বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নবীনগরে ইউপি নির্বাচনে আ. লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা ভাড়াটিয়ার চুক্তির মেয়াদ শেষ হলেও ঘর না ছাড়ায়, মালিকের সংবাদ সম্মেলন। কালের খবর বার আউলিয়া হাইওয়ে পুলিশের রমরমা ঘুষ বাণিজ্য। কালের খবর বিএফইউজের সভাপতি ওমর ফারুক, মহাসচিব দীপ আজাদ। কালের খবর আ.লীগ নেতা আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। কালের খবর ওয়াজ মাহফিলে রাষ্ট্র বিরোধী কোন বক্তব্য বরদাস্ত করা হবেনা–ধর্ম প্রতিমন্ত্রী। কালের খবর জনতা ব্যাংক লিমিটেড, মেহেরপুর শাখার উদ্যোগে অটোমেটেড চালান প্রক্রিয়ার উদ্বোধন। কালের খবর শ্রীমঙ্গলে স্কুলের সরকারি বই বিক্রি দিলেন প্রধান শিক্ষক। কালের খবর দুই শতাধিক বিদ্যুতের খুঁটিতে ব্যাহত হচ্ছে ডেমরা-যাত্রাবাড়ী সড়ক উন্নয়ন কাজ পূর্বাচলে আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী কেন্দ্রের উদ্বোধন। কালের খবর
সিরাজগঞ্জে চলনবিলে শামুক-ঝিনুক নিধন করছে অসৎ ব‍্যবসায়ীরা। কালের খবর।

সিরাজগঞ্জে চলনবিলে শামুক-ঝিনুক নিধন করছে অসৎ ব‍্যবসায়ীরা। কালের খবর।

মোঃ মুন্না হুসাইন তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি, কালের খবর : ঐতিহাসিক চলনবিল অঞ্চলের সিরাজগঞ্জের তাড়াশ ও উল্লাপাড়া উপজেলার বিভিন্ন স্থানে শামুক ও ঝিনুক নিধন করছে অসৎ মৎস্যজীবীরা। স্থানীয় প্রশাসন এ জলজ প্রাণী নিধন রোধে ব্যবস্থা নিচ্ছেনা বলে অভিযোগ রয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে চলনবিলাঞ্চলের ওই ২ টি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে স্থানীয় অসৎ মংস্যজীবীরা বিশেষ কৌশলে শামুক ও ঝিনুক নিধন করছে। তবে চলনবিল ও তার শাখা খাল বিলে পানি কম থাকায় অবাধে এ শামুক নিধন করছে তারা।

অবশ্য স্থানীয়রা বলছে, চলনবিলে এখন পানি কম থাকায় মাছের সংকট দেখা দিয়েছে। এ কারণে তারা শামুক ও ঝিুনক নিধন করে জীবিকা নির্বাহ করছে। এ শামুক ও ঝিনুক নিধনে প্রতিদিন ভোর রাতে ওই বিল এলাকায় বেরিয়ে পড়ে তারা। ৩/৪ জন দল বেঁধে মই জাল টেনে ১০/১১ মণ এ শামুক সংগ্রহ করে থাকে। হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের নাদো সৈয়দপুর খেয়াঘাট, তাড়াশ-গুরুদাসপুর সড়ক, কামারশন ও কুন্দইল ঘাটসহ বিল অঞ্চলের বেশ কয়েকটি স্থানে শামুক বেচা-কেনা হচ্ছে। ওই বিলে চলাচলরত শ্যালো মেশিনের নৌকায় শামুক বিক্রির জন্য নিয়ে আসে মৎস্যজীবীরা। প্রতিমণ এ শামুক ও ঝিনুক সাড়ে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকায় বিক্রি বিক্রি হচ্ছে। পাইকারীরা এ লাভজনক শামুক ও ঝিনুক কিনে নিয়ে ট্রাক যোগে খুলনা, সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, বাগেরহাট, যশোরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হাঁস খামারিদের কাছে সরবরাহ করা হচ্ছে।

এছ্ড়াা এ শামুক বিভিন্ন স্থানে মাছের খাবার হিসেবেও বিক্রি করা হচ্ছে। স্থানীয় শামুক ও ঝিনুক ব্যাপারীরা বলেন, প্রতিদিন গড়ে ৫ থেকে ৭ হাজার বস্তা শামুক কেনা হয়। এ বিষয়ে প্রাণীবিদরা বলছেন, শামুক ও ঝিনুক প্রাকৃতিক ভাবে কাদাঁ পানি পরিষ্কার করে। এতে মাছসহ বেশিরভাগ জলজ প্রাণীর বেঁচে থাকার জন্য অপরিহার্য। এ শামুক নিধনে এ ঐতিহাসিক বিলের প্রাকৃতিক পরিবেশ ও কৃষি জমির উর্বরতা শক্তি হ্রাস পাবে।

এ ব্যাপারে তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মেজবাউল করিম বলেন, এ বিলাঞ্চলে অসৎ মংস্যজীবীরা মাছের পাশাপাশি শামুক ঝিনুক নিধন করছে। বিশেষ করে শামুক ঝিনুক নিধন রোধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com