষে আজ রোববার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে প্রজ্ঞা ও অ্যান্টি ট্যোবাকো মিডিয়া অ্যালায়েন্স-আত্মা এই তামাক নিয়ন্ত্রণ সাংবাদিকতা পুরস্কারের আয়োজন করে। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সাংবাদিকদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

২০১৮ সালের সেরা স্থানীয় পত্রিকা রিপোর্ট ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন দৈনিক সিলেটের ডাক পত্রিকার প্রধান প্রতিবেদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, সেরা জাতীয় প্রিন্ট/অনলাইন মিডিয়া বিভাগে দ্য ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট দৌলত আক্তার মালা এবং দৈনিক কালের কণ্ঠের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক আবুল কাসেম এবং সেরা টিভি রিপোর্টে এনটিভির সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট এসএম আতিক। এছাড়াও জুরি বোর্ডের মনোনয়নে বিশেষ সম্মাননা পেয়েছেন বরিশালের দৈনিক কীর্তনখোলার প্রধান প্রতিবেদক গোলাম মর্তুজা জুয়েল। তিনি বর্তমানে বরিশালের দৈনিক আজকের পরিবর্তনে কর্মরত।
আলোচনা অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী জানান, ২০২০ সালে পাঠ্যপুস্তকে তামাকের ক্ষতিকর দিকগুলো সংযুক্ত করা হবে। এতে শিক্ষার্থীরা নিজে সচেতন হবে ও পরিবারের সদস্যদের সচেতন করবে বলে আশা করেন তিনি। অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী তামাকের ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে আইনের প্রয়োগ ও ব্যাপক জনসচেতনতার ওপর জোর দেন। তিনি বলেন, স্কুল-কলেজের আশেপাশে পাঁচশ মিটারের মধ্যে তামাকপণ্য বিক্রি বন্ধের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।
তামাক মুক্ত দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘তামাক ও হৃদরোগ’। আলোচনায় বক্তারা আসন্ন বাজেটে তামাক পণ্যে উচ্চ হারে করারোপের দাবি জানান।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার ডা. আব্দুল মালিক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদসহ অন্যরা।

    দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন । 

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com