রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
স্ত্রীর যৌতুক মামলায়,ব্যাংক কর্মকর্তা রাশেদের শেষ রক্ষা মিলেনি বাকলিয়া থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার। কালের খবর নবীনগর থানা প্রেস ক্লাবের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে কমিটি গঠন, সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক রুবেল। কালের খবর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অনিয়মের অভিযোগে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত। কালের খবর ঘিওরে কৃষকদের মানববন্ধনে নিয়মিত বর্ষা ও জলবায়ু সুবিচারের জোরালো দাবি। কালের খবর বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরেই চট্টগ্রামের অভূতপূর্ব উন্নয়ন : খোরশেদ আলম সুজন। কালের খবর “ইন্টারন্যাশনাল প্রেস ক্লাব এন্ড হিউম্যান রাইটস” এর কেন্দ্রীয় কমিটির চূড়ান্ত প্রার্থিতা গ্রহণ। কালের খবর জগন্নাথপুরে প্রাথমিক শিক্ষক মদপান করে সাজা ভোগ করায় এলাকায় ক্ষোভ। কালের খবর ময়মনসিংহ বিআরটিএ টাকা ছাড়া কাজ করেন না সহকারী পরিচালক এস এম ওয়াজেদ, সেবাগ্রহীতারা অসন্তোষ। কালের খবর হাইকোর্টের রায় : মোটরযানে বিজ্ঞাপনের জন্য ফি নিতে পারবে না বিআরটিএ। কালের খবর অবশেষে চালু হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সীমান্ত হাট, তাজা মাছের চাহিদা ভারতের। কালের খবর
ভূয়া লেবার তালিকা তৈরি করে পোতাজিয়া ইউনিয়নে কর্মসৃজন প্রকল্পে চলছে হরিলুট। কালের খবর

ভূয়া লেবার তালিকা তৈরি করে পোতাজিয়া ইউনিয়নে কর্মসৃজন প্রকল্পে চলছে হরিলুট। কালের খবর

নয়ন ইসলাম, শাহজাদপুর ( সিরাজগঞ্জ ) প্রতিনিধি, কালের খবর : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নে চলমান কর্মসৃজন প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। সরকারি কোন প্রকার নিয়ম নীতি না মেনে মনগড়া লেবার তালিকা তৈরি করে ভয়াবহ লুটপাটের পায়তারা শুরু করেছেন ইউনিয়ন চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টরা। বরাদ্দের চেয়ে একেবারেই সামান্য লেবার দিয়ে কাজ করিয়ে হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চলছে প্রকল্পের লক্ষ লক্ষ টাকা। এমনকি নির্ধারিত সময়ের ১০ দিন আগেই কাজ শেষ করে পুরো বিল হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন শ্রমিকরা। পোতাজিয়া ইউনিয়নে ৫১৬ জন লেবার বরাদ্দ থাকলেও তা কেবল কাগজে কলমেই সীমাবদ্ধ। মাঠে নামেমাত্র কয়েকজন লেবার থাকলেও কাগজে কলমে দেখানো হচ্ছে শতভাগ হাজিরা। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তা, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এবং মেম্বারদের যোগসাজশেই দূর্ণীতির এমন মহোৎসব চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অপরদিকে প্রকল্প চলমান এলাকায় প্রকল্পের তথ্য সংবলিত সাইনবোর্ড থাকার কথা থাকলেও ইউনিয়নের কোথাও প্রকল্পের কোন সাইনবোর্ড লক্ষ্য করা যায়নি। ভূয়া নামের তালিকা করে প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ করতেই সাইনবোর্ড সরবরাহ করা হয়নি বলে অভিযোগ অনেকের।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, কর্মহীন শ্রমজীবিদের জন্য কাজের সুযোগ তৈরির লক্ষ্যে ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচী প্রকল্প চালু করেছে সরকার। মাঠে কাজ না থাকায় কর্মহীন প্রান্তিক শ্রমজীবি মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে উপজেলার অন্যান্য ইউনিয়নের মত জালালপুর ইউনিয়নেও ৪০ দিনের জন্য কর্মসৃজন কর্মসূচি প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। এতে সপ্তাহে পাঁচদিন সরকারী ভাবে গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্পে মাটি কাটার কথা।

সোমবার (২৪মে) পোতাজিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ইউনিয়নে ৫ টি প্রকল্পে ৫১৬ জন লেবারের বিপরীতে কাজ করছেন পোতাজিয়াতে ৬৫ জন, আলোকদিয়ারে ৩৯ জন, মাদলা ৫৮ জন, রাউতারা ৩৮ জন, বহলবাড়ি ১৮ জন। অর্থাৎ ৫১৬ জন শ্রমিক কাজ করার থাকলেও সরজমিনে পাওয়া যায় মাত্র ২১৮ জন শ্রমিক। বাকি ২৯৮ জন শ্রমিক কোথায় কাজ করছে তার কোন খবর জানেন না ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী বেপারি ও প্রকল্পের পিআইসি।
বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন দফতর ম্যানেজ করে ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যরা প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ করতেই এভাবে খাতা কলমে শতভাগ শ্রমিক উপস্থিতি দেখিয়ে বাস্তবে নামমাত্র শ্রমিক দিয়ে কাজ করাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে পোতাজিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হাজী মোহাম্মদ আলী বেপারিকে জিজ্ঞেস করলে তিনি জানান, এসব বেপারে সাংবাদিকদের কিছুই বলতে পারবেন না তিনি। সব বিষয় বলতে পারবেন পিআইও।

অপরদিকে শাহজাদপুর প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ এর সাথে মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা বলেন, যেখানে যে কয়জন শ্রমিক কাজ করছেন সেই তালিকামতই বিল প্রদান করা হবে।সরকারি প্রকল্পে কোন অনিয়ম দূর্নীতি প্রশ্রয় দেওয়া হবে না।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com