শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৩:২৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুর বন্যার প্রভাবে হাটভর্তি গরু, ক্রেতা কম !! কালের খবর রূপগঞ্জে কারখানার বিষাক্ত পানিতে মরে গেলো ৩ লাখ টাকার মাছ : অসুস্থ অর্ধশতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা। কালের খবর মুরাদনগরে  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক  বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অর্থায়নে এক,শত শিক্ষার্থী কে বাইসাইকেল প্রদান। কালের খবর পৈত্রিক সম্পত্তি ভূমিদস্যু হাতে থেকে রক্ষার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন জগন্নাথপুরে রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু এলাকায় শোকের ছায়া, জানাযা সম্পন্ন। কালের খবর সাইবার অপরাধ দমন ও অপপ্রচার ঠেকাতে একটি আলাদা ‘সাইবার পুলিশ ইউনিট’ হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন। কালের খবর ইউপি চেয়ারম্যান পিতার এক ছেলে এমপি আরেক ছেলে উপজেলা চেয়ারম্যান। কালের খবর ঢাকা প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য এম নজরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক। কালের খবর
আসমা ১৯ বছর পর খুঁজে পেলেন বাবা-মা ভাইবোন। কালের খবর

আসমা ১৯ বছর পর খুঁজে পেলেন বাবা-মা ভাইবোন। কালের খবর

 রোববার সকাল ১০টায় আসমা ও তার তিন বছরের মেয়েকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থেকে আসা মা, বোন ও চাচার হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেন নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহীদুল্লাহ খান সোহেল ও নোয়াখালী সমাজসেবা অধিদফতরের উপ-পরিচালক সাইফুল ইসলাম চৌধুরী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি-বাসাসের মহাসচিব মনিরুজ্জামান চৌধুরী, পৌরসভার কাউন্সিলর ও সাংবাদিকরা।

অনুষ্ঠানে আসমার বোন রানু বেগম জানান, ২০০১ সালে তারা তিন ভাই তিন বোন মায়ের সঙ্গে চট্টগ্রামের চাঁনগায়ে মামার বাসায় বেড়াতে যায়। পরদিন তারা শহরে বেড়াতে বের হয়। হঠাৎ ভিড়ের মধ্যে তার ছয় বছরের বোন আসমা হারিয়ে যায়। কয়েক দিন ধরে অনেক খোঁজখবর নিয়ে না পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গ্রামের বাড়িতে ফিরে যান সবাই। ১৯ বছর পর তারা তাদের হারানো বোনকে নোয়াখালীতে ফিরে পেয়েছেন। রানু বেগম তার বোনকে যারা লালনপালন করে বড় করে বিয়ে দিয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আসমা বলেন, আমার মা-বাবার মতো যারা আমাকে লালনপালন করেছেন তারাও আমার মা-বাবা; আমি কোনোদিন তাদের ভুলতে পারব না। আমি তাদের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখব। আমার বিশ্বাস তারাও আমাকে ভুলবেন না।

 আসমাকে পালনকারী টিএন্ডটির অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফরহাদ হোসেন দম্পতি এ সময় আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। ফরহাদের স্ত্রী জহুরা আবেগাপ্লুত কণ্ঠে বলেন, ১৩ বছর আগে এক ভদ্রলোক আসমাকে এনে তার বাসায় দেন। সেই থেকে মেয়ের মতো তাকে লালনপালন করে বড় করেছেন। তিনি নোয়াখালী ইউএনবির সাংবাদিক মেজবাহউল মিঠু ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাংবাদিক আরজু মিয়ার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com