শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ১০:২০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আগুন নেভানোর পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেই যশোরের অধিকাংশ হাসপাতাল ও ক্লিনিকে। কালের খবর তাড়াশ উপজেলায় আবারও ধুম পরেছে পাট ধোয়ার। কালের খবর তাড়াশ উপজেলায় মহেশরৌহালী সরকারী প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে দূরর্নীতির আভিযোগ উঠেছে। কালের খবর গ্রামবাসীর ধাওয়া খেয়ে পালালেন যৌণ হয়রানির অভিযোগে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক সবুর মাষ্টার। কালের খবর পদ্মা সেতুর প্রভাবে যশোরে বিমান যাত্রী কমেছে ৫০ শতাংশ। কালেন খবর জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকিপূর্ণ পাঠদান, আট শত শিক্ষার্থীর জন্য ৫ শিক্ষক। কালের খবর বাঙালির হৃদয় থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম কোন অপশক্তি মুছে ফেলতে পারবেনা : এম এ সালাম। কালের খবর সাভারে সাংবাদিককে হত্যা চেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন সাংবাদিকরা। কালের খবর নেপালের কাঠমান্ডুতে আন্তর্জাতিক জলবায়ু সম্মেলনে যোগ দিলেন সাংবাদিক এম আই ফারুক আহমেদ। কালের খবর দিঘলিয়ার সেনহাটী মহা শ্মশান ঘাট রক্ষায় স্থানীয় এমপি’র পদক্ষেপ। কালের খবর
মধুপুরে গৃহবধু নার্গিস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন। কালের খবর

মধুপুরে গৃহবধু নার্গিস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন। কালের খবর

আহমেদ সাজু( সখীপুর) টাঙ্গাইল, কালের খবর : টাঙ্গাইলের মধুপুরে চাঞ্চল্যকর গৃহবধু নার্গিস হত্যা মামলার রহস্য দীর্ঘ দেড়বছর পর উদঘাটন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন(পিবি আই)।নিহতের সাবেক স্বামী মনিরুজ্জামান চীফ জুডিশিয়াল আদালতে স্বীকরোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।সোমবার (১৫মার্চ)
টাঙ্গাইলের (পিবিআই)পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সিরাজ আমীন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, মধুপুর উপজেলার নেকিপাড়া গ্রামের মো.নাসির উদ্দিনের মেয়ে নার্গিস ২০১৯সালের ১১
সেপ্টেম্বর নিখোঁজ হন। দুইদিন পর নার্গিসের বাড়ির উত্তর পাশে ধান ক্ষেতে গলায় ওড়না পেচানো লাশ
উদ্ধার করা হয়। নিহতের বাবা বাদী হয়ে মধুপুর থানায়
অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে একটি হত্যা মামলা করেন। এ ঘটনাটি স্থানীয় থানা পুলিশ তদন্ত করে।পরে মামলা
পিবিআই কাছে হস্তান্তর হয়।ঘটনার সূত্র ধরে, পিবিআই নানা তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে সাবেক স্বামী মনিরুজ্জামানের জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। গত শনিবার ধনবাড়ি উপজেলার কান্দিপুর গ্রাম থেকে মনিরুজ্জামানকে গ্রেপ্তার করা হয়।পিবিআই পুলিশ সুপার বলেন,আসামির জবানবন্দিতে জানা যায়,নার্গিসের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে বিয়েতে আবদ্ধ হন।কিছু দিন পর সম্পর্কের অবনতি হলে তাকে ডিভোর্স দিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করে।দ্বিতীয় বউ থাকা স্বত্বেও আবার নার্গিসের সাথে যোগাযোগ
রাখে। নার্গিস তাকে বলে দ্বিতীয় বউ তালাক দিলে
পুনরায় তাকে বিয়ে করবে।নার্গিসের কথামত তাকে তালাক দেয়।পরে নার্গিসের সাথে দেখা করতে বাড়িতে যায়,তাকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে।দ্বিতীয়বার ধর্ষণের চেষ্টা করলে নার্গিস তাকে বাধা দিলে গলায় ওড়না চেপে ধরে।একপর্যায়ে নার্গিস মারা যায়।এ ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য লাশ ধান ক্ষেতে ফেলে এলাকা ছেড়ে চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন অঞ্চলে আত্মগোপনে
চলে যান।সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আকরামুল আসামি জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com