বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৩:৪৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুরে অব্যাহত ভারী বর্ষণ ও ঢলের পানিতে বড় বন্যার শঙ্কা। কালের খবর সম্পত্তি ও জানমালের নিরাপত্তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা। কালের খবর জগন্নাথপুর বন্যার প্রভাবে হাটভর্তি গরু, ক্রেতা কম !! কালের খবর রূপগঞ্জে কারখানার বিষাক্ত পানিতে মরে গেলো ৩ লাখ টাকার মাছ : অসুস্থ অর্ধশতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা। কালের খবর মুরাদনগরে  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক  বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অর্থায়নে এক,শত শিক্ষার্থী কে বাইসাইকেল প্রদান। কালের খবর পৈত্রিক সম্পত্তি ভূমিদস্যু হাতে থেকে রক্ষার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন জগন্নাথপুরে রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু এলাকায় শোকের ছায়া, জানাযা সম্পন্ন। কালের খবর সাইবার অপরাধ দমন ও অপপ্রচার ঠেকাতে একটি আলাদা ‘সাইবার পুলিশ ইউনিট’ হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন। কালের খবর
তালতলী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে ২২ চীনা নাগরিক করোনা আক্রান্ত। কালের খবর

তালতলী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে ২২ চীনা নাগরিক করোনা আক্রান্ত। কালের খবর

মোঃ রফিকুল, তালতলী উপজেলা প্রতিনিধি, কালের খবর : বরগুনার তালতলী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ২২ চীনা নাগরিক করোনা আক্রান্ত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের করোনা পজেটিভ আসে। এরা সবাই দেড়মাস আগে চীন থেকে তালতলীতে এসেছেন।

বৃহস্পতিবার (৭অক্টোবর) সকালে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে তাদের করোনার প্রতিবেদন পাঠানো হয়। প্রতিবেদনে বলা হয় নমুনা দেয়া ৩৭ জনের মধ্যে ২২ জন চীনা নাগরিক করোনা পজিটিভ আসে। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের মধ্যেই তাদেরকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে৷ স্বাস্থ্য বিভাগ সার্বক্ষণিক নজরদারিতে রেখেছেন।

বরগুনার সিভিল সার্জন ডাক্তার মারিয়া হাসান জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে গতকাল বুধবার (৬ অক্টোবর) তালতলী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে কর্মরত ৩৭ জন চীনা নাগরিক তালতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরিক্ষার জন্য নমুনা দেয়। সেখান থেকে নমুনা বরিশাল পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়।

তালতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কাওসার হোসেন জানান, করোনা শনাক্ত হওয়া চীনা নাগরিকদের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের মধ্যেই আইসোলেশন সেন্টারে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে রাখা হয়েছে। তাদেরকে আলাদা কোয়ার্টারে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত নাগরিকদের জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রস্তুত রাখা হয়েছে। কেউ গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পরলে তাদের তাৎক্ষণিক চিকিৎসার জন্য পরিবহন ও অক্সিজেন প্রস্তত রয়েছে৷

তিনি আরও বলেন, নির্মানাধীন এই বিদ্যুৎকেন্দ্রে বাংলাদেশি ১১শ শ্রমিক কাজ করেন। তারা সবাই সুস্থ্য রয়েছেন। তারপরেও বাড়তি সতর্কতা হিসেবে সব শ্রমিককে করোনা টেষ্ট করানো হবে। আজ দুপুরে ৩শ রেপিড এন্টিজেন্ট কিট উপজেলা প্রশাসনের একটি দল স্বাস্থ্য বিভাগকে সাথে নিয়ে বিদ্যুৎকেন্দ্রে গিয়েছেন। বিকাল থেকেই টেষ্ট শুরু হবে। ১১শ শ্রমিক মানে ১১শ পরিবার। বাংলাদেশি শ্রমিকরা যদি করোনা আক্রান্ত হয় তাহলে বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ স্থগিত করে কেন্দ্রটি লকডাউন করার জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে অনুমতি চাইবেন তিনি।

বরগুনার জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান বলেন, যেহেতু এটি উন্নয়ন প্রকল্প তাই এখনই কাজ বন্ধ করে লকডাউন করা ঠিক হবেনা। চীনা নাগরিকরা যারা আক্রান্ত হয়েছেন তারা কেউই বাংলাদেশি শ্রমিকদের সংস্পর্শে আসেনি। তবে, তারপরেও যদি দেশী শ্রমিকরা করোনা আক্রান্ত হয় তবে লকডাউনের বিকল্প নেই। বিষয়টি সম্পর্কে সব সময় খোঁজ রাখছেন তিনি।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com