শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:০১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
টেকনাফে লক্ষাধিক ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক। কালের খবর একুশের বই মেলায় রাজু আহমেদ মোবারকের ‘সত্য সুন্দরের সন্ধানে’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন। কালের খবর রাজধানীর ওয়ারী বিভাগে থানা পুলিশের অভিযানে ১৪ ছিনতাইকারী গ্রেফতার। কালের খবর বাঘারপাড়ায় কৃষকের ৩ লাখ টাকার কলাগাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা”। কালের খবর নদীর মাঝখানে গাছ পড়ে নড়াইলের সাথে বসুন্দিয়া-বাঘারপাড়ার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন” সাপাহারে তেঘরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন। কালের খবর অমর ২১শে ফেব্রুয়ারী উপলক্ষে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ফয়জুর রহমান বাদল এমপি । কালের খবর সিরাজদিখান প্রেসক্লাব নির্বাচনে মোক্তার সভাপতি ও মাসুদ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন। কালের খবর বাঘারপাড়ায় কোন ওয়াজ মাহফিল বন্ধ হবে না – বাগডাঙ্গা হাইস্কুল মাঠে বার্ষিক তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে বললেন নেতৃবৃন্দ । মুশতাক-তিশাকে লিগ্যাল নোটিশ। কালের খবর
মহেশপুর ১৪৪ ধারা অমান্য করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ হোমিও ডাক্তারের বিরুদ্ধে। কালের খবর

মহেশপুর ১৪৪ ধারা অমান্য করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ হোমিও ডাক্তারের বিরুদ্ধে। কালের খবর

সাঈদুর রহমান,ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি, কালের খবর : ঝিনাইদহের মহেশপুরে আদালতের আদেশ অমান্য করে রাতের আধারে ঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে এক হোমিও ডাক্তারের বিরুদ্ধে। মনিরুজ্জামান ওরফে শহিদ নামে এক হোমিও ডাক্তার ক্রয় সূত্রে ২.২ শতক জমিটির মালিক দাবি করে বসত ঘর নির্মাণ করছেন।
এদিকে জমিটির মালিক দাবি করে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ফৌজিয়া নাহিদ নামে এক নারী। তার দাবি, বাবার কাছ থেকে হেবা দলিলের মাধ্যমে তিনি ওই জমির মালিক। মহেশপুর মৌজা নম্বর ১০৯, খতিয়ান নম্বর ১০৭৯ এবং ১৬০৯ আরএস দাগের ৭.৭৫ শতক জমিটি ২০০৭ সাল থেকে ভোগ দখল করে আসছেন। কিন্তু মনিরুজ্জামান নামের এক প্রতিবেশি সম্প্রতি তার জমির ২.২ শতক দখল করে ঘর নির্মাণ শুরু করে। ফলে জমির স্বত্ব বা দখল পেতে চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি ঝিনাইদহ জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। এরপর ২৪ ফেব্রুয়ারি আদালতের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ সেলিম রেজা ১৪৪ ধারা জারি করে মিমাংশিত না হওয়া পর্যন্ত উক্ত জমিতে না যাওয়ার জন্য বাদি-বিবাদি উভয় পক্ষকে আদেশ দেন।

এদিকে অভিযুক্ত মনিরুজ্জামান জানান, আমি ক্রয়সূত্রে জমিটির মালিক। তিনি মনোয়ারা বেগম নামের এক নারীর কাছ থেকে জমিটি প্রায় সাত বছর আগে ক্রয় করেন। এরপর রেজিষ্ট্রিও হয়েছে। এখন আমি আমার জমিতে ঘর নির্মাণ করছি। কিন্তু ফৌজিয়া নাহিদ নামে এক নারী জমিটি তার বলে দাবি করে আদালতে মামলা করেছেন। তিনি আরো জানান, মনোয়ারা বেগম অভিযোগকারী ফৌজিয়া নাহিদের সম্পর্কে চাচাতো বোন।

এ ব্যপারে মহেশপুর থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, ওই জমিতে ১৪৪ ধারা বলবদ রয়েছে। আদালতে বিষয়টি মিমাংসা হলে জমিটি ব্যবহার করতে পারবেন। যদি কেউ আদালতের আদেশ আমান্য করে তাহলে একটি লিখিত আবেদন করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক কালের খবর নিয়মিত পড়ুন এবং বিজ্ঞাপন দিন..

কালের খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com