শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০২:১৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুর বন্যার প্রভাবে হাটভর্তি গরু, ক্রেতা কম !! কালের খবর রূপগঞ্জে কারখানার বিষাক্ত পানিতে মরে গেলো ৩ লাখ টাকার মাছ : অসুস্থ অর্ধশতাধিক স্থানীয় বাসিন্দা। কালের খবর মুরাদনগরে  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক  বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। কালের খবর বাঘারপাড়ায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অর্থায়নে এক,শত শিক্ষার্থী কে বাইসাইকেল প্রদান। কালের খবর পৈত্রিক সম্পত্তি ভূমিদস্যু হাতে থেকে রক্ষার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন জগন্নাথপুরে রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু এলাকায় শোকের ছায়া, জানাযা সম্পন্ন। কালের খবর সাইবার অপরাধ দমন ও অপপ্রচার ঠেকাতে একটি আলাদা ‘সাইবার পুলিশ ইউনিট’ হবে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন। কালের খবর ইউপি চেয়ারম্যান পিতার এক ছেলে এমপি আরেক ছেলে উপজেলা চেয়ারম্যান। কালের খবর ঢাকা প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য এম নজরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক। কালের খবর
বাঘারপাড়ায় কয়েক দিনের ভারী বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে ফসলের মাঠ ও বাড়ি ঘর। কালের খবর

বাঘারপাড়ায় কয়েক দিনের ভারী বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে ফসলের মাঠ ও বাড়ি ঘর। কালের খবর

সাঈদ ইবনে হানিফ, (বাঘারপাড়া) যশোর,  কালের খবর : গত কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে যশোরের বাঘারপাড়ার মাঠঘাট। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কাঁচা ও আধাপাকা ঘর বাড়ি, পানিবন্দি হয়ে জীবন কাটাচ্ছে বেশ কয়েকটি পরিবার। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে কৃষকের ফসলের মাঠ। খোঁজ খবর নিয়ে জানা যায়, যাশোরের বাঘারপাড়া সহ আশপাশ অঞ্চলে গত এক সপ্তাহ যাবত মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এতে করে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের ফসলের মাঠ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিশেষ করে সবজি জাতীয় ফসলের। এমন অবস্থায় কৃষকরা চরমভাবে হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। কথা হয়, উপজেলার বাসুয়াড়ি ইউনিয়নের ঘোষনগর গ্রামের বেগুন চাষি শুকুর আলীর সাথে, তিনি বলেন, গত কয়েক দিনের বৃষ্টিতে তার বেগুন ক্ষেতে ২/৩ ফুট পানি জমে গেছে। অনেক ধার দেনা করে তিনি ২৫ শতক জমিতে বেগুন চাষ করে ছিলেন, গাছে বেগুন ও ধরে ছিলো ভালো কিন্তু অতি বৃষ্টি তার সব আশা কেড়ে নিলো। শুকুর আলীর মত বেগুন চাষী বাগডাংগা গ্রামের ইকবাল হোসেন, ঘোষনগর গ্রামের টমেটো চাষী ছোট্ট দেবনাথ, এরশাদ আলী, ইনছার আলী সহ অনেকেই ক্ষতি গ্রস্ত হয়েছে। অন্যদিকে নদী খননের কারণে নদীর পানি নিষ্কাশনের মুখ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় জলাবদ্ধতা কিছুটা স্থায়ী রূপ নিয়েছে, ফলে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে বেশ কয়েকটি পরিবার। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বেশ কিছু ঘরবাড়ি। সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার ঘোষনগর গ্রামের খোকন ঠাকুরের মাটির দেওয়ালের ঘরটি ধসে পড়েছে। তার উঠানে এখনো ৪/৫ ফুট পানি, তিনি এখন গৃহহীন হয়ে পরিবার নিয়ে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছে। প্রতিবেশীরা বলেন, ঠাকুর বাড়ির ৫ টি পরিবার গত এক সপ্তাহ ধরে পানি বন্দী জীবন কাটাচ্ছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি জানান, যদিও এমন অবস্থা প্রাকৃতিক দুর্যোগ সৃষ্ট কারণে তৈরি হয়েছে তবু্ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের নিয়মিত খোজখবর নেওয়া হচ্ছে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com