রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৫:৪৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাংলাদেশ বিশ্বে মাথা উঁচু করে চলবে, সম্মানের সঙ্গে চলবে : প্রধানমন্ত্রী। কালের খবর তিতাসের অফিস সহকারী জহির এখন কোটিপতি । কালের খবর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড মোড়ে একটি ইউলুপ নির্মাণ করে যানজট সমস্যার দ্রুত সমাধান প্রয়োজন। কালের খবর গ্রামগঞ্জে বইছে ভোটের হাওয়া। কালের খবর নেত্রকোনায় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের ছাত্রাবাস উদ্বোধন করেন, এমপি,হাবিবা রহমান খান শেফালী। কালের খবর হরিণাকুন্ডুতে বাসের ধাক্কায় যুবক নিহত। কালের খবর বিরামপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত। কালের খবর ফ্রিডম মানিকের শীষ্য সোহেল ও রানা পদ পেতে সক্রিয় যুবলীগে। কালের খবর শ্রীমঙ্গলের কুখ্যাত আসমার আস্তানা থেকে পতিতাসহ খদ্দের আটক। কালের খবর অবৈধ কয়লার ডাম্পিং পরিবেশ বিপর্যয়ের শঙ্কা ভোগান্তিতে এলাকাবাসী
হাসপাতালে রোগী রেখে ঘুমাচ্ছেন চিকিৎসক, গল্প আর সেলফিতে ব্যস্ত মেডিকেল শিক্ষার্থীরা!। কালের খবর

হাসপাতালে রোগী রেখে ঘুমাচ্ছেন চিকিৎসক, গল্প আর সেলফিতে ব্যস্ত মেডিকেল শিক্ষার্থীরা!। কালের খবর

কালের খবর ডেস্ক : রোগী রেখে চেয়ারে হেলান দিয়ে ঘুমাচ্ছেন চিকিৎসক আর কম্পিউটারে বাজছে ‘অনেক সাধনার পরে আমি, পেলাম তোমার মন।’ রোগীরা বাইরে বসে আছেন। আর অন্যদিকে মেডিকেলের ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেরা গল্প আর সেলফি তোলায় ব্যস্ত।

সম্প্রতি কুমিল্লায় সরকারি জেনারেল হাসপাতালের এমনই এক ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

ওই ভিডিওটির সাথে লেখা ছিলো, ‘প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি! এই হল কুমিল্লা সদর হাসপাতালের (জেনারেল হাসপাতাল) চিকিৎসা ব্যবস্থা। আজকে (বুধবার) দুপুর ১২ টার দিকে সদর হাসপাতালের ১৪ নম্বর কক্ষে ডা. জহিরুল হকের কাছে আমার মাকে নিয়ে যাই গলায় সমস্যার চিকিৎসা করার জন্য। কক্ষে ঢুকে দেখি তিনি ঘুমাচ্ছেন এবং কম্পিউটারে (অনেক সাধনার পরে আমি পেলাম তোমার মন) এই গানটি বাজছে। মেডিকেলের ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেরা গল্প আর সেলফি তোলায় ব্যস্ত। অন্যদিকে রোগীরা বাইরে বসে আছেন। যারাই আসছে তাদের বলে দিচ্ছেন বাইরে বসেন। রোগীরা বলছে, তিনি ঘুমাচ্ছেন, আমাদের কখন দেখবে? ছাত্ররা উত্তর দিচ্ছেন-অপেক্ষা করেন উনি রেস্ট নিচ্ছেন! এই যাবত কোনো প্রাইভেট হাসপাতালে কি দেখেছেন ১৫ জন রোগী দেখার পরে ৩০/৩৫ মিনিট ঘুমাতে। সেখানে ঘুম আসে না….কারণ, সেখানে টাকার গন্ধ?’

এ বিষয়ে অভিযুক্ত চিকিৎসক জহিরুল হক জানান, আমি কখনো দায়িত্বের প্রতি অবহেলা করি না। ঘটনার দিন আমার একটু চোখ লেগে এসেছিলো। ওই ভিডিওটির সাথে ওয়ার্ড মাস্টার নজরুল ইসলাম জড়িত রয়েছে। ওয়ার্ড মাস্টার নজরুল আমার অফিসেও হামলা করেছিলো। আমি এই বিষয়ে জিডি দায়ের করবো।’

তবে চিকিৎসকের অভিযোগ অস্বীকার করে ওয়ার্ড মাস্টার নজরুল ইসলাম বলেন, আমি কেন আমার হাসপাতালের বিরুদ্ধে প্রচারনা চালাবো। তিনি রোগী না দেখে ঘুমিয়েছেন, আর এটা কেউ ভিডিও করে ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছে। আমি এ বিষয়ে আর কিছুই জানি না।

এ বিষয়ে কুমিল্লার সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান বলেন, ‘ভাইরাল হওয়া ভিডিওটির বিষয়ে ওই চিকিৎসককে শোকজ করা হয়েছে। শোকজের জবাব পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।’

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com