শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৪:০৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুর বন্যার প্রভাবে হাটভর্তি গরু, ক্রেতা কম !! কালের খবর রূপগঞ্জে কারখানার বিষাক্ত পানিতে মরে গেলো ৩ লাখ টাকার মাছ : অসুস্থ অর্ধশতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা। কালের খবর মুরাদনগরে  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক  বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অর্থায়নে এক,শত শিক্ষার্থী কে বাইসাইকেল প্রদান। কালের খবর পৈত্রিক সম্পত্তি ভূমিদস্যু হাতে থেকে রক্ষার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন জগন্নাথপুরে রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু এলাকায় শোকের ছায়া, জানাযা সম্পন্ন। কালের খবর সাইবার অপরাধ দমন ও অপপ্রচার ঠেকাতে একটি আলাদা ‘সাইবার পুলিশ ইউনিট’ হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন। কালের খবর ইউপি চেয়ারম্যান পিতার এক ছেলে এমপি আরেক ছেলে উপজেলা চেয়ারম্যান। কালের খবর ঢাকা প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য এম নজরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক। কালের খবর
নবীনগরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের অনিয়ম-দুর্নীতির সংবাদসংগ্রহ কালে ইউপি চেয়ারম্যানের হাতে সাংবাদিক লাঞ্ছিত ! কালের খবর

নবীনগরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের অনিয়ম-দুর্নীতির সংবাদসংগ্রহ কালে ইউপি চেয়ারম্যানের হাতে সাংবাদিক লাঞ্ছিত ! কালের খবর

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি, কালের খবর  :  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় বৃহস্পতিবার ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এক সাংবাদিককে লাঞ্চিত করার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নের নূরজাহানপুর গ্রামে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য মুজিববর্ষ উপলক্ষে গৃহনির্মাণ কাজে নিম্নমানের কাজ হচ্ছে! এমন অভিযোগের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে ওই সাংবাদিক স্থানীয় চেয়ারম্যানের হাতে লাঞ্ছিত হন।

জানা গেছে, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য সরকারের আশ্রয়ণ প্রকল্পের অধীনে নূরজাহানপুরে ৯০টি গৃহ নির্মাণের কাজ চলছে। কিন্তু ওইসব গৃহনির্মাণে খুবই নিম্নমানের কাজ হচ্ছে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে বার্তাবাজার নামের একটি অনলাইন পোর্টালের স্থানীয় প্রতিনিধি মো. আক্তারুজ্জামান বিকেল ৫টার দিকে সেখানে সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে সেখানে উপস্থিত বড়িকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার পারভেজ হারুতের সঙ্গে বাগবিতন্ডা হয়। পরে চেয়ারম্যান তাকে লাঞ্ছিত করেন।
স্থানীয়রা জানান, সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে এ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে সাংবাদিক আক্তারুজ্জামান কেন লাঞ্ছিত ও হামলার শিকার হচ্ছেন, সেটিও প্রশাসন ও সাংবাদিক নেতাদের একটু গুরুত্ব দিয়ে খতিয়ে দেখা উচিৎ।

সাংবাদিক আক্তারুজ্জামান অভিযোগ করেন, “গৃহনির্মাণে নিম্নমানের কাজের ভিডিও ধারণ করতে গেলে চেয়ারম্যান হারুত ও তার লোক মনির আমার সঙ্গে মারাত্মক দুর্ব্যবহার করে বাঁধা দেয়। এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান হারুত আমার গায়ে হাত তুলেন।”

তবে চেয়ারম্যান আনোয়ার পারভেজ হারুত বলেন, “সাংবাদিকের গায়ে হাত তোলার তো প্রশ্নই ওঠে না। তবে আক্তার নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে প্রভাব দেখানোয়, তার সঙ্গে সামান্য কথা কাটাকাটি হয়েছে। মূলত সামনে নির্বাচন। তাই আমার ইমেজ ক্ষুন্ন করতেই ফেসবুকে এসব আজগুবি মিথ্যে লেখালেখি হচ্ছে।”
নবীনগরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একরামুল ছিদ্দিক রাতে কালের খবরকে বলেন, “শুনেছি, বিষয়টি মাননীয় সাংসদ স্যারও অবগত হয়েছেন। সাংবাদিক আমাকেও ফোনে সব জানিয়েছেন। কাল (শুক্রবার) এমপি স্যারের উপস্থিতিতে এ বিষয়ে উভয় পক্ষের কথা শুনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com