বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বর্জ্য দূষণ ও দখলে বিপর্ণ কর্ণফুলী নদী। কালের খবর সখীপুরে পুলিশ কর্মকর্তাকে থাপ্পড় দেওয়ায় প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার। কালের খবর ধীরগতির উন্নয়নে ডেমরা-যাত্রাবাড়ী ৬ লেন সড়কে চলাচলকারীদের ভোগান্তি চরমে রাজশাহীতে সাংবাদিক সমাবেশ : অবিলম্বে গাজীসহ কারাবন্দী সাংবাদিকদের মুক্তি দাবি। কালের খবর আতাউস সামাদ ছিলেন একটি প্রতিষ্ঠান তাড়াশ চলন বিলে নৌকা ভ্রমণের নামে চলছে অশ্লীলতা!। কালের খবর ডেমরায় আঞ্জুমান আরা মিতু হত্যার রহস্য উম্মোচন চ্যাম্পিয়ন চা-পাতা দিয়ে তৈরী চা মাসে ৭৫ হাজার টাকা বিক্রি করে স্বাবলম্বী আনোয়ারা। কালের খবর “নবজাগরণ “( নসাস) আত্মপ্রকাশ : আহবায়ক অলিদ তালুকদার ও সদস্য সচিব এডভোকেট স্বপ্নীল। কালের খবর ফিলিপাইন জাতের আখ চাষে চেয়ারম্যানের সফলতা। কালের খবর
কাগজের ঠোঙ্গা এবং জুতার ব্যাগ তৈরি করে দারিদ্রকে জয় করেছে মঞ্জুয়ারা খাতুন

কাগজের ঠোঙ্গা এবং জুতার ব্যাগ তৈরি করে দারিদ্রকে জয় করেছে মঞ্জুয়ারা খাতুন

কালের খবর প্রতিবেদক :  নওগাঁর মান্দা উপজেলার  নদীর বাঁধ সংলগ্ন ছোট বেলালদহ গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে কাগজের ঠোঙ্গা এবং জুতার ব্যাগ তৈরি করে দারিদ্রকে জয় করেছে মঞ্জুয়ারা খাতুন। মান্দা উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের ছোট বেলালদহ গ্রামের মঞ্জুয়ারা খাতুনের স্বামী সিদ্দিক ও ২ মেয়ে নিয়ে ৪ জনের অভাবী সংসার।

একসময় দু’বেলা পেটপুরে ভাত জুটত না। অভাবের সংসারে দিশাহারা মঞ্জুয়ারা একটি কাজের জন্য এদিক ওদিক ছুটতেন সারাক্ষণ। তার দুঃখ-দুর্দশার কথা শুনে তাকে কাগজের ঠোঙ্গা, মিষ্টির কার্টন, শপিং ব্যাগ তৈরির প্রদান করান। মঞ্জুয়ারা জানায়,গত ২ বছর পূর্বে তিনি এ কাজ শুরু করেন। এরপর তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

বর্তমানে তিনি ও তার মেয়ে জীবন জীবিকার তাগীদে চুক্তির মাধ্যমে শতকরা ২৫ টাকায় ঠোঙ্গা তৈরি করে এবং তার স্বামী দিন মজুরের কাজ করেন। মহাজনের কাছ থেকে নেওয়া প্রয়োজনীয় উপকরণ আঠা, কাগজ, ষ্ট্যাপলার পিন দিয়ে ঠোঙ্গা তৈরী করে থাকেন। স্থানীয় মহাজন প্রকাশ তৈরীকৃত ঠোঙ্গা সংগ্রহ করে উপজেলার বিভিন্ন কনফেকশনারি, হোটেল-রেস্তোরাঁয় ও মার্কেটের দোকানগুলোতে সরবরাহ করেন। টিনের চালা বেড়ার ঘরে বসবাস করেন তিনি। ঠোঙ্গা তৈরী করে তার যা মাসিক আয় হয় তা দিয়ে চলে সংসার ।

তার তৈরিকৃত ঠোঙ্গা, কার্টন, জুতার ব্যাগের চাহিদা বেড়ে গেছে। তার মেয়েরা লেখাপড়া শেষে অবসর সময়ে মাকে ঠোঙ্গা, কার্টন, শপিং ব্যাগ তৈরি করতে সাহায্য করেন। ঠোঙ্গা, কার্টন, জুতার ঠোঙ্গা তৈরি করে মেয়েদের লেখাপড়া এবং সংসারের খরচ চালান।

বড় মেয়ে নাসরিন এবারে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। ছোট মেয়ে নাজনীন তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ে । কাগজের ঠোঙ্গা তৈরি কারিগর মঞ্জুয়ারা খাতুন বলেন, ঠোঙ্গা, কার্টন,জুতার ব্যাগ তৈরি করে তার সংসার বেশ ভালোই চলছে। মঞ্জুয়ারা খাতুনের স্বামী সিদ্দিক জানান, আমাদের সংসারে এখন সুখ-শান্তি, হাসি-আনান্দ ফিরে এসেছে। এখন আর দুবেলা না খেয়ে থাকতে হয় না।

মান্দা উপজেলার কুসুম্বা ইউপি চেয়ারম্যান নওফেল আলী জানান, সিদ্দিক ও মঞ্জুয়ারা খাতুন তারা দুজনে এক সময় খুব কষ্ট করেছে। তারা এখন কাগজের ঠোঙ্গা, কার্টন, তৈরি করে তাদের সংসারে স্বচ্ছলতা ফিরে এসেছে। তাদের মেয়েদেরও এখন স্কুলে পাঠায়। তিনি মঞ্জুয়ারার মতো অন্যদেরও প্রশিক্ষণ নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com