সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৩:১৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ঐতিহাসিক গুরুত্ব বিবেচনায় বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্তিকরণ : রোকেয়া খাতুন  প্রতারণার খপ্পরে বিবর্ণ সবজি বিক্রেতা আ. কুদ্দুসের স্বপ্ন। কালের খবর পার্কে বেড়াতে যাওয়ার পথে সীতাকুণ্ডে ট্রাকের ধাক্কায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত। কালের খবর ১০ হাজার টাকার গুজবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরল শিক্ষার্থীরা। কালের খবর শাহজাদপুরে ভাতিজার ফালার আঘাতে চাচার মৃত্যু। কালের খবর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুপ্রেরণাদায়ী বিশ্বের তিন নারী নেতাদের একজন। কালের খবর নবীনগরে অবৈধ অটোরিকশার চাপায় মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিহত । কালের খবর একটি সেতুর জন্য হাজার হাজার মানুষের দূর্ভোগের সমাপ্তি হলো। কালের খবর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন শিগগিরই সংশোধন : আইনমন্ত্রী। কালের খবর
ব্রাহ্মণপাড়ার হাফেজ ইকবাল তবুও দমেননি

ব্রাহ্মণপাড়ার হাফেজ ইকবাল তবুও দমেননি

 

 

 

ব্রাহ্মণপাড়া (কুমিল্লা) প্রতিনিধি, কালের খবর :

  • হাফেজ মো. ইকবাল। বাড়ি কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার নাগাইশ গ্রামে। সাড়ে ৪ বছর বয়সেই জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চোখের দৃষ্টি হারান। নাইঘর গ্রামে হাফেজিয়া মাদ্রাসায় ভর্তি হন। বন্ধুদের কাছে শুনে শুনে ৩০ পারা কোরআন মুখস্থ করে হাফেজ হবার গৌরব অর্জন করেন। নিজের প্রতিভাকে কাজে লাগিয়ে শুধু কানে শুনে রেডিও বাংলাদেশ কুমিল্লা অফিসের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তুলেন। রেডিও অনুষ্ঠানের সরাসরি প্রোগ্রাম স্বাস্থ্য, খেলাধুলা, কুইজ প্রতিযোগিতা ইত্যাদি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে অনেক সাফল্য অর্জন করেন। কুমিল্লা বেতারযোগে ২০০৯ সাল থেকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হাফেজ ইকবাল বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে যাচ্ছেন। কয়েক বছর আগে তার নিজ গ্রাম নাগাইস এলাকার শিক্ষিত ও অর্ধশিক্ষিত যুবকদের নিয়ে গঠন করেন ‘মুরাদ বেতার যুব সংঘ’। ওই যুব সংঘের তিনি প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতি বছর বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন খেলাধুলা ও এলাকার উন্নয়মূলক কর্মকাণ্ড অব্যাহত রেখে যাচ্ছেন। কিছুদিন আগে এলাকার কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে তাদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন। ২০১৭ সালে বাড়ির পাশে ফয়েজিয়া রাজ্জাকিয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসা এবং নুরানী ও হিফজ বিভাগের সামনে ব্যবসা শুরু করেন। চোখে না দেখতে পারলেও হাফেজ ইকবাল শব্দ শুনে মানুষের গতিবিধি লক্ষ্য করতে পারেন। মোবাইল ফোনের বাটন টিপে সবার সঙ্গে ফোনে কথা বলতে পারেন। ২০১০ সালে বিবাহ করেন। বর্তমানে একটি ছেলে ও এক কন্যাসন্তানের জনক।
    সংগঠক, বেতারের উপস্থাপক হাফেজ ইকবাল মানুষের কল্যাণে কাজ করতে খুব পছন্দ করেন।
    তিনি বেতারের একজন নিয়মিত উপস্থাপক হিসাবে কাজ করতে চাচ্ছেন। তিনি বলেন, মানুষ চেষ্টা করলে অনেক অসাধ্য কাজ সাধন করতে পারে। আমি আমার সন্তানদের উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করতে চাই এবং একটি সুষ্ঠু ও সুন্দর সমাজ গঠন করতে এলাকাবাসী সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।

কালের খবর  -/৪/৩/১৮

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com