বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৭:৫০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কোটাবিরোধী আন্দোলন-আবারও রাজনীতির মাঠে ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট। কালের খবর চালের দাম আরও বাড়লো, সবজি আলু পেঁয়াজেও অস্বস্তি। কালের খবর খুনি ওসি প্রদীপের হাতে নির্যাতিত সাংবাদিকের আহাজারি। কালের খবর বন্দরে ৬ প্রতারকের বিরুদ্ধে আদালতে চাজশীট দাখিল। কালের খবর মুরাদনগরে মাদক বিরোধী সমাবেশ। কালের খবর সাংবাদিক জুয়েল খন্দকারের বিরুদ্ধে কাউন্সিলর সাহেদ ইকবাল বাবুর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত। কালের খবর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ঠিকাদারদের সাথে লিরা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ”র মতবিনিময় সভা-সম্পন্ন। কালের খবর গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী আমান উল্লাহ বিরুদ্ধে কাজ না করেই সরকারি বরাদ্দের কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎতের অভিযোগ!। কালের খবর স্ত্রীর যৌতুক মামলায়,ব্যাংক কর্মকর্তা রাশেদের শেষ রক্ষা মিলেনি বাকলিয়া থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার। কালের খবর নবীনগর থানা প্রেস ক্লাবের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে কমিটি গঠন, সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক রুবেল। কালের খবর
সবুজে ঘেরা আরশি নগর ফিউচার পার্ক। কালের খবর

সবুজে ঘেরা আরশি নগর ফিউচার পার্ক। কালের খবর

মোঃ আশরাফ উদ্দীন, চট্রগ্রাম, সীতাকুণ্ড  প্রতিনিধি, কালের খবর : উত্তর চট্রগ্রামের মিরসরাই উপজেলার ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়ক এবং রেললাইনের মাঝামাঝি স্থানে গড়ে উঠা পার্কটির নাম ‘আরশি নগর ফিউচার পার্ক’। ভ্রমণ প্রেমিকদের চিত্তবিনোদনের বিষয়টি চিন্তা করে নিজ অর্থায়নে বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী নাছির উদ্দিন দিদার পার্কটির কাজ শুরু করেন। পার্কটিতে ১১০ প্রজাতির কয়েক হাজার ফুলগাছের সাথে ফল-ঔষধি গাছও দারুণ শোভা পাচ্ছে। সেই সঙ্গে নান্দনিকতার ছোঁয়ায় গড়ে তোলা অবকাঠামোগুলো নিয়ে প্রকৃতিপ্রেমীদের পাশাপাশি শিশুদের আনন্দ বিনোদনের আস্থার স্থান করে নিয়েছে পার্কটি।
মেঘের আঁধার কেটে আকাশে মিষ্টি রোদের হাসি। আরশি নগরের সবুজ সৌন্দর্য যেন মন ভরিয়ে তুলে।ভেতরেই ঢুকতে চোখে পড়ে হাজারো মানুষের ঢল। শত কর্ম ব্যস্ততার পর মানুষ যেন একটু সস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে আসছে আরশি নগর ফিউচার পার্কে। পরিবার পরিজন নিয়ে সবুজের মাঝে হারাতে চাই মানুষ। আরশি নগর ফিউচার পার্ক শিশু দের জন্য মনে হয় অন্য রকম এক বিনোদনের ঠিকানা।পার্কের ভেতরেই দেখা যায় শিশুদের অন্য রকম উৎসব মুখর পরিবেশ শিশুরা কেউ ব্যস্ত দোলনায়, মাছ কিংবা গাছের আকৃতির স্লিপারগুলোতে। পাত্তা নেই কোনোদিকে। তাদের এই ইতিউতি ব্যস্ততা দেখে চেনা মায়া খুঁজতে চায় মন। তাইতো নাগরিক জীবনের রুক্ষতা থেকে একটু হলেও দৃষ্টিরা স্থির এখানে।সবুজে ঘেরা আরশি নগর ফিউচার পার্ক সকল শ্রেণির মানুষের কাছে বিনোদনের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু। ঘুরতে আসা দর্শনার্থীদের সাথে কথা বললে উনারা বলে সময় উপযোগী এমন একটি পার্ক সত্যিই প্রশংসার দাবিদার।উনারা আরও বলে আমরা পরিবার নিয়ে সবাই মিলে ঘুরতে আসছি।এত রকমের বাহারি গাছ গাছালী দেখে মনটা ভরে গেল।যান্ত্রিক জীবন শেষে অনেকদিন পর সবুজের মাঝে সস্থির নিশ্বাস ফেলতেছি।
তবে সবকিছু ছাপিয়ে কর্মব্যস্ত মানুষগুলোর জন্য অবসর আর একরাশ বুকভরা নিশ্বাস নেওয়ার জায়গা,আরশি নগর ফিউচার পার্ক।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com